bangla news

পিকনিকে যেতে বাধা, স্কুলছাত্রীর ‘আত্মহত্যা’

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০২০-০১-২৪ ৯:২৭:১৪ পিএম
প্রতীকী ছবি

প্রতীকী ছবি

চট্টগ্রাম: বিদ্যালয়ের পিকনিকে যেতে বাধা দেওয়ায় মায়ের সঙ্গে অভিমান করে বাংলাদেশ মহিলা সমিতি (বাওয়া) বালিকা উচ্চ বিদ্যালয় ও কলেজের এক ছাত্রী ‘আত্মহত্যা’ করেছে।

শুক্রবার (২৪ জানুয়ারি) ভোরে নগরের কোতোয়ালী থানার দেওয়ানবাজার রুমঘাটা এলাকায় এ ঘটনা ঘটে।

বাসার ড্রইং রুমে ফ্যানের সঙ্গে ওড়না পেঁচিয়ে ঝুলে ওই ছাত্রী ‘আত্মহত্যা’ করে বলে তার পরিবার পুলিশকে জানিয়েছে।

‘আত্মহত্যা’ করা ওই ছাত্রীর নাম মাইশা আলম (১৪)। তিনি বাংলাদেশ মহিলা সমিতি বালিকা উচ্চ বিদ্যালয় ও কলেজের দিবা শাখা দশম শ্রেণির বিজ্ঞান বিভাগের ছাত্রী।

মাইশা আলম সাতকানিয়া উপজেলার সমাদরপাড়া এলাকার নুরুল আলমের মেয়ে। তিনি পরিবারের সঙ্গে কোতোয়ালী থানার দেওয়ানবাজার রুমঘাটা এলাকায় থাকতেন।

পরিবারের সদস্যদের বরাত দিয়ে চট্টগ্রাম মেট্রোপলিটন পুলিশের (সিএমপি) উপ-কমিশনার (দক্ষিণ) এসএম মেহেদী হাসান বাংলানিউজকে বলেন, মাইশা আলম নামে এক শিক্ষার্থী আত্মহত্যা করেছে বলে জানতে পেরেছি। এ ঘটনায় একটি অপমৃত্যু মামলা হয়েছে। মরদেহ ময়নাতদন্ত শেষে পরিবারের কাছে হস্তান্ত করা হয়েছে।

কোতোয়ালী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোহম্মদ মহসীন বাংলানিউজকে বলেন, বাংলাদেশ মহিলা সমিতি বালিকা উচ্চ বিদ্যালয় থেকে পিকনিকে যাওয়ার কথা রয়েছে। পিকনিকে যাওয়ার জন্য মায়ের কাছে অনুমতি চেয়েছিল মাইশা আলম। পিকনিকে যেতে বাধা দেওয়ায় মায়ের সঙ্গে অভিমান করে মাইশা আত্মহত্যা করেছে বলে পরিবারের সদস্যরা জানিয়েছেন।

মাইশার বাবা নুরুল আলম পুলিশকে জানান, বৃহস্পতিবার রাত ১১টার দিকে সবাই ঘুমিয়ে পড়েন। রাত দেড়টার দিকে ঘুম ভাঙলে তিনি মাইশাকে বাসার ড্রইং রুমে ফ্যানের সঙ্গে ওড়না পেঁচিয়ে ঝুলন্ত অবস্থায় দেখতে পান। পরে তারা মাইশাকে চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

বাংলাদেশ মহিলা সমিতি বালিকা উচ্চ বিদ্যালয় সূত্রে জানা গেছে, ২৬ জানুয়ারি বিদ্যালয়ের দিবা শাখার পিকনিকে যাওয়ার কথা ছিল। পরে তা পিছিয়ে ১ ফেব্রুয়ারি পিকনিকের সম্ভাব্য তারিখ নির্ধারণ করা হয়েছে। মাইশার মৃত্যুর খবরে এখন পিকনিক হবে কী না সে বিষয়ে পরে সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে।

বাংলাদেশ সময়: ২১১৭ ঘণ্টা, জানুয়ারি ২৪, ২০২০
এসকে/টিসি

        ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন  

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

Alexa
cache_14 2020-01-24 21:27:14