ঢাকা, রবিবার, ৮ বৈশাখ ১৪২৬, ২১ এপ্রিল ২০১৯
bangla news

১ম জাতীয় বায়োটেকনোলজি সামার স্কুল সম্পন্ন

নিউজ ডেস্ক | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০১৯-০৩-২৪ ৯:২৬:১২ পিএম
১ম জাতীয় বায়োটেকনোলজি সামার স্কুল সম্পন্ন

১ম জাতীয় বায়োটেকনোলজি সামার স্কুল সম্পন্ন

চট্টগ্রাম: আন্তর্জাতিকমানের উদ্ভাবন, গবেষণার পরিমান বৃদ্ধি আর ইতিবাচক নেতৃত্ব তৈরির প্রত্যাশায় চট্টগ্রামে অনুষ্ঠিত হলো প্রথম জাতীয় বায়োটেকনোলজি সামার স্কুল ২০১৯।

ইয়ং বায়োটেকনোলজিস্ট অব বাংলাদেশ এবং ন্যাশনাল ইন্সটিটিউট অব বায়োটেকনোলজি’র আয়োজনে এ সামার স্কুলে অংশ নেয় দেশের ২৭ টি বিশ্ববিদ্যালয়ের জীবপ্রযুক্তির শীর্ষ শিক্ষার্থীরা এবং ২৫ টি প্রতিষ্ঠানের গবেষক, বিজ্ঞানী, কর্পোরেট, মিডিয়া ব্যক্তিত্ব, শিক্ষক, সংগঠক, চিকিৎসক এবং উদ্যোক্তা।

চট্টগ্রামের মাটিটা এডভেঞ্চার পার্কে অনুষ্ঠিত এ আয়োজনের উদ্বোধন করেন স্বাধীনতা পদকপ্রাপ্ত বিজ্ঞানী ও ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক অধ্যাপক হাসিনা খান। প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন ইউএসটিসি’র উপাচার্য অধ্যাপক নুরুল আবসার। 

বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রাণ রসায়ন বিভাগের চেয়ারম্যান অধ্যাপক জেবা ইসলাম সেরাজ এবং চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের জেনেটিক ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগের অধ্যাপক মোহাম্মদ আল ফোরকান। 

বিভিন্ন পর্বে প্রশিক্ষক হিসেবে ছিলেন অধ্যাপক হাসিনা খান, অধ্যাপক জেবা ইসলাম সেরাজ, ন্যাশনাল ইন্সটিটিউট অব বায়োটেকনোলজির মহাপরিচালক ড. সলিমুল্লাহ খান, জেএমআই নিপ্রো ফার্মাসিউটিকালসের সিইও মিজানুর রহমান, হেলথ কেয়ার ফার্মাসিউটিকালসের বায়োটেক রিসার্চ এন্ড ডেভেলপমেন্ট বিভাগের প্রধান ড. মুনিয়া আমিন, ভেটেরিনারি বিশ্ববিদ্যালয়ের অধ্যাপক জোনায়েদ সিদ্দিকি, অক্সফোর্ড বিশ্ববিদ্যালয়ের গবেষক ড. মুশতাক ইবনে আইয়ুব, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক ড. এস এম মাহবুবুর রশিদ, চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক ড. আদনান মান্নান ও এনআইবিএর বৈজ্ঞানিক কর্মকর্তা উজ্জ্বল হোসেন।

১ম জাতীয় বায়োটেকনোলজি সামার স্কুল সম্পন্ন এছাড়া ইউডার শিক্ষক আরিফ খান, বিওয়াইএলসির প্রশিক্ষক মুনিরা সুলতানা, তরুন গবেষক মাহবুব হাসান, মাহামুদুল হাসান, আব্দুল্লাহ আল জুবায়ের, ইনসেপটা ফার্মাসিউটিকালসের বিজ্ঞানী মাহমুদ আল রাফাত, বায়টেক কন্সার্নের উদ্যোক্তা ইখতিয়ার জাহিদ, ভার্চুয়াল ল্যাব টুরে ছিলেন কানাডার ব্রিটিশ কলম্বিয়া বিশ্ববিদ্যালয়ের রাশেদুল ইসলাম রনি এবং জাপানের কিয়ুশু বিশ্ববিদ্যালয়ের ড. রাসেল দাশ। 

নেতৃত্ব, প্রেসেন্টেশন, বিদেশে উচ্চশিক্ষা, টাইম ম্যানেজমেন্ট, বিকল্প ক্যারিয়ার, জিনোম সিকুয়েন্সিং, পরিবেশ বিপর্যয় রোধে বায়োটেকনোলজির ব্যবহার, ভেটেরিনারি ও কৃষি ক্ষেত্রে জিবপ্রযুক্তির ব্যবহার, কম্পিউটেশনাল বায়োলজি, ফার্মাসিউটিকাল প্রতিষ্ঠানে কাজের প্রস্তুতি বিষয়ে প্রশিক্ষন প্রদান করা হয়।  এছাড়াও ছিলো নৌকা ভ্রমন, জিপলাইন ক্রস, ফুসবল, আর্চারি, ট্রেকিং এবং ক্যাম্প ফায়ার।
 
সেরা ক্যাম্প অংশগ্রহণকারী নির্বাচিত হয় ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের মাহমুদা কবির শাওন এবং চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের আল শাহরিয়ার আকাশ। সেরা আইডিয়া উপস্থাপক নির্বাচিত হয় খুলনা বিশ্ববিদ্যালয়ের রাহাগির সালেহিন, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের অনিন্দিতা বড়ুয়া এবং জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের শাকিল আহমেদ পলাশ। 

সমাপনী অনুষ্ঠানে পুরস্কার বিতরণ করেন বিজ্ঞানী ও গবেষক ড. মোহাম্মদ সলিমুল্লাহ, চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজের সাবেক অধ্যক্ষ ডা. ইমরান বিন ইউনুস, চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের জেনেটিক ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগের প্রধান ড. এস এম রফিকুল ইসলাম, বাংলাদেশ এসোসিয়েশন অফ বায়োটেকনোলজি গ্রাজেয়েটের সাধারণ সম্পাদক অধ্যাপক শাহেদুর রহমান। 

আয়োজনে রেডিও পার্টনার ছিলো রেডিও ফুর্তি, হস্পিটালিটি পার্টনার ছিল মাটিটা এবং সহযোগিতায় ছিলো ইনভেন্ট টেকনোলজিস, বায়োটেক কন্সার্ন, মার্স সায়েন্টিফিক ও মেকামাইন্ড।

বাংলাদেশ সময়: ২১২০ ঘণ্টা, মার্চ ২৪, ২০১৯
জেইউ/টিসি

ক্লিক করুন, আরো পড়ুন :   চট্টগ্রাম
        ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন  

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

Alexa
cache_14