bangla news

ফুলকির শিশু-কিশোর সাংস্কৃতিক উৎসব শুরু বৃহস্পতিবার

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০২০-০১-২১ ৯:০৯:৪২ পিএম
বক্তব্য দেন ফুলকি স্কুলের অধ্যক্ষ শীলা মোমেন।

বক্তব্য দেন ফুলকি স্কুলের অধ্যক্ষ শীলা মোমেন।

চট্টগ্রাম: চট্টগ্রামের ব্যতিক্রমী শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান ‘ফুলকি’ তিনদিনের ‘শিশু-কিশোর সাংস্কৃতিক উৎসবের’ আয়োজন করেছে। বৃহস্পতিবার (২৩ জানুয়ারি) থেকে শুরু হতে যাওয়া শিশু-কিশোরদের সাংস্কৃতিক এ উৎসব চলবে শনিবার (২৫ জানুয়ারি) পর্যন্ত।

ঈশ্বরচন্দ্র বিদ্যাসাগরের জন্মের দ্বিশতবছর এবং স্বাধীনতার স্থপতি বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের শততম জন্মবার্ষিকী উপলক্ষে উৎসবের দু’দিন এ দুজন মনীষীর নামে উৎসর্গ করা হয়েছে।

মঙ্গলবার (২১ জানুয়ারি) বিকেলে সংবাদ সম্মেলনে ফুলকি স্কুলের অধ্যক্ষ শীলা মোমেন এসব তথ্য জানান। এ সময় উপস্থিত ছিলেন একুশে পদকপ্রাপ্ত সাংবাদিক, সাহিত্যিক ও শিক্ষাবিদ আবুল মোমেন।

সংবাদ সম্মেলনে জানানো হয়, বর্তমানে প্রযুক্তির অপার সম্ভাবনার মধ্যেও মানবিক সংকটের বীজ রয়েছে। সামগ্রিকভাবে সামাজিক ও নৈতিক অবক্ষয়ের ফলে শিশু-কিশোরদের বিপথগামী হওয়ার যে সংকট তৈরি হয়েছে, তা থেকে মুক্তি পেতে ফুলকির দীর্ঘ ৪৪ বছরের অভিজ্ঞতা কাজে লাগানো যেতে পারে।

শুধু শিক্ষা নয় শিশুর মানসিক বিকাশে সাংস্কৃতিক চর্চাও করে আসছে ফুলকি। এরই অংশ হিসেবে ২০১৮ সালের পর দ্বিতীয় বারের মতো সাংস্কৃতিক উৎসব আয়োজন করতে যাচ্ছে ফুলকি।

সংবাদ সম্মেলনে আরও জানানো হয়, উৎসবের শেষের দু’দিন বিদ্যাসাগর এবং বঙ্গবন্ধুকে উৎসর্গ করা হয়েছে। এছাড়া ৫ জন শিশু সাহিত্যিকের উপস্থিতিতে করা হবে উৎসবের উদ্বোধন।

তিন দিনের এ আয়োজনে থাকছে সঙ্গীত, নৃত্য, পুঁথি পাঠ, জাদু প্রদর্শনী ও ছবি আঁকা। এছাড়াও থাকছে বঙ্গবন্ধু ও বিদ্যাসাগরের জীবন ও কর্মের ওপর চিত্র প্রদর্শনী।

আবুল মোমেন বলেন, স্বাধীনতা পরবর্তী সময়ে সবার জন্য বিনামূল্যে শিক্ষার বিষয়টি ঠিক ছিল। কিন্তু বর্তমানে মানুষের অর্থনৈতিক উন্নতি হয়েছে, মানুষের আয় বেড়েছে। এখন বড় লোকের ছেলে মেয়েরাও যদি বিনামূল্যে বই পায় তাহলে আমাদের যে লক্ষ্য আছে তা কি করে পূরণ হবে?

তিনি আরও বলেন, অভিভাবকরা সন্তানদের টিউশনির পেছনে হাজার হাজার টাকা খরচ করছেন। এ টাকা দিয়ে মাঠ তৈরি করে দিন। সপ্তাহে দুই দিন মাঠে যেতে পারলেও সন্তানদের মানসিক বিকাশ ঘটবে।

‘তাছাড়া প্রত্যেক উপজেলায় লাইব্রেরি এবং সায়েন্স ল্যাব করে দেয়া হলে শিশুদের বিকাশ ঘটবে। শুধু গান নাচ করতে পারে এমন কিছু না করে আমাদের উচিত সব শিশু যাতে অংশগ্রহণ করতে পারে এমন কিছু করা।’

সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন ফুলকি ট্রাস্টি বোর্ডের সম্পাদক ওমর কায়সার, ফুলকির নির্বাহী সচিব মুবিদুর রহমান সুজাত, সহকারী অধ্যক্ষ সৈয়দা খুরশীদা বেগম, রত্না ধর, উপাধ্যক্ষ জিনাত ইসলাম।

বাংলাদেশ সময়: ২১০৫ ঘণ্টা, জানুয়ারি ২১, ২০২০
এমএম/টিসি

ক্লিক করুন, আরো পড়ুন :   চট্টগ্রাম
        ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন  

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

Alexa
cache_14 2020-01-21 21:09:42