ঢাকা, বুধবার, ৬ আষাঢ় ১৪২৬, ১৯ জুন ২০১৯
bangla news

ছদ্মবেশে গরুর মাংসের দোকানে ইউএনও!

সিনিয়র করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০১৯-০৫-০৯ ১:৫৬:১৫ পিএম
ছদ্মবেশে গরুর মাংসের দোকানে ইউএনও!

ছদ্মবেশে গরুর মাংসের দোকানে ইউএনও!

চট্টগ্রাম: ‘গরুর মাংসের এক দাম, কেজি ৭০০ টাকা।’ ‘আপনাকে ৫০ টাকা সম্মান করবো, ৬৫০ টাকা রাখবো।’

বৃহস্পতিবার (৯ মে) হাটহাজারী উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) মো. রুহুল আমিন ছদ্মবেশে গরুর মাংস কিনতে গেলে এভাবেই দুইজন বিক্রেতা দাম জানান।

এরপর ছদ্মবেশ খুলে ফেলেন ইউএনও। ততক্ষণে সব মাংস বিক্রেতার চোখ কপালে উঠে গেছে। মুহূর্তেই কমিয়ে দিলেন মাংসের দাম।

এখানেই শেষ নয়, বেশি দামে মাংস বিক্রি করায় ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনা করে তিনজনকে আটক করা হয়। এর মধ্যে একজনের কাছ থেকে মুচলেকাসহ ১০ হাজার টাকা জরিমানা করে ছেড়ে দেওয়া হয়েছে। দুইজন পুলিশের কাছে আটক রয়েছেন।

ইউএনও রুহুল আমিন বাংলানিউজকে বলেন, রমজানে বাড়তি চাহিদাকে পুঁজি করে গরুর মাংসের দাম বেশি নেওয়া হচ্ছে এমন খবর পেয়ে ছদ্মবেশে অভিযান চালাই হাটহাজারী বাসস্ট্যান্ড ও বাজারের বিভিন্ন মাংসের দোকানে। তিন দিন  আগে তাদের সঙ্গে বৈঠকে সিদ্ধান্ত হয়েছিল ৫০০ থেকে ৫৭০ টাকায় মান ভেদে মাংস বিক্রি করবেন। কিন্তু বাস্তবে তারা কথা রাখেনি। তাই আইনের কঠোর প্রয়োগ ছাড়া বিকল্প নেই।

বাংলাদেশ সময়: ১৩৫১ ঘণ্টা, মে ০৯, ২০১৯
এআর/টিসি

 

ক্লিক করুন, আরো পড়ুন :   চট্টগ্রাম ভ্রাম্যমাণ আদালত
        ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন  

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

Alexa
cache_14 2019-05-09 13:56:15