bangla news

চট্টগ্রামে বিজয় স্তম্ভ ও মুক্তিযুদ্ধ জাদুঘর হবে

​সিনিয়র করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০১৯-১২-১১ ১০:০১:১৭ পিএম
বক্তব্য দেন মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক মন্ত্রী  আ ক ম মোজাম্মেল হক

বক্তব্য দেন মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক মন্ত্রী  আ ক ম মোজাম্মেল হক

চট্টগ্রাম: স্থানীয় মুক্তিযোদ্ধাদের সঙ্গে পরামর্শ করে চট্টগ্রামে বিজয় স্তম্ভ ও মুক্তিযুদ্ধ জাদুঘর প্রতিষ্ঠা করা হবে বলে জানিয়েছেন মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক মন্ত্রী  আ ক ম মোজাম্মেল হক।

বুধবার (১১ ডিসেম্বর) চট্টগ্রামে মুক্তিযুদ্ধের বিজয় মেলা পরিষদের বিজয়মঞ্চে স্মৃতিচারণমূলক অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এ কথা জানান।

মন্ত্রী বলেন, ‘জয় বাংলা’ কখনো কোনো দলীয় বা রাজনৈতিক স্লোগান ছিল না। এটা ছিল মুক্তিযোদ্ধাদের অনুপ্রাণিত হওয়ার মন্ত্র। দেশকে হানাদারমুক্ত করার মন্ত্র। একে জাতীয় স্লোগান হিসেবে ব্যবহারের অভিমত সম্প্রতি হাইকোর্ট দিয়েছেন। জাতীয়ভাবে জয় বাংলা চর্চা করার প্রয়োজন ছিল। তা করতে আমরা ব্যর্থ হয়েছি।

মন্ত্রী বলেন, মুজিববর্ষ ও স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তী উদযাপন এ দু’টো জাতীয় অনুষ্ঠান মিলে আগামী দুই বছর মুক্তিযোদ্ধাদের জন্য গুরুত্বপূর্ণ সময়। এ সময় মুক্তিযোদ্ধারা মুক্তিযুদ্ধের ইতিহাস আগামী প্রজন্মের কাছে তুলে ধরবেন। মুক্তিযুদ্ধের চেতনা সর্বত্র ছড়িয়ে দেবেন।

তিনি বলেন, ১৯৭১ ও ৭৫ পরবর্তী ঘটনা আমরা ভুলতে বসেছি। মুক্তিযুদ্ধের চেতনা হারিয়ে ফেলছি। এভাবে চলতে পারে না। হানাদারদের দোসর রাজাকার আলবদরদের ভুলে যাওয়া যাবে না। তাহলে মুক্তিযুদ্ধ অসম্পূর্ণ থেকে যাবে।

মন্ত্রী বলেন, এতিমের টাকা চুরি করে একজন জেল খাটছে। জেল খাটা বিষয়ে তাদের নেতারা বঙ্গবন্ধুর সঙ্গে তুলনা করছে যা অত্যন্ত লজ্জার। কেননা, বঙ্গবন্ধু বাংলাদেশের স্বাধীনতার জন্য, মানুষের অধিকার আদায়ের জন্য আন্দোলন করে জেল খেটেছেন। এ দুই জেল খাটার মধ্যে কোনো তুলনা চলে না।

বীর মুক্তিযোদ্ধা এমএ মনসুরের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে অন্যান্যের মধ্যে কেন্দ্রীয় শ্রমিক লীগ সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা মোল্যা আবুল কালাম আজাদ, সাধারণ সম্পাদক আজম খসরু, আওয়ামী লীগের উপপ্রচার সম্পাদক আমিনুল ইসলাম, নগর আওয়ামী লীগের শ্রম সম্পাদক আবুল আহাদ, রেলওয়ে শ্রমিক লীগ, চট্টগ্রামের সভাপতি শেখ লোকমান হোসেন, শ্রমিকনেতা মাহবুবুল আলম এটলী আলোচনা করেন।

বাংলাদেশ সময়: ২২০০ ঘণ্টা, ডিসেম্বর ১১, ২০১৯
এআর/টিসি

ক্লিক করুন, আরো পড়ুন :   চট্টগ্রাম মুক্তিযুদ্ধ
        ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন  

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

Alexa
cache_14 2019-12-11 22:01:17