bangla news

প্রশ্নফাঁসের গুজবে কান দেবেন না: শিক্ষামন্ত্রী

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০২০-০১-২৯ ১২:৩৫:৫৪ পিএম
সাংবাদিকদের সঙ্গে কথা বলেন শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মনি।

সাংবাদিকদের সঙ্গে কথা বলেন শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মনি।

চট্টগ্রাম: ৩ ফেব্রুয়ারি থেকে অনুষ্ঠেয় মাধ্যমিক স্কুল সার্টিফিকেট (এসএসসি) পরীক্ষায় প্রশ্নফাঁস ঠেকাতে সরকার সব ধরনের ব্যবস্থা নিয়েছে বলে জানিয়েছেন শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মনি।

তিনি বলেছেন, ‘গত বছরের মতো এবারও প্রশ্ন ফাঁসের কোনো ঘটনা ঘটবে না। তাই প্রশ্নফাঁসের গুজবে কান দেবেন না। গুজব ছড়িয়ে মানুষের সঙ্গে যারা প্রতারণার ফাঁদ তৈরি করে, তাদের পাতা ফাঁদে পা দেওয়া যাবে না।’

বুধবার (২৯ জানুয়ারি) বাংলাদেশ মেরিন একাডেমির ৫৪তম ব্যাচের ক্যাডেটদের শিক্ষা সমাপনী কুচকাওয়াজ অনুষ্ঠান শেষে সাংবাদিকদের প্রশ্নে শিক্ষামন্ত্রী এ কথা বলেন।

অভিভাবকদের উদ্দেশে ডা. দীপু মনি বলেন, ‘ছেলে-মেয়েরা যাতে সুস্থভাবে, সুন্দরভাবে, মনযোগ দিয়ে পড়াশোনা করে, পরীক্ষার প্রস্তুতি নেয়- সেদিকে যত্নবান হোন। বড় পরিসরের এই পাবলিক পরীক্ষায় সন্তানদের পড়ালেখার সঙ্গে অনৈতিক কোনো কিছু যুক্ত করবেন না।’

তিনি বলেন, ‘এসএসসি ও সমমানের পরীক্ষাগুলো ফেব্রুয়ারির ৩ তারিখ থেকে শুরু হতে যাচ্ছে। আমাদের সকল বোর্ড এজন্য সর্বোচ্চ প্রস্তুতি নিয়েছে। এবার অত্যন্ত সুষ্ঠুভাবে, সুন্দর পরিবেশে, নকল ও প্রশ্ন ফাঁসমুক্ত পরিবেশে পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হবে।’

চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ে ছাত্রলীগের সংঘর্ষ ও গ্রুপিং রাজনীতি নিয়ে সাংবাদিকদের প্রশ্নে ডা. দীপু মনি বলেন, ‘বিশ্ববিদ্যালয়ে অনেক সময় ছাত্র আন্দোলন থাকে। কিন্তু কোনো বিশ্ববিদ্যালয়ে যদি কারও দাবি থাকে বঙ্গবন্ধু কন্যা শেখ হাসিনার সরকারের সময়ে তা নিয়ে আন্দোলনের প্রয়োজন নেই।’

‘শেখ হাসিনার সরকারের সময়ে দাবি করতে হয় না। যা প্রয়োজন তা যদি প্রধানমন্ত্রী শুধু অবহিত হন, তাহলেই সে যৌক্তিক দাবি তিনি পূরণ করেন। অতএব কারও কোনো ধরনের আন্দোলনে যাওয়ার প্রয়োজন নেই।’

চবিতে ছাত্রলীগের গ্রুপিং সমস্যাটি স্থানীয় নেতাদের কারণে হচ্ছে ইঙ্গিত করে ডা. দীপু মনি বলেন, ‘বিভিন্ন রাজনৈতিক দলে বিভিন্ন ইস্যূ নিয়ে কারও কারও মধ্যে সমস্যা থাকতে পারে। সেগুলো স্থানীয় সমস্যা। স্থানীয় সমস্যা স্থানীয় পর্যায়েই সমাধান করতে হবে।’

বাংলাদেশ সময়: ১২৩০ ঘণ্টা, জানুয়ারি ২৯, ২০২০
এমএম/এমআর/টিসি

ক্লিক করুন, আরো পড়ুন :   চট্টগ্রাম
        ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন  

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

Alexa
cache_14 2020-01-29 12:35:54