ঢাকা, শুক্রবার, ৭ ভাদ্র ১৪২৬, ২৩ আগস্ট ২০১৯
bangla news

চবিতে ছাত্রলীগের দুইপক্ষের সংঘর্ষে আহত ১৫

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০১৯-০২-২৩ ৩:১০:১৯ পিএম
গোলাম রসুল নিশান

গোলাম রসুল নিশান

চট্টগ্রাম: ছাত্রলীগ নেতা গোলাম রসুল নিশানকে অপহরণের ঘটনায় চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ে (চবি) সংঘর্ষে জড়িয়েছে সংগঠনটির দুই পক্ষের নেতা-কর্মীরা।

শুক্রবার (২২ ফেব্রুয়ারি) রাত ১১টার দিকে একটি বিয়ের অনুষ্ঠান থেকে ফেরার সময় লালখান বাজার মোড় থেকে নিশানকে অপহরণ করা হয় বলে অভিযোগ করেন তার সমর্থকরা। পরে রাত ১টার দিকে টাইগারপাস এলাকার পাহাড় থেকে তাকে উদ্ধার করে চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ (চমেক) হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।

গোলাম রসুল নিশান চবি ছাত্রলীগের বিলুপ্ত কমিটির সহ সভাপতি ও ‘উল্কা’ গ্রুপের সমর্থক।

নিশানকে অপহরণের খবরে রাতে বিশ্ববিদ্যালয়ের এক নম্বর গেট ও জিরো পয়েন্টে অবরোধ করে তার অনুসারীরা। সড়কে আগুন জ্বালিয়ে তারা বিক্ষোভ করেন। একপর্যায়ে ‘সিক্সটি নাইন’ গ্রুপের নেতা-কর্মীরা সেখানে গেলে উভয় পক্ষ সংঘর্ষ ও ভাঙচুরে লিপ্ত হয়। এতে আহত হয় উভয় পক্ষের ১৫ জন কর্মী।

সড়কে আগুন জ্বালিয়ে বিক্ষোভ করেন ছাত্রলীগ কর্মীরা।আহতদের মধ্যে ২০১৩-১৪ শিক্ষাবর্ষের মিলন, ২০১৪-১৫ শিক্ষাবর্ষের  শামীম, ২০১৫-১৬ শিক্ষাবর্ষের ধ্রুব ও আনিস, ২০১৬-১৭ শিক্ষাবর্ষের মাহমুদুল ইসলাম, মামুন ইসলাম ও সাদ্দাম হোসেন, ২০১৭-১৮ শিক্ষাবর্ষের অর্ণব ইসলাম, আরবি বিভাগের ইমাম, ২০১৮-১৯ শিক্ষাবর্ষের অভয় ও সৌরভ তালুকদার এর নাম জানা গেছে। তাদের কয়েকজনকে চমেক হাসপাতালে পাঠানো হয়।

উল্কা গ্রুপের নেতা সুমন খানের অভিযোগ, ‘সাবেক সভাপতি আলমগীর টিপুর বিয়ের অনুষ্ঠান ছিল ইঞ্জিনিয়ার্স ইন্সটিটিউটে। সেখান থেকে ফেরার সময় সহ সভাপতি মনসুর আলম, উপ গ্রন্থনা ও প্রকাশনা বিষয়ক সম্পাদক ইকবাল টিপু এবং যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক আবু তোরাব পরশের ইন্ধনে গোলাম রসুলকে অপহরণ করার ঘটনায় এ সংঘর্ষ হয়।

তবে মনসুর আলম এ অভিযোগ অস্বীকার করেছেন। তিনি বলেন, ‘গোলাম রসুল নিশানকে অপহরণের ঘটনায় আমাদের কোন নেতা-কর্মী জড়িত ছিল না। তাকে অপহরণের বিষয়টি ফেসবুকের মাধ্যমে জেনেছি। প্রতিহিংসাপরায়ণ হয়ে তারা এ ধরণের অভিযোগ করছে।’

বাংলাদেশ সময়: ১৫০০ ঘণ্টা, ফেব্রুয়ারি ২৩, ২০১৯
এসি/টিসি

        ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন  

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

Alexa
cache_14 2019-02-23 15:10:19