bangla news

মিয়ানমার ও তুরস্ক থেকে পেঁয়াজ আসছে

​সিনিয়র করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০১৯-০৯-৩০ ৮:১১:২৭ পিএম
খাতুনগঞ্জে মিয়ানমারের পেঁয়াজে ভর্তি  আড়তে কর্মব্যস্ততা। ছবি: উজ্জ্বল ধর

খাতুনগঞ্জে মিয়ানমারের পেঁয়াজে ভর্তি আড়তে কর্মব্যস্ততা। ছবি: উজ্জ্বল ধর

চট্টগ্রাম: ভারত পেঁয়াজ রপ্তানি বন্ধ ঘোষণার আগে থেকেই ব্যবসায়ীরা মিয়ানমার থেকে আমদানি শুরু করেছিলেন। দেশের বড় পাইকারি বাজার খাতুনগঞ্জসহ চট্টগ্রামের বাজারে এ পেঁয়াজ বিক্রি হচ্ছে ভারতের ‘নাসিক’ পেঁয়াজের চেয়ে কম দামে। সোমবার (৩০ সেপ্টেম্বর) তুরস্ক থেকে আমদানি করা পেঁয়াজের চালান এসেছে চট্টগ্রাম বন্দরে।

চট্টগ্রাম বন্দর কর্তৃপক্ষের সচিব মো. ওমর ফারুক বাংলানিউজকে জানান, কনটেইনারবাহী জাহাজে চট্টগ্রাম বন্দরে পেঁয়াজের চালান এসেছে। প্রাথমিকভাবে জানতে পেরেছি ১৩ কনটেইনারে ৪০০ টন পেঁয়াজ আমদানি হয়েছে। এসব কনটেইনার দ্রুত খালাসে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়া হয়েছে।

খাতুনগঞ্জের হামিদ উল্লাহ মার্কেট ব্যবসায়ী সমিতির সাধারণ সম্পাদক মোহাম্মদ ইদ্রিস বাংলানিউজকে জানান, মিয়ানমার থেকে আমদানি করা পেঁয়াজের ট্রাক নিয়মিত খাতুনগঞ্জে ঢুকছে। তবে ভারতের পেঁয়াজের ট্রাক নিয়ে হিলি, ভোমরা স্থলবন্দর কেন্দ্রিক বেপারীরা খাতুনগঞ্জে আসেননি।

তিনি বলেন, সকালে মিয়ানমারের পেঁয়াজ বোঝাই ৮টি ট্রাক এসেছে খাতুনগঞ্জে। একেকটি ট্রাকে ১৫ টন করে পেঁয়াজ ছিল। কিন্তু চাহিদার তুলনায় তা কম।

খাতুনগঞ্জে মিয়ানমারের পেঁয়াজে ভর্তি  আড়ত। ছবি: উজ্জ্বল ধরতিনি জানান, সোমবার (২৩ সেপ্টেম্বর) বিকেলে খাতুনগঞ্জে মিয়ানমারের পেঁয়াজ পাইকারিতে ৮০ টাকা, ভারতের নাসিক পেঁয়াজ ৯০ টাকা বিক্রি হয়েছে।

ভারত পেঁয়াজ রপ্তানি বন্ধ ঘোষণার খবর ছড়িয়ে পড়ার পর থেকে খুচরা পর্যায়ে পেঁয়াজের দাম বেড়েছে কয়েক ধাপে। সন্ধ্যায় কাজীর দেউড়ি কাঁচাবাজারের ‘জীবন গ্রোসারি’ নামের মুদির দোকানে পেঁয়াজ বিক্রি হয়েছে ৯৫-১০০ টাকা।

বাংলাদেশ সময়: ২০০০ ঘণ্টা, সেপ্টেম্বর ৩০, ২০১৯
এআর/টিসি

ক্লিক করুন, আরো পড়ুন :   চট্টগ্রাম ব্যবসা
        ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন  

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

Alexa
cache_14 2019-09-30 20:11:27