ঢাকা, সোমবার, ৪ ভাদ্র ১৪২৬, ১৯ আগস্ট ২০১৯
bangla news

‘হ্যাঁলো ওসি’ বুথে এসে মাদক ব্যবসায়ীর আত্মসমর্পণ

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০১৯-০৭-১৮ ১১:১৯:০৩ পিএম
‘হ্যাঁলো ওসি’ বুথে সেবা দেন ওসি মোহাম্মদ মহসীন

‘হ্যাঁলো ওসি’ বুথে সেবা দেন ওসি মোহাম্মদ মহসীন

চট্টগ্রাম: মানুষের সমস্যা সমাধান, অভিযোগ শুনতে চট্টগ্রাম মেট্রোপলিটন পুলিশের উদ্যোগে চালু হওয়া ‘হ্যাঁলো ওসি’ বুথে এসে আত্মসমর্পণ করেছেন নয় মাদক ব্যবসায়ী।

বৃহস্পতিবার (১৮ জুলাই) দেওয়ানবাজার খলিফাপট্টি এলাকায় কোতোয়ালী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোহাম্মদ মহসীনের কাছে এসে আত্মসমর্পণ করেন। তারা প্রতিজ্ঞা করেন- জীবনে আর কখনও মাদক সেবন বা বিক্রির সঙ্গে জড়িত হবেন না।

আত্মসমর্পণ করা নয় মাদক ব্যবসায়ী হলো- মো. দিদারুল আলম (৩২), মো. সালাহ উদ্দিন দুলাল (৩৬), জান্নাতুন্নাহার (৫০), মো. শাহফার হোসাইন প্রকাশ লালু (৩৭), মো. আবু বক্কর সিদ্দিক প্রকাশ অনিক (২৪), মো. ইয়াছিন ফারুক (৪৫), মো. আব্দুস সালাম (৫৫), মো. রাশেদ (৩১) ও মো. শাহ আলম (৪৩)।

ওসি মোহাম্মদ মহসীন বাংলানিউজকে বলেন, খলিফাপট্টি এলাকায় হ্যাঁলো ওসি বুথে এসে মাদক ব্যবসা ছেড়ে ভালো পথে চলার ঘোষণা দিয়েছে নয়জন। তারা কয়েকশ মানুষের সামনে শপথ করে মাদক সেবন ও বিক্রি না করার ঘোষণা দেন।

তিনি বলেন, যারা মাদক ব্যবসা ছেড়ে দিয়ে ভালো পথে আসার ঘোষণা দিয়েছে তাদেরকে পুলিশের পক্ষ থেকে সব ধরণের সহযোগিতা করা হবে। তাদেরকে নার্সিং করা হবে। আমরা চাই-তাদের দেখে অন্যরাও মাদক ব্যবসা ছেড়ে দিক।

এ বছরের শুরুতে পুলিশ সেবা সপ্তাহে কোতোয়ালী থানা প্রাঙ্গণে ‘হ্যাঁলো ওসি’ বুথ স্থাপন করে মানুষকে সেবা দেন কোতোয়ালী থানার ওসি মোহাম্মদ মহসীন। সম্প্রতি চট্টগ্রাম মেট্রোপলিটন পুলিশ কমিশনার মো. মাহাবুবর রহমান ‘হ্যাঁলো ওসি’ বুথ সিএমপির সব এলাকায় চালু করার নির্দেশ দেন।

বাকলিয়ায় দুই মাদক ব্যবসায়ীর আত্মসমর্পণ

বাকলিয়া থানার কালামিয়া বাজার দোতলা মসজিদ এলাকায় পুলিশের কাছে আত্মসমর্পণ করেছে দুই মাদক ব্যবসায়ী।

ওসি নেজাম উদ্দিনের কাছে আত্মসমর্পণ করেন দুই মাদক ব্যবসায়ীবৃহস্পতিবার বিকেলে ৩৩ নং বিট পুলিশিংয়ের উদ্যোগে আয়োজিত এক সমাবেশে বাকলিয়া থানার ওসি মো. নেজাম উদ্দিনের কাছে তারা আত্মসমর্পণ করেন। এসময় তারা আর মাদক ব্যবসা না করার শপথ গ্রহণ করেন।

আত্মসমর্পণ করা দুইজন হলো- মো. আরাফাত (২৭) ও মো. আবছার (২৫)। তাদের বিরুদ্ধে বাকলিয়া থানায় একাধিক মাদক মামলা রয়েছে এবং তারা পুলিশের তালিকাভুক্ত মাদক ব্যবসায়ী।

ওসি মো. নেজাম উদ্দিন বাংলানিউজকে বলেন, বিট পুলিশিংয়ের সমাবেশে হাজির হয়ে দুই মাদক ব্যবসায়ী আত্মসমর্পণ করেছে। তারা শপথ করেছে আর কখনও মাদক ব্যবসায় জড়াবে না।

তিনি বলেন, বাকলিয়া এলাকায় মাদক নির্মুল করার লক্ষ্যে কাজ করছি। গত কয়েক মাসে মোট ১৪ জন মাদক ব্যবসায়ী আত্মসমর্পণ করেছে। এছাড়া প্রায় ২০০ মাদক ব্যবসায়ীকে গ্রেফতার করে কারাগারে পাঠানো হয়েছে। ১০ জনকে মাদক নিরাময় কেন্দ্রে পাঠানো হয়েছে।

বাংলাদেশ সময়: ২৩০৫ ঘণ্টা, জুলাই ১৮, ২০১৯
এসকে/টিসি

        ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন  

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

Alexa
cache_14 2019-07-18 23:19:03