bangla news

চট্টগ্রাম-৮ আসনে উপ নির্বাচনের প্রস্তুতি

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০১৯-১১-২২ ১২:২০:০২ পিএম
লোগো

লোগো

চট্টগ্রাম: বোয়ালখালী, চান্দগাঁও, পাঁচলাইশ, বায়েজিদ আংশিক এলাকা নিয়ে গঠিত চট্টগ্রাম-৮ সংসদীয় আসনে উপ-নির্বাচনের প্রস্তুতি গ্রহণ করেছে নির্বাচন কমিশন।

নির্বাচন কর্মকর্তারা জানান, চলতি সপ্তাহে তফসিল ঘোষণা করা হবে। আগামী ১৩ জানুয়ারি ভোট গ্রহণের সম্ভাব্য দিন ঠিক করা হয়েছে। প্রথমবারের মতো এই উপ-নির্বাচনে ইভিএম-এ ভোটগ্রহণ করা হবে।

গত ৭ নভেম্বর সংসদ সদস্য মঈন উদ্দিন খান বাদলের মৃত্যুতে আসনটি শূন্য ঘোষণা করে নির্বাচন কমিশন। নির্বাচনী আইনে, শূন্য ঘোষণার তিন মাসের মধ্যে নির্বাচন অনুষ্ঠানের বাধ্যবাধকতা রয়েছে।

জেলা সিনিয়র নির্বাচন কর্মকর্তা মো. মুনীর হোসাইন খান বলেন, জানুয়ারির প্রথম সপ্তাহে ভোটগ্রহণের প্রস্তুতি নেওয়া হচ্ছে। ১৩ জানুয়ারি সম্ভাব্য তারিখ হিসেবে তফসিল ঘোষণা করা হতে পারে। চলতি সপ্তাহের শেষের দিকে নির্বাচনী তফসিল ঘোষণা করা হবে। একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে ব্যবহৃত ভোটকেন্দ্র অনেকটা অপরিবর্তিত থাকতে পারে।

একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে চট্টগ্রাম-৮ সংসদীয় আসনে ভোটকক্ষ ছিল ৮৫০টি। ভোটার সংখ্যা ছিল চার লাখ ৭৫ হাজার ৯৯৬ জন। বোয়ালখালী (শ্রীপুর-খরণদ্বীপ ইউনিয়ন ছাড়া) ও নগরের ৩, ৪, ৫, ৬, ৭ নম্বর ওয়ার্ড নিয়ে এই সংসদীয় আসন। ২০০৮ সাল থেকে তিনবার এই আসনে ‘নৌকা’ প্রতীক নিয়ে জয়লাভ করেছিলেন জাসদের কার্যকরী সভাপতি মঈন উদ্দীন খান বাদল।

এদিকে উপ-নির্বাচনে সম্ভাব্য প্রার্থী হিসেবে মঈন উদ্দীন খান বাদলের স্ত্রী সেলিনা খান, সাবেক সিডিএ চেয়ারম্যান আবদুচ ছালাম, দক্ষিণ জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি মোছলেম উদ্দিন আহমদ, সাবেক মন্ত্রী নূরুল ইসলাম বিএসসি, কুয়েতের রাষ্ট্রদূত এস এম আবুল কালামের নাম শোনা যাচ্ছে। নগর বিএনপির সিনিয়র সহ-সভাপতি আবু সুফিয়ানও উপ-নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করতে পারেন।

বাংলাদেশ সময়: ১২১০ ঘণ্টা, নভেম্বর ২২, ২০১৯
এসি/টিসি

ক্লিক করুন, আরো পড়ুন :   চট্টগ্রাম
        ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন  

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

Alexa
cache_14 2019-11-22 12:20:02