bangla news

বন্দরে ধরা পড়লো সিগারেটের বড় চালান

​সিনিয়র করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০২০-০১-২৬ ৭:১৬:৩৯ পিএম
বন্দরে সিগারেটের চালান আটক করেছেন কাস্টমস গোয়েন্দারা

বন্দরে সিগারেটের চালান আটক করেছেন কাস্টমস গোয়েন্দারা

চট্টগ্রাম: সকালে বর্ণাঢ্য শোভাযাত্রা, সন্ধ্যায় সেমিনার ও মেজবান। পুরো কাস্টম হাউস এলাকায় সাজ সাজ রব। দিনভর ব্যস্ত কাস্টম হাউসের কর্মকর্তারা। এ সুযোগে ১ কোটি ৪০ লাখ ২০ হাজার শলাকার সিগারেটের বড় একটি চালান খালাসের চেষ্টা করছিলো সিঅ্যান্ডএফ এজেন্ট খায়ের ব্রাদার্স। কিন্তু শেষরক্ষা হলো না।

রোববার (২৬ জানুয়ারি) বিকেলে চট্টগ্রাম বন্দরের নিউমুরিং কনটেইনার টার্মিনালে (এনসিটি) বিদেশি সিগারেটের কনটেইনারটি আটক করে কাস্টমস গোয়েন্দা দল (এআইআর)। এ ঘটনায় চাঞ্চল্যের সৃষ্টি হয়েছে বন্দর ও কাস্টম কর্মকর্তা-কর্মচারীদের মধ্যে।

বন্দর ও কাস্টম হাউস সূত্রে জানা গেছে, চট্টগ্রামের আমদানিকারক ‘বাংলা ভিনা এন্টারপ্রাইজ’ ঘোষণা দিয়েছিলো মাশরুম আমদানি করা হয়েছে। কিন্তু সেখানে পাওয়া যায় বিদেশি সিগারেট।

চট্টগ্রাম কাস্টম হাউসের অডিট ইনভেস্টিগেশন অ্যান্ড রিসার্চ ( এআইআর) বিভাগের সহকারী কমিশনার নুর এ হাসনা সানজিদা অনুসুয়া বাংলানিউজকে জানান, গোপন তথ্যের ভিত্তিতে চালানটি লক করা হয়েছিলো যাতে কেউ খালাস নিতে না পারে। কিন্তু সেই চালান একটি সিঅ্যান্ডএফ কীভাবে চট্টগ্রাম বন্দর থেকে ইনডেন্ট বা ছাড়ের অনুমতি নিয়ে খালাসের চেষ্টা করলো সেটি খতিয়ে দেখা হচ্ছে। চালানটি আটকের পর সংশ্লিষ্ট সিঅ্যান্ডএফ কর্মকর্তা পালিয়েছে।

সূত্র জানায়, জরুরিভিত্তিতে কনটেইনারটি খুলে দেখা যায় সেখানে সব বিদেশি ব্রান্ডের সিগারেট। মাশরুম ঘোষণার আড়ালে বন্দর থেকে বের করার চেষ্টা করেছিল আমদানিকারক। ৪০ ফুট দীর্ঘ কনটেইনারটি খুলে কায়িক পরীক্ষা বা গণনা করা হচ্ছে।

বাংলা ভিনা এন্টারপ্রাইজ সংযুক্ত আরব আমিরাত থেকে এক কনটেইনার শুকনো মাশরুম আমদানির জন্য ব্যাংক এশিয়া থেকে ঋণপত্র খুলে। ৭৮১ কার্টনে এ মাশরুম আমদানির জন্য ৭৩৩৫ মার্কিন ডলারের ঋণপত্র খোলা হয়। চালানটি মালয়েশিয়ার পোর্ট কেলাং থেকে চট্টগ্রাম বন্দরে পৌঁছে। গত ৫ জানুয়ারি চালানটির বিল অব এন্ট্রি জমা দিয়ে ৫ লাখ ৮০ হাজার টাকার শুল্ক পরিশোধ করে আমদানিকারকের নিয়োজিত সিঅ্যান্ডএফ এজেন্ট।

বাংলাদেশ সময়:  ১৯০৮ ঘণ্টা, জানুয়ারি ২৬, ২০২০
এআর/টিসি

ক্লিক করুন, আরো পড়ুন :   এনবিআর চট্টগ্রাম বন্দর
        ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন  

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

Alexa
cache_14 2020-01-26 19:16:39