bangla news

ক্যাডেটদের সমুদ্রগামী জাহাজে চাকরির পথ সুগম হয়েছে

​সিনিয়র করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০২০-০১-২২ ৭:১৬:৫১ পিএম
প্যারেড পরিদর্শন করেন মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ প্রতিমন্ত্রী।

প্যারেড পরিদর্শন করেন মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ প্রতিমন্ত্রী।

চট্টগ্রাম: মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ প্রতিমন্ত্রী মো. আশরাফ আলী খান খসরু বলেছেন, সরকারের জনমুখী চিন্তা-ভাবনার কারণেই নৌপরিবহন অধিদপ্তর কর্তৃক একাডেমি ক্যাডেটদের কনটিনিউয়াস ডিসচার্জ সার্টিফিকেট (সিডিসি) ইস্যু করা হচ্ছে। ফলে সমুদ্রগামী জাহাজে চাকরির পথ সুগম হয়েছে।

বুধবার (২২ জানুয়ারি) চট্টগ্রামের মেরিন ফিশারিজ একাডেমির ৩৮তম ব্যাচের ক্যাডেটদের গ্র্যাজুয়েশন প্যারেড অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।

তিনি বলেন, একাডেমির ২৭-৩৭তম ব্যাচ পর্যন্ত ৪৪০ জন ক্যাডেটের অনুকূলে সিডিসি ইস্যু করা হয়েছে। তাদের মধ্যে শতকরা ৮৫ ভাগ ক্যাডেট দেশি-বিদেশি বাণিজ্যিক জাহাজে চাকরিতে যোগদান করেছেন। এ ছাড়া একাডেমি ক্যাডেটরা আইএসএসবি পরীক্ষার মাধ্যমে নৌবাহিনীতে সরাসরি চাকরির সুযোগ পাচ্ছে।

সমুদ্রগামী মৎস্য জাহাজের দক্ষ জনশক্তি তৈরির লক্ষ্যে ১৯৭৩ সালে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের সুদূর প্রসারী চিন্তার ফসল মেরিন ফিশারিজ একাডেমি। তার কন্যা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা একাডেমি ক্যাডেটদের চাকরিসহ নানা সুযোগ সুবিধা বৃদ্ধি করে একাডেমিকে আরও আধুনিক ও বহুমুখী করে তুলেছেন। এরই অংশ হিসেবে ক্যাডেটদের জন্য বৈদেশিক ভাষা শিখন বিষয়ে পদক্ষেপ নেওয়া হয়েছে। ইতিমধ্যে একাডেমিতে নিজস্ব ব্যবস্থাপনায় ফ্রেন্স ও চাইনিজ ভাষার প্রশিক্ষণ শুরু হয়েছে। ক্যাডেটরা যাতে অন্যান্য ভাষায়ও দক্ষতা অর্জন করতে পারে সেজন্য ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

বেস্ট অলরাউন্ডার স্বর্ণপদক তুলে দেন মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ প্রতিমন্ত্রীপ্রতিমন্ত্রী বলেন, মেরিন ফিশারিজ একাডেমিকে আন্তর্জাতিক মানের সমুদ্র সম্পদভিত্তিক গবেষণা প্রতিষ্ঠান রূপে গড়ে তুলতে ‘মেরিন ফিশারিজ একাডেমির প্রাতিষ্ঠানিক উন্নয়ন ও জোরদারকরণ (দ্বিতীয় পর্যায়)’ প্রকল্পের আওতায় ৫০ কোটি টাকার উন্নয়ন প্রকল্প বাস্তবায়িত হচ্ছে। এ ছাড়া ক্যাডেটদের প্রশিক্ষণের মান আরও উন্নয়নের জন্য কম্পিউটার বেইজড অত্যাধুনিক সিমুলেটর সংগ্রহের জন্য নতুন প্রকল্প হাতে নেওয়া হচ্ছে।

ব্লু ইকোনমির ওপর গুরুত্বারোপ করে মৎস্য প্রতিমন্ত্রী বলেন, টেকসই উন্নয়নের জন্য সাগর, মহাসাগর ও সামুদ্রিক সম্পদ সংরক্ষণ ও টেকসই ব্যবহারের লক্ষ্য অর্জনে সরকার একাধিক পদক্ষেপ গ্রহণ করেছে। সরকারের এ পদক্ষেপ বাস্তবায়নে ক্যাডেটদের দায়িত্ব পালন করতে হবে। এছাড়া মৎস্য সম্পদ আহরণ, সংরক্ষণ, বাজারজাতকরণ এবং জীববৈচিত্র্য সংরক্ষণ ও পরিবেশদূষণ রোধে ক্যাডেটদের অগ্রণী ভূমিকা পালন করতে হবে। তবেই সমুদ্র সম্পদ আহরণ আরও বাড়বে এবং অর্থনীতি শক্তিশালী হবে।

অনুষ্ঠানে অন্যান্যের মধ্যে একাডেমির অধ্যক্ষ ক্যাপ্টেন মাসুক হাসান আহমেদ উপস্থিত ছিলেন।

এবারের গ্র্যাজুয়েশনে নটিক্যাল বিভাগ, মেরিন ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগ এবং মেরিন ফিশারিজ বিভাগ থেকে ৫ জন নারী ক্যাডেটসহ  ৫৮ জন ক্যাডেট গ্র্যাজুয়েশন সমাপ্ত করেছেন। পুরুষ ক্যাডেটদের মধ্য থেকে রাফিউজ্জামান রাফি এবং নারী ক্যাডেটদের মধ্যে সাইদা সুলতানা বেস্ট অলরাউন্ড স্বর্ণপদক অর্জন করেন।

বাংলাদেশ সময়: ১৯১০ ঘণ্টা, জানুয়ারি ২২, ২০২০
এআর/টিসি

        ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন  

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

Alexa
cache_14 2020-01-22 19:16:51