bangla news

দৃষ্টিনন্দন হবে দুই গুরুত্বপূর্ণ রাস্তা

নিউজ ডেস্ক | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০১৯-০৫-২৭ ৪:৫৭:১০ পিএম
 পোর্ট কানেকটিং রোডে কার্পেটিং এর কাজ পরিদর্শন করেন মেয়র আ জ ম নাছির উদ্দীন।

পোর্ট কানেকটিং রোডে কার্পেটিং এর কাজ পরিদর্শন করেন মেয়র আ জ ম নাছির উদ্দীন।

চট্টগ্রাম: নগরের দুই গুরুত্বপূর্ণ আগ্রাবাদ অ্যাকসেস ও পোর্ট কানেকটিং রোডের কাজ এগিয়ে চলছে। ঈদের আগেই রোড দুটির এক পাশের কাজ শেষ করতে চায় চট্টগ্রাম সিটি করপোরেশন (চসিক)।

সোমবার (২৭ মে) দুপুরে পোর্ট কানেকটিং রোডে কার্পেটিং এর কাজ পরিদর্শনে গিয়ে মেয়র আ জ ম নাছির উদ্দীন সন্তুষ্টি প্রকাশ করেন।

মেয়র বলেন, আগ্রাবাদ অ্যাকসেস ও পোর্ট কানেকটিং রোডের কাজ নিয়মিত মনিটরিং করা হচ্ছে। আগ্রাবাদ অ্যাকসেস রোডের বেপারীপাড়া থেকে পোর্ট কানেকটিং রোডের দক্ষিণাংশ এবং পোর্ট কানেক্টিং রোডের নিমতলা থেকে ওয়াপদা পর্যন্ত রাস্তার পূর্বাংশ ঈদের আগে কার্পেটিং লেয়ারের কাজ শেষ করে যান চলাচলের জন্য খুলে দেয়া হবে।

আ জ ম নাছির উদ্দীন বলেন, তিন ধাপে কার্পেটিং হবে। এতে সড়ক টেকসই হবে। এখন রাত-দিন কাজ চলছে। সড়কের পাশে আরসিসি ড্রেন করা হয়েছে। মিড আইল্যান্ড হবে, বিউটিফিকেশনও করা হবে, বসবে এলইডি লাইট। সব মিলিয়ে সড়ককে দৃষ্টিনন্দন করা হবে।

মেয়র বলেন, পোর্ট কানেকটিং রোড দিয়ে প্রতিদিন ২০-২৫ হাজার ট্রাক পোর্টে ঢোকে এবং বের হয়। এটা চ্যালেঞ্জিং কাজ। রাস্তার পাশে দুটি টার্মিনাল আছে, রাস্তায়ও ট্রাক দাঁড়িয়ে থাকে। এখানে কাজ করা অনেক কঠিন। এই সড়কের বাকি কাজ দ্রুত সম্পন্ন করার জন্য আমি নিজেই ব্যক্তিগতভাবে মনিটরিং করছি। আবহাওয়া অনুকূলে থাকলে এবং এক সপ্তাহ একনাগাড়ে কাজ করা গেলে রাস্তা দুটির একপাশে যান চলাচল করতে পারবে।

চসিকের প্রকৌশল বিভাগ সূত্রে জানা যায়, ‘সিটি গর্ভন্যান্স প্রজেক্টের (ব্যাচ-২)’ আওতায় জাপান ইন্টারন্যাশনাল কো-অপারেশন এজেন্সির (জাইকা) অর্থায়নে এ দুটি সড়কের উন্নয়নকাজ বাস্তবায়ন হচ্ছে। এর মধ্যে প্রায় ৪৯ কোটি টাকা ব্যয়ে আগ্রাবাদ অ্যাকসেস রোডের ২ দশমিক ২০ কিলোমিটার এবং প্রায় ১০০ কোটি টাকা ব্যয়ে নিমতলা থেকে অলংকার মোড় পর্যন্ত পোর্ট কানেক্টিং রোডের ৬ কিলোমিটার সড়কের উন্নয়ন করা হচ্ছে। ২০১৭ সালের ২০ নভেম্বর এ উন্নয়নকাজ শুরু হয়।

বাংলাদেশ সময়: ১৬৫০ ঘণ্টা, মে ২৭, ২০১৯
টিসি

ক্লিক করুন, আরো পড়ুন :   চট্টগ্রাম চট্টগ্রাম সিটি করপোরেশন
        ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন  

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

Alexa
cache_14 2019-05-27 16:57:10