bangla news

দাম বেড়েছে ভোগ্যপণ্যের

নিউজরুম এডিটর | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০২০-০১-১৭ ১১:৪৬:৪২ এএম
ফাইল ফটো

ফাইল ফটো

চট্টগ্রাম: পাইকারী বাজারে ভোগ্যপণ্যের দাম বেড়ে যাওয়ায় এর প্রভাব পড়েছে খুচরা বাজারে। গত সপ্তাহের তুলনায় এ সপ্তাহে চাল, ডাল, সয়াবিন তেল, চিনি, আদা, রসুন সহ বেশ কিছু পণ্যের দাম ১০-১৫ টাকা বেড়ে গেছে।

শুক্রবার (১৭ জানুয়ারি) নগরের কয়েকটি বাজার ঘুরে দেখা গেছে, প্রতি কেজি মিনিকেট চাল ৪৮-৫৪ টাকা, মাঝারি বিআর-২৮ চাল ৩৮-৪৪ টাকা, মোটা চাল ৩২-৩৫ টাকা, নাজিরশাইল ৪৮-৬০ টাকা দরে বিক্রি হচ্ছে। অথচ গত সপ্তাহে মিনিকেট চাল ৪৫-৪৮ টাকা, মাঝারি বিআর-২৮ চাল ৩৫-৪০ টাকায় বিক্রি হয়।

খোলা সয়াবিন তেল প্রতি লিটার ৯৫-১০০ টাকায় বিক্রি হচ্ছে, যা গত সপ্তাহে ছিল ৯০ টাকা। পাম তেল প্রতি লিটার বিক্রি হচ্ছে ৮০-৮৫ টাকা। চিনি কেজিপ্রতি ৫-৭ টাকা বেড়ে এখন বিক্রি হচ্ছে ৬৫-৭২ টাকা। মসুর ডাল ১০ টাকা বেড়ে ৬৫-৭০ টাকা দরে বিক্রি হচ্ছে। এছাড়া ছোট পেঁয়াজ ১০০ টাকা, বড় পেঁয়াজ ৮০ টাকা, চীনা রসুন ১৫০ টাকা, দেশি রসুন ২০০ টাকা, আদা ১২০-১৫০ টাকা দরে বিক্রি করা হচ্ছে।

ফাইল ফটোএদিকে বাজারে সবজির দাম কমেছে। রেয়াজউদ্দিন বাজারে ফুলকপি ৩০-৪০ টাকা, বাঁধাকপি ৪০ টাকা, মুলা ৩৫-৪০ টাকা, শিম ৭৫-৮০ টাকা, ঝিঙা ১০০ টাকা, শসা ৯০-১০০ টাকা, বরবটি ৭০ টাকা, ঢেঁড়স ৭৫-৮০ টাকা, তিতকরলা ৮০ টাকা, বেগুন ৬০ টাকা, মিষ্টি কুমড়া ৪৫ টাকা, টমেটো ১০০ টাকা কেজি দরে বিক্রি হচ্ছে। 

মাছের বাজারে প্রতিকেজি মাঝারি আকারের চিংড়ি ৭০০-৯০০ টাকা, কোরাল ৫৫০-৬০০ টাকা, রুই ২২০-২৫০, কাতলা ২৩০-২৮০ টাকা, তেলাপিয়া ১৫০-১৮০ টাকা, লইট্টা ১২০-১৪০ টাকা, রূপচাঁদা ৭০০-৮০০ টাকা, কই ১৮০ টাকা, পাঙ্গাস ১৪০-১৬০ টাকা দামে বিক্রি হচ্ছে।

এছাড়া ফার্মের ডিম ১০৫ টাকা, ব্রয়লার মুরগি ১২০ টাকা, সোনালি মুরগি ২৪০-২৫০ টাকা, দেশি মুরগি ৩৮০-৪০০ টাকা কেজিতে বিক্রি হচ্ছে। গরুর মাংস (রান) ৬৫০ টাকা, খাসির মাংস বিক্রি হচ্ছে ৭৫০ টাকায়।

বাংলাদেশ সময়: ১১৩৫ ঘণ্টা, জানুয়ারি ১৭, ২০২০
এসি/টিসি

ক্লিক করুন, আরো পড়ুন :   চট্টগ্রাম
        ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন  

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

Alexa
cache_14 2020-01-17 11:46:42