bangla news

রাতে ঘুরে ঘুরে শিক্ষার্থীদের খবর নিই: চবি উপাচার্য

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০১৯-১০-১২ ৭:২০:১৪ পিএম
বক্তব্য দেন অধ্যাপক ড. শিরীণ আখতার।

বক্তব্য দেন অধ্যাপক ড. শিরীণ আখতার।

চট্টগ্রাম: মাঝে-মধ্যে রাতে বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টোরিয়াল বডির সঙ্গে ক্যাম্পাসে ঘুরে শিক্ষার্থীদের খবর নেন বলে জানিয়েছেন চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য (চলতি দায়িত্বপ্রাপ্ত) অধ্যাপক ড. শিরীণ আখতার।

শনিবার (১২ অক্টোবর) বিকেল চারটার দিকে বিশ্ববিদ্যালয়ের কয়েকটি আবাসিক হল পরিদর্শন শেষে সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে তিনি এ তথ্য জানান।

উপাচার্য অধ্যাপক ড. শিরীণ আখতার প্রীতিলতা হল, শামসুন নাহার হল, বেগম খালেদা জিয়া হল, শহীদ আবদুর রব হল ও মাস্টারদা সূর্য সেন হল পরিদর্শন করে শিক্ষার্থীদের হলকেন্দ্রিক কোনো সমস্যা আছে কী-না জানতে চান। হল পরিদর্শন শেষে সাংবাদিকদের সঙ্গে কথা বলেন তিনি।

শিরীণ আখতার বলেন, সামনে বিশ্ববিদ্যালয়ের ভর্তি পরীক্ষা। তাই হল প্রভোস্টদের নিয়ে শিক্ষার্থীদের দেখতে এলাম। পরিদর্শন করে যেটি দেখলাম, শিক্ষার্থীরা অনেক নিরাপদে আছে, তাদের তেমন কোনো সমস্যা নেই। এখানে খারাপ কিছু নেই। কোনো নির্যাতনের আলামত কিংবা টর্চাল সেল নেই।

বাংলাদেশ প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয়ের (বুয়েট) ছাত্র আবরার ফাহাদ হত্যাকাণ্ডের বিষয়ে তিনি বলেন, এটি অত্যন্ত দুঃখজনক একটি ঘটনা। চবিতে বুয়েটের মত টর্চাল সেলের কোনো অস্তিত্ব নেই। এখানে কেউ এরকম নির্যাতনের শিকার হয়েছে, সেই অভিযোগও নেই। ভবিষ্যতে যাতে বুয়েটের মতো কোনো ঘটনা না ঘটে সেজন্য প্রভোস্টদের সঙ্গে বসে করণীয় ঠিক করেছি।

যদিও চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ে রাতে প্রভোস্ট ও প্রক্টররা থাকেন না। এ নিয়ে আতঙ্কে থাকেন সাধারণ শিক্ষার্থীরা। বুধবার (৯ অক্টোবর) বাংলানিউজে ‘চবির ছাত্রাবাসের প্রভোস্ট-প্রক্টররা থাকেন না ক্যাম্পাসে!’ শিরোনামে একটি প্রতিবেদন প্রকাশিত হয়।

এ বিষয়ে এক সাংবাদিকের প্রশ্নের জবাবে উপাচার্য শিরীণ আখতার বলেন, সব প্রভোস্টদের সঙ্গে বসেছি। আমাদের নানরকম অসুবিধা আছে। শহর থেকে বিশ্ববিদ্যালয় অনেক দূরে। এখানে সন্তানদের পড়াতে ভালো স্কুল নেই, ভালো স্বাস্থ্য ব্যবস্থা নেই। তাই তারা থাকেন না।

তিনি বলেন. তবে প্রভোস্টরা কথা দিয়েছেন সামনে ভর্তি পরীক্ষার সময় এক মাস হলে সার্বক্ষণিক মনিটরিং করবেন। প্রভোস্টরা আবাসিক শিক্ষকদের সঙ্গে বসে কে, কোন দিন রাতে থাকবেন সেই তালিকা আমাকে দেবেন।

‘এখন যারা দায়িত্বে আসেন তারা অনেক অভিজ্ঞ। এই মুহূর্তে আমি চাই না, আবাসিক হলে প্রভোস্ট রদবদল হোক। তবে ক্যাম্পাসে কিছু কিছু আবাসিক শিক্ষক থাকেন’ বলেন শিরীণ আখতার।

অপর এক প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, রাত ১০টার পর শিক্ষার্থীরা বাইরে থাকেন সেটি আমার নজরে এসেছে। আমি প্রক্টোরিয়াল বডির সঙ্গে রাতে ক্যাম্পাসে ঘুরে বিভিন্ন সময়ে এ বিষয়টি দেখেছি। আমি রাতে ক্যাম্পাসে ঘুরে শিক্ষার্থীদের উপর নজর রাখি। এ বিষয়ে পরে ব্যবস্থা নেয়া হবে।

বেগম খালেদা জিয়া হলের প্রভোস্ট অধ্যাপক ড. মো. আবুল কাশেম বাংলানিউজকে বলেন, উপাচার্য ম্যাডাম হল পরিদর্শন করে ছাত্রীদের কোনো অসুবিধা, অভিযোগ আছে কী-না জানতে চেয়েছেন। ছোটখাটো কিছু সমস্যার কথা ছাত্রীরা বলেছেন, সেগুলো খুব শিগগিরই সমাধান করে দেবেন বলে ম্যাডাম বলেছেন।

প্রীতিলতা হলের প্রভোস্ট পারভীন সুলতানা বাংলানিউজকে বলেন, ম্যাডাম এসে সার্বিক বিষয়ে জানতে চেয়েছেন। সাধারণ শিক্ষার্থীদের যে কোনো অভিযোগ গুরুত্বের সঙ্গে দেখার জন্য নির্দেশ দিয়েছেন।

এ সময় বিশ্ববিদ্যালয়ের বিভিন্ন হলের প্রভোস্ট, প্রক্টোরিয়াল বডির সদস্য ও আবাসিক শিক্ষক-কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।

বাংলাদেশ সময়: ১৯১৫ ঘণ্টা, অক্টোবর ১২, ২০১৯
জেইউ/টিসি

ক্লিক করুন, আরো পড়ুন :   চট্টগ্রাম চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়
        ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন  

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

Alexa
cache_14 2019-10-12 19:20:14