ঢাকা, শনিবার, ৮ ভাদ্র ১৪২৬, ২৪ আগস্ট ২০১৯
bangla news

বিত্তশালীরা এগিয়ে এলে দেশে গরিব থাকবে না: সুফি মিজান

সিনিয়র করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০১৯-০৫-১৬ ৪:৩৬:০৬ পিএম
বক্তব্য দেন সুফি মোহাম্মদ মিজানুর রহমান।

বক্তব্য দেন সুফি মোহাম্মদ মিজানুর রহমান।

চট্টগ্রাম: সরকারের পাশাপাশি সমাজের বিত্তশালীরা এগিয়ে এলে দেশে গরিব থাকবে না বলে মন্তব্য করেছেন পিএইচপি ফ্যামিলির চেয়ারম্যান সুফি মোহাম্মদ মিজানুর রহমান।

বৃহস্পতিবার (১৬ মে) দুপুরে হজরত শাহ আমানত (র.) মাজার প্রাঙ্গণে পিএইচপি ফ্যামিলি ও সুফি মোহাম্মদ মিজান ফাউন্ডেশন আয়োজিত বিনামূল্যে চিকিৎসাসেবা প্রদান ও ওষুধ বিতরণ কর্মসূচি উদ্বোধনকালে তিনি এ মন্তব্য করেন। অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন চট্টগ্রাম সিটি করপোরেশনের মেয়র আ জ ম ্নাছির উদ্দীন। 

সুফি মিজানুর রহমান বলেন, দেশকে দারিদ্র্যমুক্ত করতে হবে। মানুষের মৌলিক অধিকার নিশ্চিত করার জন্য সরকার কাজ করছে। পাশাপাশি শিল্পপতি ও বিত্তশালীরা এগিয়ে এলে দেশে কোনো মানুষ না খেয়ে, বিনা চিকিৎসায় ও শিক্ষার আলো থেকে বঞ্চিত হবেন না।

শাহ আমানত (র.) মাজার শরিফের মুতওয়াল্লি শাহজাদা শরফুদ্দিন মো. শওকত আলী খানের (শাহীন মিয়া) সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি ছিলেন চট্টগ্রাম প্রেস ক্লাবের সভাপতি আলী আব্বাস, মা ও শিশু হাসপাতালের সহ-সভাপতি মো. মোরশেদ, ডা. দীপংকর দে, ডা. নিজাম মোরশেদ চৌধুরী, শাহজাদা সৈয়দ শফিউল আজম ঈছাপুরী।

ওষুধ বিতরণ করেন চসিক মেয়র আ জ ম নাছির উদ্দীন।মো. খোরশেদ আলম চৌধুরীর সঞ্চালনায় অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন সুফি মিজান ফাউন্ডেশনের প্রধান সমন্বয়কারী মো. সোলায়মান।

সুফি মিজানুর রহমান বলেন, চট্টগ্রামের চিকিৎসাসেবাকে এগিয়ে নিতে পিএইচপি ফ্যামিলি সব সময় কাজ করে আসছে। আগামীতেও এ ধারাবাহিকতা অব্যাহত থাকবে। চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ ও হাসপাতাল, আগ্রাবাদ মা ও শিশু হাসপাতাল ছাড়াও চিকিৎসাসেবার জন্য বিশেষভাবে সুফি মিজান ফাউন্ডেশন ক্যাম্প পরিচালনা করছে। চিকিৎসাসেবা জনগণের দোরগোড়ায় পৌঁছে দিতে তিনি সবার প্রতি আহ্বান জানান।

বাংলাদেশ সময়: ১৬৩০ ঘণ্টা, মে ১৬, ২০১৯
এআর/এসি/টিসি

ক্লিক করুন, আরো পড়ুন :   চট্টগ্রাম
        ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন  

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

Alexa
cache_14 2019-05-16 16:36:06