bangla news

‘সৃজনশীলতার উদ্ভাবনী শক্তি চিন্তাধারাকে পরিশীলিত করে’

| বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০১৯-০৭-০৬ ৭:০৬:৪২ পিএম
সিআইইউর উপাচার্যের সঙ্গে ‘ক্রিয়েটিভ রাইটিং কমপিটিশন’ শীর্ষক প্রতিযোগিতায় বিজয়ী হওয়া শিক্ষার্থীরা।

সিআইইউর উপাচার্যের সঙ্গে ‘ক্রিয়েটিভ রাইটিং কমপিটিশন’ শীর্ষক প্রতিযোগিতায় বিজয়ী হওয়া শিক্ষার্থীরা।

চট্টগ্রাম: চিন্তা-ভাবনার দুয়ারকে প্রসারিত করে নতুন কিছু সৃষ্টির মাধ্যমে সৃজনশীলতার নতুন রুপ দিতে চিটাগং ইন্ডিপেন্ডেন্ট ইউনিভার্সিটির (সিআইইউর) শিক্ষার্থীদের প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন প্রতিষ্ঠানটির উপাচার্য ড. মাহফুজুল হক চৌধুরী। 

তিনি বলেছেন, সৃজনশীলতা হচ্ছে এমন-ই উদ্ভাবনী শক্তি, যা চিন্তাধারাকে পরিশীলিত করে ভিন্ন কিছু ভাবতে শেখায়। আর সৃজনশীলতা বৃদ্ধির জন্য জ্ঞানের পরিধি বাড়ানোর কোনো বিকল্প নেই। তাই বেশি বেশি বই আর তথ্যের জগতে ডুবে থাকতে হবে সবাইকে। 

সম্প্রতি নগরের জামাল খানের সিআইইউ ক্যাম্পাসে অনুষ্ঠিত  ‘ক্রিয়েটিভ রাইটিং কমপিটিশন’-এর পুরস্কার বিতরণ অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে এসব কথা বলেন উপাচার্য। 

স্কুল অব লিবারেল আর্টস অ্যান্ড সোশ্যাল সায়েন্সেস-এর ‘ক্রিয়েটিভ রাইটার্স ক্লাব’ (এসডব্লিউসি) পড়ালেখার পাশাপাশি ছাত্র-ছাত্রীদের সৃজনশীল দক্ষতা বাড়াতে এই প্রতিযোগিতার আয়োজন করে। 

অনুষ্ঠানে উপাচার্য আরও বলেন, গল্প-কবিতা-উপন্যাস-প্রবন্ধ এগুলো এক ধরণের সৃজনশীল কাজ। যা মনের অজান্তে ভাবনার জগত থেকে চর্চার মাধ্যমে বিকশিত হয়। 

তিনি আরও বলেন, যারা সৃষ্টিশীল তারা সমাজকে আলোকিত করার কথা ভাবেন। মানুষের অভ্যাস ও কাজে পরিবর্তন আনার চেষ্টা করেন। আর এভাবেই নতুন রীতি চালুর মাধ্যমে আমরা সুন্দর কিছু পাই। 

অনুষ্ঠানে অন্যান্যের মধ্যে আরও বক্তব্য দেন স্কুল অব লিবারেল আর্টস অ্যান্ড সোশ্যাল সায়েন্সেস-এর ডিন অধ্যাপক কাজী মোস্তাইন বিল্লাহ ও ইংরেজি বিভাগের চেয়ারম্যান সার্মেন রড্রিক্স।

অনুষ্ঠানে ইংরেজি কবিতা, নাটক, ছোটগল্প ও রচনা প্রতিযোগিতায় বিজয়ী শিক্ষার্থীদের হাতে পুরস্কার তুলে দেওয়া হয়।

বাংলাদেশ সময়: ১৯০০ ঘণ্টা, জুলাই ০৬, ২০১৯
জেইউ/টিসি

        ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন  

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

Alexa
cache_14 2019-07-06 19:06:42