bangla news

দুই সপ্তাহের পোড়া তেল দিয়ে ফুচকা তৈরি!

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০১৯-০৩-১৬ ৩:১২:০১ পিএম
অভিযানে নেতৃত্ব দেন মো. রুহুল আমিন। ছবি: বাংলানিউজ

অভিযানে নেতৃত্ব দেন মো. রুহুল আমিন। ছবি: বাংলানিউজ

চট্টগ্রাম: হাটহাজারী পৌরসভার মাটিয়া মসজিদ এলাকায় ফুচকার পাপড়ি তৈরির কারখানায় অভিযান চালিয়েছে উপজেলা প্রশাসন। এ সময় দুই সপ্তাহ আগের পোড়া তেল দিয়ে ফুচকার পাপড়ি ভাজায় কারখানা মালিককে ৫ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়।

শনিবার (১৬ মার্চ) দুপুরে উপজেলা নির্বাহী অফিসার (ইউএনও) মো. রুহুল আমিনের নেতৃত্বে স্থানীয় জাকিরের কারখানায় এ অভিযান পরিচালিত হয়।

মো. রুহুল আমিন বাংলানিউজকে জানান, ভেজাল বিরোধী নিয়মিত অভিযানের অংশ হিসেবে পৌরসভার ৭ নং ওয়ার্ডে একটি ফুচকার পাপড়ি তৈরির কারখানায় অভিযান পরিচালনা করি। এ সময় নোংরা পরিবেশে ফুচকার খামির তৈরি এবং মানবদেহের জন্য ক্ষতিকর পোড়া তেল দিয়ে ফুচকার পাপড়ি ভাজার অপরাধে কারখানা মালিককে ৫ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়।

তিনি বলেন, কারখানার মালিক স্বীকার করেছেন- মোবিল সদৃশ পোড়া তেলগুলো প্রায় দুই সপ্তাহ আগের। ফুচকার পাপড়ি ভাজার পর ফুলে থাকার জন্যই এসব ব্যবহার অনুপযোগী তেল ব্যবহার করা হয়। যেহেতু পোড়া তেল মানবদেহের জন্য ক্ষতিকর তাই ওই কারখানার প্রায় ২০ লিটার পোড়া তেল নষ্ট করা হয়েছে।

এক প্রশ্নের উত্তরে মো. রুহুল আমিন জানান, জাকিরের কারখানাসহ এ এলাকার কয়েকটি কারখানা থেকেই চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয় এবং হাটহাজারীর বিভিন্ন এলাকায় ফুচকা তৈরির পাপড়ি সরবরাহ করা হয়। এসব পাপড়ির ভেতরেই মসলামিশ্রিত আলুসেদ্ধ দিয়ে তৈরি পুর এবং টকজল দিয়ে ফুচকা পরিবেশন করা হয়। যা খেয়ে ডায়রিয়াসহ নানা রোগে আক্রান্ত হচ্ছে মানুষ।

বাংলাদেশ সময়: ১৫১০ ঘণ্টা, মার্চ ১৬, ২০১৯
এমআর/টিসি

        ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন  

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

Alexa
cache_14 2019-03-16 15:12:01