ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ৭ কার্তিক ১৪২৭, ২২ অক্টোবর ২০২০, ০৪ রবিউল আউয়াল ১৪৪২

চট্টগ্রাম প্রতিদিন

প্রিমিয়ার ইউনিভার্সিটির গণিত বিভাগে মাস্টার্স প্রোগ্রাম

নিউজ ডেস্ক | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২১১৪ ঘণ্টা, ডিসেম্বর ১১, ২০১৯
প্রিমিয়ার ইউনিভার্সিটির গণিত বিভাগে মাস্টার্স প্রোগ্রাম অনুষ্ঠানে প্রফেসর ড. অনুপম সেন ও সংশ্লিষ্টরা।

চট্টগ্রাম: প্রিমিয়ার ইউনিভার্সিটিতেই বেসিক সায়েন্স বা মৌলিক বিজ্ঞানের চর্চা হিসেবে গণিত বিভাগ (অনার্স) খোলা হয়। এবার এই বিভাগে চালু হলো মাস্টার্স প্রোগ্রাম।

এ উপলক্ষে প্রবর্তক মোড় প্রিমিয়ার ইউনিভার্সিটি অডিটোরিয়ামে বুধবার (১১ ডিসেম্বর) সকাল ১১টায় ‘মাস্টার ইন সায়েন্স ইন মেথমেটিক্স প্রোগ্রাম লাঞ্চিং সিরেমনি’ শীর্ষক অনুষ্ঠান আয়োজন করা হয়।

এই অনুষ্ঠানের মাধ্যমে গণিত বিভাগের (অনার্স) ১ম ও ২য় ব্যাচের বরণ এবং ৮ম ও ৯ম ব্যাচের বিদায় অনুষ্ঠানও সম্পন্ন করা হয়।

অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন শিক্ষায় একুশে পদকপ্রাপ্ত প্রিমিয়ার ইউনিভার্সিটির উপাচার্য প্রফেসর ড. অনুপম সেন। বিশেষ অতিথি ছিলেন ইউনিভার্সিটির ট্রেজারার প্রফেসর এ কে এম তফজল হক এবং বিজ্ঞান ও প্রকৌশল অনুষদের ডিন প্রফেসর ড. তৌফিক সাঈদ। সভাপতিত্ব করেন গণিত বিভাগের চেয়ারম্যান মোহাম্মদ ইফতেখার মনির।

প্রধান অতিথি ড. অনুপম সেন বলেন, বিশ্বে যত বিষয় রয়েছে গণিতের স্থান তার মধ্যে অনেক ওপরে। এটি বেসিক সায়েন্সের মধ্যে অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ বিষয় হিসেবে বিবেচিত। বিশ শতকে বিজ্ঞানীরা যা যা আবিষ্কার করেছেন তার সবকিছুর ভিত্তি হলো এই গণিত। এসব আবিষ্কারের কল্যাণে মানুষ চাঁদে যেতে সক্ষম হয়েছে, বিভিন্ন গ্রহ-উপগ্রহ-নক্ষত্রের সন্ধান পেয়েছে, আরো কতোকিছু করছে! এসব আবিষ্কারের ভিত্তি গণিত হওয়ায় বোঝা যায়, গণিত হলো বিজ্ঞানের জননী।

তিনি বলেন, মানবতাবাদী রাজনৈতিক নেতা প্রয়াত এবিএম মহিউদ্দিন চৌধুরী কর্তৃক প্রিমিয়ার ইউনিভার্সিটি প্রতিষ্ঠার সময় বেসিক সায়েন্সের সবগুলো বিষয় যেমন: গণিত, কেমিস্ট্রি, পদার্থবিদ্যা প্রভৃতি বিভাগ খোলার কথা ভাবা হয়েছিল। এরই ফলস্বরূপ ২০১৫ সালে এই ইউনিভার্সিটিতে গণিত বিভাগ খোলা হয়।

ট্রেজারার প্রফেসর এ কে এম তফজল হক বলেন, গণিত ছাড়া বিজ্ঞান অচল। সুতরাং প্রিমিয়ার ইউনিভার্সিটির গণিত বিভাগের গুরুত্ব অপরিসীম। আমার বিশ্বাস, এই বিভাগ একদিন গর্বের বিভাগ হবে। এই বিভাগের অনার্স ও নতুন চালু হওয়া মাস্টার্স প্রোগ্রামের শিক্ষার্থীরা বিভাগের সুনাম ছড়িয়ে দেবে সবখানে।

ডিন প্রফেসর ড. তৌফিক সাঈদ বলেন, ১ম ও ২য় ব্যাচের শিক্ষার্থীদের বিদায়ে আমরা দুঃখ পেলেও ৮ম ও ৯ম ব্যাচকে পেয়ে আনন্দিত। আমরা তাদের সাদরে বরণ করছি। আশা করি, তারা ভালমতো পড়াশুনা করে ভাল ফলাফল অর্জনের মাধ্যমে নিজেদের ভবিষ্যত জীবন উজ্জ্বল করবে।

গণিত বিভাগের শিক্ষার্থী শিমুল রুদ্র ও সুমাইয়া ইয়াসমিনের সঞ্চালনায় অনুষ্ঠানে গণিতের ইতিহাস, গণিতের বিবর্তন, বিশ্ববিখ্যাত গণিতবিদ সাইমন স্টেভিন, জন নেপিয়ের, আইজাক বারো, আইজাক নিউটন, পিয়েরে দ্য ফারমেট, পিয়েরে সাইমন লাপ্লেস প্রমুখের জীবনী এবং দৈনন্দিন জীবনে গণিত সম্পর্কে বর্ণনা দেন বিভাগের শিক্ষক রাজিব কর্মকার। এরপর মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক ১টি, গণিত বিভাগের কার্যক্রম নিয়ে ১টি এবং গণিত বিভাগে মাস্টার্স প্রোগ্রাম চালুর উদ্দেশ্য ও লক্ষ্য নিয়ে ১টি ডকুমেন্টারি প্রদর্শন করা হয়। অনুষ্ঠানে গণিত বিভাগের শিক্ষক ও শিক্ষার্থীরা উপস্থিত ছিলেন।

বাংলাদেশ সময়: ১৬১০ ঘণ্টা, ডিসেম্বর ১১, ২০১৯
এসি/টিসি

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa