ঢাকা, বুধবার, ১ শ্রাবণ ১৪২৬, ১৭ জুলাই ২০১৯
bangla news

হত্যার উদ্দেশ্যে হামলা, অভিযোগ ইবরাহিমের

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০১৮-১২-২৩ ৭:৪২:৫২ পিএম
সংবাদ সম্মেলনে বক্তব্য দেন সৈয়দ মুহাম্মদ ইবরাহিম।

সংবাদ সম্মেলনে বক্তব্য দেন সৈয়দ মুহাম্মদ ইবরাহিম।

চট্টগ্রাম: ধানের শীষ প্রতীকের প্রার্থীসহ নেতাকর্মীদের উপর হত্যার উদ্দেশ্যে হামলা করা হয়েছে বলে অভিযোগ করেছেন চট্টগ্রাম-৫ (হাটহাজারী) আসনে ধানের শীষ প্রতীকের প্রার্থী মেজর জেনারেল (অব.) সৈয়দ মুহাম্মদ ইবরাহিম।

রোববার (২৩ ডিসেম্বর) সন্ধ্যায় চট্টগ্রাম প্রেসক্লাবে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে এমন অভিযোগ করেন তিনি।

সংবাদ সম্মেলনে হাটহাজারী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তার (ওসি) প্রত্যাহারও দাবি করেন মেজর জেনারেল (অব.) সৈয়দ মুহাম্মদ ইবরাহিম।

তিনি অভিযোগ করে বলেন, ‘ফতেপুর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মোহাম্মদ শামীমের ভাই মো. সেলিম ও ছাত্রলীগ নেতা শাহ আলমের নেতৃত্বে ১০-১২ জন যুবক চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের ১ নম্বর গেইটের উত্তর পাশে আমাদের গাড়িবহরে হামলা করে।’

সৈয়দ মুহাম্মদ ইবরাহিম বলেন, ‘হামলাকারীরা প্রথমে হত্যার উদ্দেশ্যে আমাকে গাড়ি থেকে নামানোর চেষ্টা করে। পরে গাড়ি থেকে নামাতে না পেরে আমাকে লক্ষ্য করে ইট ও পাথর ছুঁড়ে মারে। এ সময় আমার সঙ্গে থাকা চিকনদণ্ডী ইউনিয়ন বিএনপির সভাপতি সৈয়দ মুহাম্মদ মহসিন, আমার গাড়িচালক সুমন নাথ ও আমি আহত হই।’

হামলায় আহত সৈয়দ মুহাম্মদ মহসিন

তিনি অভিযোগ করেন, ‘হামলাকারীরা আমাদের উপর হামলা করে উল্টো হাটহাজারী থানায় আমাদের বিরুদ্ধে মামলা করতে গেছে।’

হাটহাজারী থানার ওসি বেলাল উদ্দিন মো. জাহাঙ্গীরের প্রত্যাহার দাবি করে কল্যাণ পার্টির চেয়ারম্যান বলেন, ‘হাটহাজারী থানা পুলিশ ধানের শীষের পক্ষের নেতাকর্মীদের গ্রেফতার করে গায়েবী মামলা দিচ্ছে। বাড়িতে বাড়িতে গিয়ে তল্লাশীর নামে হুমকি দিচ্ছে। ছিফাতলী ইউনিয়নে আমাদের নির্বাচনী প্রচারণায় হামলা হয়েছে দুইবার, গড়দুয়ারা এলাকায়ও হামলা করা হয়েছে। আমাদের পোস্টার ছিঁড়ে ফেলছে। তাদের বিরুদ্ধে কোনো ব্যবস্থা না নিয়ে পুলিশ উল্টো আমাদের নেতাকর্মীদের হয়রানি করছে।’

এর আগে বিকেল ৩টার দিকে চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের ১ নম্বর গেইটের উত্তর পাশে সৈয়দ মুহাম্মদ ইবরাহিমের গাড়িবহরে হামলার অভিযোগ উঠে। হামলায় তিনজন আহত ও সৈয়দ মুহাম্মদ ইবরাহিমের ব্যক্তিগত গাড়ি ও প্রচারণার গাড়ি ক্ষতিগ্রস্ত হয় বলে দাবি সৈয়দ মুহাম্মদ ইবরাহিমের।

সংবাদ সম্মেলনে হাটহাজারী উপজেলা বিএনপির সদস্য সচিব সোলাইমান মনজু, জেলা যুবদলের সহ-সভাপতি গিয়াস উদ্দিন, সহ-সাধারণ সম্পাদক মো. ইয়াছিন মিয়া উপস্থিত ছিলেন।

বাংলাদেশ সময়: ১৯২৩ ঘণ্টা, ডিসেম্বর ২৩, ২০১৮
এসকে/টিসি

        ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন  

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

Alexa
cache_14 2018-12-23 19:42:52