bangla news

হাইটেক পার্কের জমি পরিদর্শন করলেন প্রযুক্তিমন্ত্রী

সিনিয়র করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০১৯-০১-১৮ ১:১০:৫৯ পিএম
হাইটেক পার্ক নির্মাণের জায়গা পরিদর্শন করেন মন্ত্রী মোস্তফা জব্বার। ছবি: সোহেল সরওয়ার

হাইটেক পার্ক নির্মাণের জায়গা পরিদর্শন করেন মন্ত্রী মোস্তফা জব্বার। ছবি: সোহেল সরওয়ার

চট্টগ্রাম: সীতাকুণ্ড, বহদ্দারহাট ও চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ে হাইটেক পার্ক নির্মিত হলে প্রযুক্তিনির্ভর কর্মসংস্থান সৃষ্টির পাশাপাশি আইসিটি বিশ্বে বাংলাদেশের আয় বাড়ার সুযোগ তৈরি হবে বলে মন্তব্য করেছেন ডাক, টেলিযোগাযোগ ও তথ্যপ্রযুক্তি মন্ত্রী মোস্তফা জব্বার।

শুক্রবার (১৮ জানুয়ারি) চান্দগাঁও বিসিক শিল্প এলাকায় হাইটেক পার্ক নির্মাণের জন্য চট্টগ্রাম সিটি করপোরেশনের প্রস্তাবিত জমি পরিদর্শনকালে মন্ত্রী এ মন্তব্য করেন।

সকালে চট্টগ্রাম সার্কিট হাউস থেকে মন্ত্রীকে নিয়ে সিটি মেয়র আ জ ম নাছির উদ্দীন চান্দগাঁও বিসিক শিল্প এলাকা এফআইডিসি রোড সংলগ্ন চসিকের নিজস্ব জমি পরিদর্শনে যান।

এ সময় ডাক, টেলিযোগাযোগ ও তথ্যপ্রযুক্তি মন্ত্রণালয়ের সিনিয়র সচিব শ্যামসুন্দর সিকদার, প্রযুক্তিমন্ত্রীর একান্ত সচিব খোরশেদ আলম খান, প্রকল্প পরিচালক গৌরি শংকর ভট্টচার্য্য, সহকারী প্রকল্প পরিচালক মো. কামরুল ইসলাম ও চসিকের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা মো. সামসুদ্দোহা, প্রধান রাজস্ব কর্মকতা মোহাম্মদ আবু শাহেদ চৌধুরী, প্রধান প্রকৌশলী লে. কর্নেল মহিউদ্দিন আহমদ, হ্যালো ওয়ার্ল্ড’র ব্যবস্থাপনা পরিচালক মিজবাহ উদ্দিন চৌধুরী প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন। 

সিটি মেয়র আ জ ম নাছির উদ্দীন বলেন, হাইটেক পার্কের জন্য চসিকের নিজস্ব জমি পার্ক কর্তৃপক্ষকে দেওয়া হচ্ছে। এ ছাড়া আগ্রাবাদে চসিকের নিজস্ব একটি মার্কেট ঊর্ধ্বমুখী সম্প্রসারণ করা হচ্ছে, যেখানে ষষ্ঠ থেকে দশম তলা পর্যন্ত ফ্লোরে হাইটেক পার্ক নির্মাণ করবে কর্তৃপক্ষ।

মন্ত্রী জায়গাটি হাইটেক পার্কের জন্য উপযোগী মন্তব্য করে জরুরি ভিত্তিতে কর্মপরিকল্পনা ঠিক করে কাজ শুরুর নির্দেশ দেন হাইটেক পার্ক-১২ এর প্রকল্প পরিচালক ইঞ্জিনিয়ার এমজি মোস্তাফাকে।

চট্টগ্রামে ৩টিসহ সারাদেশে ২৮টি হাইটেক পার্ক স্থাপনের উদ্যোগ বাস্তবায়ন করতে যাচ্ছে বাংলাদেশ হাইটেক পার্ক কর্তৃপক্ষ। ইতোমধ্যে গাজীপুর, যশোর, ঢাকার কাওরান বাজারে হাইটেক পার্ক নির্মাণকাজ সম্পন্ন হয়েছে।

বাংলাদেশ সময়: ১৩০০ ঘণ্টা, জানুয়ারি ১৮, ২০১৯
এআর/এসি/টিসি

ক্লিক করুন, আরো পড়ুন :   চট্টগ্রাম
        ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন  

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

Alexa
cache_14 2019-01-18 13:10:59