bangla news

এস এ গেমসে চবি’র তিন শিক্ষার্থীর রৌপ্য জয়

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০১৯-১২-০৮ ৪:৩৬:৫৮ পিএম
চবি উপাচার্যের সঙ্গে সাক্ষাৎ করেন রৌপ্যজয়ী তিন শিক্ষার্থী।

চবি উপাচার্যের সঙ্গে সাক্ষাৎ করেন রৌপ্যজয়ী তিন শিক্ষার্থী।

চট্টগ্রাম: নেপালের কাঠমান্ডু-পোখারায় অনুষ্ঠিত ১৩তম সাউথ এশিয়ান গেমস (এস এ গেমস) এর ‘খো খো’ ইভেন্টে বাংলাদেশ দল অংশগ্রহণ করে রৌপ্য পদক পেয়েছে।

এই দলে ছিলেন চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের (চবি) শারীরিক শিক্ষা ও ক্রীড়া বিজ্ঞান বিভাগের তিনজন শিক্ষার্থী। রোববার (৮ ডিসেম্বর) দুপুর ২টায় বিজয়ী তিন শিক্ষার্থী চবি উপাচার্য অধ্যাপক ড. শিরীণ আখতারের সঙ্গে সাক্ষাৎ করেন।

এর আগে গত ২৯ নভেম্বর নেপালের উদ্দেশ্যে দেশ ত্যাগ করেন তারা। ভারতের জাতীয় খেলা ‘খো খো’- তে দ্বিতীয় স্থানে থেকে রৌপ্য অর্জন করে তারা দেশে ফিরেন ৬ ডিসেম্বর।

১৫ সদস্যের এই দলে ছিলেন চবি’র শারীরিক শিক্ষা ও ক্রীড়া বিজ্ঞান বিভাগের ২০১৫-১৬ সেশনের শিক্ষার্থী মিলটন বম, সুনীল ত্রিপুরা ও ১ম বর্ষের শিক্ষার্থী লালরিনকম বম। বিশ্ববিদ্যালয়ে এলে তাদের ফুল দিয়ে বরণ করে নেওয়া হয় ।

সুনীল ত্রিপুরা বাংলানিউজকে বলেন, ক্রীড়াঙ্গন নিয়ে অনেক স্বপ্ন দেখি। ২০১৬ সাল থেকে ‘খো খো’ খেলায় বাংলাদেশ জাতীয় দলে খেলছি আমি। গত ৫ মাসের ক্যাম্প শেষে এস এ গেমসের জন্য ১৫ সদস্যের দল ঘোষণা করা হয়। এতে চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয় থেকে আমরা তিনজন সুযোগ পেয়েছিলাম। নেপালে গিয়ে প্রথম দিকে আবহাওয়ার সঙ্গে মানিয়ে নিতে কিছুটা কষ্ট হয়েছে। তবে শেষ পর্যন্ত আমরা ফাইনাল খেলেছি। ভারতের সঙ্গে ফাইনাল খেলা অনুষ্ঠিত হয়। ভারত স্বর্ণপদক জিতেছে। ২০২১ সালে অনুষ্ঠিতব্য এশিয়ান গেমসেও খেলার স্বপ্ন দেখছি। দেশের জন্য স্বর্ণপদক আনতে চাই আমরা।

রৌপ্যজয়ী লালরিনকম বম বলেন, আমি প্রথমবারের মতো এই খেলায় অংশগ্রহণ করে এস এ গেমসের জন্য নির্বাচিত হয়েছি। ৫ মাসের ক্যাম্পে অনেক পরিশ্রম হয়েছে। নিজের স্বপ্নও পূরণ হয়েছে। বাংলাদেশের পাশাপাশি নিজের বিশ্ববিদ্যালয়ের নামটাও উজ্জ্বল করতে পেরে আমি আনন্দিত।

মিলটন বম বলেন, আমাদের লক্ষ্য এখন ২০২১ সালে অনুষ্ঠিতব্য এশিয়ান গেমস। যদিও প্রতিবছর ক্যাম্পের মাধ্যমে বাছাই করে জাতীয় দলে অনেক নতুনদের আগমন ঘটে। তবে পারফরমেন্স ধরে রাখতে পারলে আশাকরি ২০২১ সালের এশিয়া গেমসে অংশগ্রহণ করতে পারবো। দেশের জন্য স্বর্ণপদক জেতার স্বপ্ন আমার।

বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ড. শিরীন আখতার বলেন, বাংলাদেশ দলের হয়ে এস এ গেমসে শিক্ষার্থীদের এই অর্জন বাংলাদেশের জন্য যেমন গৌরবের তেমনি চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের জন্যও অত্যন্ত আনন্দের।

তিনি শিক্ষার্থীদের লেখাপড়ার পাশাপাশি খেলাধুলা, ক্রীড়া, সাংস্কৃতিক চর্চা ও সৃজনশীল কর্মকাণ্ডে অধিকতর অংশগ্রহণ করার মাধ্যমে জাতীয় ও আন্তর্জাতিক পর্যায়ে দেশের সুনাম বৃদ্ধিতে ভূমিকা রাখার আহ্বান জানান।

বাংলাদেশ সময়: ১৬২৮ ঘণ্টা, ডিসেম্বর ০৮, ২০১৯
এসি/টিসি

ক্লিক করুন, আরো পড়ুন :   চট্টগ্রাম চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়
        ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন  

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

Alexa
cache_14 2019-12-08 16:36:58