[x]
[x]
ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ৯ ফাল্গুন ১৪২৫, ২১ ফেব্রুয়ারি ২০১৯
bangla news

আমদানিতে ‘পিএপি’, কমবে সময় ও ব্যয়

সিনিয়র করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০১৯-০১-২০ ১০:৪৩:৫২ পিএম
বক্তব্য দেন জাতীয় রাজস্ব বোর্ডের (এনবিআর) সদস্য আমিনুর রহমান

বক্তব্য দেন জাতীয় রাজস্ব বোর্ডের (এনবিআর) সদস্য আমিনুর রহমান

চট্টগ্রাম: শুল্কায়নসহ আমদানি-রফতানি কার্যক্রমে আমূল পরিবর্তন আসছে জানিয়ে জাতীয় রাজস্ব বোর্ডের (এনবিআর) সদস্য আমিনুর রহমান বলেছেন, আগামী ১ জুলাই থেকে প্রি অ্যারাইভেল প্রসেসিং (পিএপি) চালু করবো। ইমপোর্ট জেনারেল ম্যানিফেস্ট (আইজিএম), বিল অব এন্ট্রির বর্তমান সিস্টেম হয়তো থাকবে না। পোর্ট অব কল থেকে জাহাজ ছাড়া মাত্র আইজিএম দাখিল করতে হবে।

রোববার (২০ জানুয়ারি) চট্টগ্রাম কাস্টম হাউসের সম্মেলন কক্ষে কাস্টম বিভাগের আধুনিকায়নে বাস্তবায়িত ও বাস্তবায়নাধীন বিভিন্ন কমপোনেন্ট বিষয়ে সচেতনতামূলক কর্মশালার উদ্বোধনকালে তিনি এ তথ্য জানান।

কর্মশালায় বিশেষ অতিথি ছিলেন ইএসএআইডি-বাংলাদেশ ট্রেড ফ্যাসিলিটেশন অ্যাক্টিভিটি’র টিম লিডার মো. নাসির উদ্দিন। সভাপতিত্ব করেন কাস্টম হাউসের কমিশনার ড. একেএম নুরুজ্জামান।

নতুন উদ্যোগকে কাস্টম হাউসের স্টেকহোল্ডাররা স্বাগত জানিয়েছেন। চট্টগ্রাম কাস্টম হাউস সিঅ্যান্ডএফ এজেন্ট অ্যাসোসিয়েশনের সাধারণ সম্পাদক মো. আলতাফ হোসেন বাচ্চু বাংলানিউজকে জানান, বর্তমানে আমদানি পণ্যভর্তি জাহাজ চট্টগ্রাম বন্দরে পৌঁছার পর আইজিএম ও বিল অব এন্ট্রি দাখিলের সিস্টেম রয়েছে। যদি বিদেশি বন্দর থেকে যাত্রা শুরুর পর আইজিএম দাখিল করা হয় তবে ৫-৭ দিন খালাস প্রক্রিয়া এগিয়ে যাবে। এতে কস্ট অব ডুয়িং বিজনেস কমবে। বিশেষ করে বিভিন্ন ধরনের ডেমারেজ থাকবে না। নতুন পদ্ধতি বাস্তবায়নে ব্যবসায়ীদের পাশাপাশি কাস্টম কর্মকর্তাদের সহযোগিতার মনোভাব নিয়ে এগিয়ে আসতে হবে।

সূত্র জানায়, এনবিআর ও ইউএসএআইডির উদ্যোগে দুই ধাপে সাড়ে ৫ বছরে ২ হাজার ৪০০ কোটি টাকার সাসটেইনেবল ট্রেড ফ্যাসিলিটেশন প্রকল্প বাস্তবায়িত হচ্ছে। এতে ১৩টি কমপোনেন্ট বাস্তবায়িত হচ্ছে। ২০১৩ সালে কাজ শুরু হয়। আগামী মার্চে প্রকল্পের কাজ শেষ হওয়ার কথা রয়েছে।

আমদানি-রফতানি প্রক্রিয়া সহজ করা, সময় ও ব্যয় কমানো, অটোমেশন এবং বাণিজ্য গতিশীল করতে এ উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে। ইতিমধ্যে কাস্টম ওয়েবসাইট, ন্যাশনাল এন্ট্রি পয়েন্ট (এনইপি), অ্যাডভান্স রুলিং, কাস্টমস ই-অকশন, পোস্ট ক্লিয়ারেন্স অডিট (পিসিএ) ইত্যাদি বাস্তবায়িত হয়েছে। চালু হয়েছে অ্যাসাইকুডা ওয়ার্ল্ড সিস্টেমও। কাজ চলছে এক্সপেডিটেড শিপমেন্ট, রিস্ক ম্যানেজমেন্ট এবং পিএপি’র।

বাংলাদেশ সময়: ১০৩৫ ঘণ্টা, জানুয়ারি ২০, ২০১৯
এআর/টিসি

ক্লিক করুন, আরো পড়ুন :   চট্টগ্রাম চট্টগ্রাম বন্দর
        ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন  

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

Alexa
cache