bangla news

‘স্টাম্পে লিখিত দেবো, ভালো মানের খেলোয়াড় তৈরি হবে’

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০১৯-০৯-১০ ২:৩২:৩৭ পিএম
মেয়র আ জ ম নাছির উদ্দীন। ছবি: সোহেল সরওয়ার

মেয়র আ জ ম নাছির উদ্দীন। ছবি: সোহেল সরওয়ার

চট্টগ্রাম: এম এ আজিজ স্টেডিয়ামের ফ্লাড লাইট কার্যকর ও জিমনেসিয়াম আধুনিকায়ন করে দিলে ৫ বছরে ভালো মানের খেলোয়াড় তৈরি করে দেবেন বলে দাবি করেছেন সিটি করপোরেশন মেয়র আ জ ম নাছির উদ্দীন।

তিনি যুব ও ক্রীড়া প্রতিমন্ত্রী মো. জাহিদ আহ্সান রাসেলকে দৃষ্টি আকর্ষণ করে বলেন, চট্টগ্রামের মানুষের জন্য স্বপ্নের সুইমিংপুল তৈরি করে দিয়েছি। আউটার স্টেডিয়ামের আশেপাশে সৌন্দর্যবর্ধন করেছি। সবকিছু নিজেদের সামর্থে। আমাদের আলাদা কোনো অর্থ বরাদ্দের প্রয়োজন নেই। শুধু স্টেডিয়ামের ফ্লাড লাইট কার্যকর ও জিমনেসিয়াম আধুনিকায়ন করে দিলে ১৫০ টাকার স্টাম্পে লিখিত দেবো, ৫ বছরে ভালো মানের খেলোয়াড় তৈরি করবো।

যুব ও ক্রীড়া প্রতিমন্ত্রীকে নিয়ে সুইমিংপুল পরিদর্শন করছেন মেয়র। ছবি: সোহেল সরওয়ারমঙ্গলবার (১০ সেপ্টেম্বর) দুপুর একটার দিকে চট্টগ্রাম বিভাগীয় সুইমিংপুল উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথির বক্তব্যে তিনি এ কথা বলেন।

আ জ ম নাছির উদ্দীন বলেন, সুইমিংপুল তৈরি করতে গিয়ে অনেকে বিরোধীতা করেছিলেন। কেন করেছিলেন, সেটি আমার কাছে বোধগম্য নয়। ক্রীড়ার জন্য খুব উর্বর একটি জায়গা চট্টগ্রাম। চট্টগ্রাম জেলা ক্রীড়া সংস্থা বাংলাদেশের মধ্যে একমাত্র ক্রীড়া সংস্থা, যেখানে সারাবছর বিভিন্ন টুর্নামেন্টের আয়োজন করে থাকে। ফুটবল, ক্রিকেটসহ বিভিন্ন খেলাধুলায় তিন থেকে চারটি স্তরে টুনামেন্টের আয়োজন থাকে। প্রতিবছর ৩৫টি ইভেন্টে খেলাধুলা চলে, শুধু চট্টগ্রামের ক্রীড়া সংস্থার আয়োজনে।

তিনি বলেন, ইতিমধ্যে এই সুইমিংপুলে সাঁতার শিখতে এক হাজারেরও বেশি আবেদন করেছে। ১১টি সেশনে দিনে ১১ ঘণ্টা ২১ জন প্রশিক্ষক তাদের সাঁতার শেখাবেন। ছেলে ও মেয়েদের জন্য আলাদা প্রশিক্ষক রয়েছে।

প্রথম দিনে শিশুরা সাঁতার শিখতে ব্যস্ত।

‘প্রতিবন্ধীদের জন্য ফ্রি সাঁতার শেখার ব্যবস্থা করা হয়েছে। এছাড়া সীমিত আয়ের মানুষের জন্যও ফ্রিতে সাঁতার শেখার ব্যবস্থা করা হয়েছে। সামাজিক দায়িত্ব হিসেবে আমাদের এ উদ্যোগ। এছাড়া নভেম্বরে চট্টগ্রামের সুইমিংপুলে জাতীয় পর্যায়ে খেলার আয়োজন করা হবে।’ বলেন-মেয়র নাছির।

চট্টগ্রামের জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ ইলিয়াস হোসেনের সভাপতিত্বে প্রধান অতিথি ছিলেন যুব ও ক্রীড়া প্রতিমন্ত্রী মো. জাহিদ আহ্সান রাসেল, বিশেষ অতিথি ছিলেন যুব ও ক্রীড়া সচিব ড. মো. জাফর উদ্দীন।

>> 'নদী-খাল-বিল একসময় জাদুঘরে গিয়ে দেখতে হবে'
>> সাঁতার শুধু খেলা নয়, জীবন-মরণের প্রশ্নও

বাংলাদেশ সময়: ১৪২০ ঘণ্টা, সেপ্টেম্বর ১০, ২০১৯
জেইউ/টিসি

ক্লিক করুন, আরো পড়ুন :   চট্টগ্রাম
        ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন  

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

Alexa
cache_14 2019-09-10 14:32:37