ঢাকা, বুধবার, ৯ শ্রাবণ ১৪২৬, ২৪ জুলাই ২০১৯
bangla news

মামলা মাথায় নিয়ে যাতে কবরে যেতে না হয়

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০১৯-০৬-১৭ ৯:৩৪:১৬ পিএম
বক্তব্য দেন বিভাগীয় কমিশনার মো. আব্দুল মান্নান।

বক্তব্য দেন বিভাগীয় কমিশনার মো. আব্দুল মান্নান।

চট্টগ্রাম: মামলা মাথায় নিয়ে মানুষকে যাতে কবরে যেতে না হয় সে বিষয়টি বিবেচনায় রেখে বিচারক, পিপিসহ সংশ্লিষ্টদের আরও দায়িত্ববান হওয়ার তাগিদ দিয়েছেন বিভাগীয় কমিশনার মো. আব্দুল মান্নান।

তিনি বলেছেন, বিচারক সংকটসহ বিভিন্ন কারণে আদালতে বিচারাধীন মামলাগুলো দ্রুত নিষ্পত্তি হচ্ছে না। ফলে মামলার জট ক্রমেই বাড়ছে। অনেক সময় কোন মামলার কতটুকু অগ্রগতি এসব বিষয় মামলার বাদী-বিবাদীরাও জানছেন না। এ জন্য বিচারাধীন মামলাগুলো দ্রুত নিষ্পত্তির প্রয়োজনীয় উদ্যোগ নিতে হবে। 

মঙ্গলবার (১৭ জুন) চট্টগ্রাম সার্কিট হাউজে আয়োজিত সভায় বিভাগীয় কমিশনার এসব কথা বলেন।

মো. আব্দুল মান্নান বলেন, রমজান এলেই শুধু বাজার মনিটরিং কার্যক্রম ও ভেজালের বিরুদ্ধে অভিযান চালানো হয় বলে অনেকে মন্তব্য করেন। কিন্তু শুধু রমজানে নয়, বছরের ১২ মাস ভেজালবিরোধী অভিযান অব্যাহত রাখা হবে। যেখানে ভেজাল সেখানে আইন-শৃংখলা বাহিনীসহ সংশ্লিষ্টদের সঙ্গে নিয়ে ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনা করবে জেলা প্রশাসন।

তিনি বলেন, মাদক একটি ভয়াবহ ব্যাধি। পেশাদার মাদক ব্যবসায়ীরা মিয়ানমার থেকে নতুন নতুন কৌশল অবলম্বনের মাধ্যমে সড়ক ও নৌ পথ দিয়ে মাদক পাচার করছে। মাদকের কারণে আমাদের যুব সমাজ ধবংস হয়ে যাচ্ছে। নতুন প্রজন্ম মাদকে জড়িয়ে পড়ছে। তাদেরকে মাদকের ছোবল থেকে ফিরিয়ে আনতে না পারলে দেশ কাঙ্খিত লক্ষ্যে পৌঁছতে পারবে না। তাই মাদকের বিরুদ্ধে আরও বেশি নজরদারী বাড়াতে হবে।

বিভাগীয় কমিশনার বলেন, প্রধানমন্ত্রী টানা তৃতীয়বারের মতো ক্ষমতায় এসে দেশের উন্নয়ন অব্যাহত রাখা এবং দুর্নীতি, সন্ত্রাস, মাদক, জঙ্গিবাদ ও চোরাচালানসহ অন্যান্য অপরাধ নিয়ন্ত্রণে গুরুত্ব দিয়ে যাচ্ছেন। প্রজাতন্ত্রের কর্মচারী হিসেবে আমাদের উপর অর্পিত দায়িত্ব আমাদেরকেও যথাযথভাবে পালন করতে হবে।

সভায় চট্টগ্রাম মেট্টোপলিটন পুলিশ (সিএমপি) কমিশনার মো. মাহাবুবর রহমান, স্থানীয় সরকারের বিভাগীয় পরিচালক দীপক চক্রবর্তী, অতিরিক্ত বিভাগীয় কমিশনার (উন্নয়ন) মো. নুরুল আলম নিজামী, পুলিশের চট্টগ্রাম রেঞ্জের অতিরিক্ত ডিআইজি মোহাম্মদ  আবুল ফয়েজ প্রমুখ বক্তব্য দেন ।

বাংলাদেশ সময়: ২১৩০ ঘণ্টা, জুন ১৭, ২০১৯
এমআর/টিসি

ক্লিক করুন, আরো পড়ুন :   চট্টগ্রাম
        ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন  

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

Alexa
cache_14 2019-06-17 21:34:16