bangla news

জঙ্গিবাদ প্রতিরোধে ঐক্যবদ্ধ হওয়ার আহ্বান

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০১৯-০৮-২৮ ৫:২৬:৩০ পিএম
বক্তব্য দেন চসিক মেয়র আ জ ম নাছির উদ্দীন।

বক্তব্য দেন চসিক মেয়র আ জ ম নাছির উদ্দীন।

চট্টগ্রাম: নগরের কামাল ইশকে মুস্তাফা(দ.) ফাজিল মাদ্রাসায় সুচিন্তার উদ্যোগে জঙ্গিবাদ বিরোধী সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়েছে।

বুধবার (২৮ আগস্ট) মাদ্রাসার হল রুমে  এ সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়। এতে ওই প্রতিষ্ঠানের আলেম ও শিক্ষাথীরা অংশ নেন।

সুচিন্তা বাংলাদেশের চট্টগ্রাম বিভাগীয় সমন্বয়ক এ্যাড. জিনাত সোহানা চৌধুরীর সভাপতিত্বে অধ্যাপক মো. আমিন উল্লাহর সঞ্চালনায় উদ্বোধক হিসেবে উপস্থিত ছিলেন কামাল ইশকে মুস্তাফা(দ.) কমপ্লেক্স ট্রাস্টের চেয়ারম্যান ছৈয়দ মুহাম্মদ আনোয়ার হোছাইন (মা.জি.আ.)।

প্রধান অতিথি ছিলেন চট্রগ্রাম সিটি কর্পোরেশনের মেয়র আ জ ম নাছির উদ্দীন, বিশেষ অতিথি ছিলেন সংগঠনের উপদেষ্টা স্থপতি আশিক ইমরান।

মেয়র আ জ ম নাছির উদ্দীন বলেন, বঙ্গবন্ধুর সময়ে দেশে কোনো জঙ্গি ছিল না। পরে যারা দেশ শাসন করেছে তারাই সন্ত্রাস ও জঙ্গি সৃষ্টি করেছেন।

‘ইসলামের নামে যারা জঙ্গি হামলার মতো জঘন্য অপরাধ করছে তারা ইসলামের কেউ নয়। ইসলাম মানুষ হত্যা সমর্থন করে না। অথচ তারা জিহাদের নাম দিয়ে নিরীহ মানুষজনকে হত্যা করছে। এদের ধর্ম নেই, এরা ইসলামের শত্রু’ বলেন মেয়র নাছির

সুচিন্তার উপদেষ্টা স্থপতি আশিক ইমরান বলেন, জঙ্গি ও সন্ত্রাসীদের কোনও জাত নেই, ধর্ম নেই। তাদের কোনও পরিচয় নেই। এদের পরিচয় একটাই কেবল অপরাধী। এদের যেকোনো মুল্যে প্রতিহত করতে হবে। ইসলামের প্রকৃত শিক্ষা অনুধাবনেই মিলবে মুক্তি।

...সভাপতির বক্তব্যে জিনাত সোহানা চৌধুরী বলেন, জঙ্গিবাদ নির্মূলে আলেমদের অনেক ভূমিকা রয়েছে। মসজিদে মসজিদে মুসল্লিদের বুঝাতে হবে। শিক্ষার্থীদের ইসলামের মৌলিক শিক্ষা দিতে হবে। তবেই জঙ্গি নির্মূল হবে।

আরও বক্তব্য দেন বাকলিয়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) নেজাম উদ্দিন, এম কায়কোবাদ, মুহাম্মদ নুরুল আমিন, অধ্যক্ষ তোয়াহা মুহাম্মদ মুদ্দাচ্ছির, বাংলাদেশ কেন্দ্রীয় ধর্ম ও উপ কমিটির সদস্য মাওলানা রবিউল আলম সিদ্দিকী, ডা. মাওলানা ইউনুছ ওয়াহেদী।

উপস্থিত ছিলেন অধ্যাপক মুহাম্মদ নাজেম উদ্দিন, মাওলানা শহীদুল্লাহ ,নিলুফার আকতার, মুহাম্মদ মনজুরুল আলম,আবদুল আলিম, ওমর ফারুক নওফেল, মাওলানা আবদুল কাদের প্রমুখ।

জঙ্গিবাদ বিরোধী সমাবেশে অতিথিরাএর আগে ১৫ আগস্টের জাতির জনক বঙ্গবন্ধুসহ পরিবারের সকল শহীদদের সম্মান জানিয়ে এক মিনিট নিরবতা পালন করা হয়। তাদের আত্মার মাগফিরাত কামনা করে মোনাজাত করা হয়। কোরআন তেলাওয়াত ও জাতীয় সংগীতের মাধ্যমে সমাবেশ শুরু হয়।

পরে শিক্ষার্থীদের নিয়ে প্রশ্নোত্তর পর্ব পরিচালনা করেন সুচিন্তা স্টুডেন্ট এন্ড ইয়ুথ উইনং শাখার কৌশিক। সমাবেশ শেষ হয় সবার স্বতঃস্ফূর্ত জয় বাংলা স্লোগানের মাধ্যমে।

বাংলাদেশ সময়:১৭০০ ঘণ্টা, আগস্ট ২৮, ২০১৯

জেইউ/ টিসি

        ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন  

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

Alexa
cache_14 2019-08-28 17:26:30