bangla news

৯৯৯ এ ফোন, বাড়তি ভাড়া ফেরত পেলেন যাত্রীরা

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০১৯-০৮-১০ ৬:১০:১১ পিএম
প্রতীকী

প্রতীকী

চট্টগ্রাম: নগরের অক্সিজেন থেকে ফটিকছড়ির বিবিরহাট যাচ্ছিলেন চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী মহি উদ্দিন। এ পথের নিয়মিত বাস ভাড়া ৪০ টাকা হলেও শনিবার (১০ আগস্ট) ঈদ উপলক্ষে তার কাছ থেকে আদায় করা হয় ১০০ টাকা।

ভাড়া কম রাখতে বাস চালক ও তার সহকারীকে কয়েক দফা অনুরোধ করার পরেও সাড়া না পেয়ে শেষ পর্যন্ত জরুরি সেবা নম্বর ৯৯৯ এ কল করে সহায়তা চান তিনি। কাজও হয় এতে।

ফটিকছড়ি থানা পুলিশের সহায়তায় মহি উদ্দিনসহ ওই বাসের সব যাত্রী ফেরত পান বাড়তি ভাড়া।

মহি উদ্দিন জানান, ঈদে ঘরমুখো মানুষের ভিড়কে পুঁজি করে দ্বিগুন ভাড়া আদায় করছিলেন বাস চালক ও তার সহকারী। ভাড়া কম রাখতে অনুরোধ করার পরেও তারা শুনেনি। পরে জরুরি সেবা নম্বর ৯৯৯ এ কল করে সহায়তা চাই।

তিনি বলেন, কল দেওয়ার পর পরিচয় দিয়ে বাড়তি ভাড়া নেওয়ার অভিযোগটি জানাই। তারা আমাকে চট্টগ্রাম কন্ট্রোল রুমের নম্বর দেয়। কন্ট্রোল রুমে পুরো ঘটনাটি বলি। এর পরপরেই ফটিকছড়ি থানার দায়িত্বপ্রাপ্ত কর্মকর্তার সঙ্গে আমাকে যোগাযোগ করিয়ে দেওয়া হয়।

‘ওই কর্মকর্তা বাসের নাম, অবস্থান জানতে চান। এরপর ফোর্স পাঠিয়ে আমাদের কাছ থেকে নেওয়া বাড়তি ভাড়া ফেরত নিয়ে দেন।’ যোগ করেন চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের এ শিক্ষার্থী।

ফটিকছড়ি থানার পরিদর্শক (তদন্ত) আরিফুর রহমান বাংলানিউজকে জানান, দুপুরে ৯৯৯ থেকে ফোন পেয়ে আমরা অভিযোগকারী ব্যক্তির সঙ্গে যোগাযোগ করি। পরে তার দেওয়া অভিযোগের সত্যতা পেয়ে চট্টগ্রাম-খাগড়াছড়ি রোডের ‘শাহেন শাহ’ নামে ওই বাসের যাত্রীদের কাছ থেকে নেওয়া বাড়তি ভাড়া ফেরত নিয়ে দিই।

বাংলাদেশ সময়: ১৮০৯ ঘণ্টা, আগস্ট ১০, ২০১৯
এমআর/টিসি

ক্লিক করুন, আরো পড়ুন :   চট্টগ্রাম পুলিশ
        ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন  

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

Alexa
cache_14 2019-08-10 18:10:11