ঢাকা, রবিবার, ২ আষাঢ় ১৪২৬, ১৬ জুন ২০১৯
bangla news

‘ব্যবসায়ীকে অপহরণ, উদ্ধার করলো সিটিটিসি’

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০১৮-১২-০২ ৩:৪৫:৪৬ পিএম
সিটিটিসি'র মহড়া। ছবি: সোহেল সরওয়ার

সিটিটিসি'র মহড়া। ছবি: সোহেল সরওয়ার

চট্টগ্রাম: ‘একজন ভিআইপি ব্যবসায়ীকে জিম্মি করেছে সন্ত্রাসীরা। খবর পেয়ে সেখানে ছুটে যায় চট্টগ্রাম মেট্রোপলিটন পুলিশের কাউন্টার টেরোরিজম অ্যান্ড ট্রান্সন্যাশনাল ক্রাইম (সিটিটিসি) ইউনিট। আধা ঘণ্টার চেষ্টায় সেই ব্যবসায়ীকে উদ্ধার করে তারা।’

এ ঘটনা সত্য না হলেও এমনটাই দেখানো হয়েছে সিএমপির সদ্য যাত্রা শুরু করা কাউন্টার টেরোরিজম ইউনিটের মহড়ায়।

রোববার (২ ডিসেম্বর) সকালে দামপাড়া পুলিশ লাইন্সের মাঠে এ মহড়া অনুষ্ঠিত হয়।

মহড়ায় দেখানো হয়, ব্যবসায়ীকে উদ্ধার করে সেখানে থাকা বোমা নিষ্ক্রিয় করে কাউন্টার টেরোরিজম ইউনিটের সদস্যরা। ঘটনাস্থল থেকে দুই সন্ত্রাসীকেও আটক করে তারা।

গত ২৭ নভেম্বর আনুষ্ঠানিক যাত্রা শুরু করে সিএমপির কাউন্টার টেরোরিজম ইউনিট। সিএমপির উপ-পুলিশ কমিশনার মোহাম্মদ শহীদুল্লাহ এ ইউনিটের প্রধান হিসেবে দায়িত্ব পান।

সিটিটিসি’র মহড়া। ছবি: সোহেল সরওয়ারমহড়া শেষে ব্রিফিং করেন সিএমপি কমিশনার মো. মাহাবুবর রহমান। তিনি বলেন, আমরা অনেক কষ্টে বোমা নিষ্ক্রিয়করণ সরঞ্জামগুলো সংগ্রহ করেছি ঢাকা সেন্ট্রাল কাউন্টার টেরোরিজম ইউনিট ও বিদেশ থেকে। আমরা এখন পুরোপুরি সক্ষম যেকোনও ঘটনা, অপরাধমূলক কর্মকাণ্ড সামাল দিতে।

মো. মাহাবুবর রহমান বলেন, ভিকটিম উদ্ধার থেকে শুরু করে সব ধরনের দুর্ঘটনা মোকাবেলা করতে সক্ষম আমরা। মহড়ায় দেখানো হয়েছে-কীভাবে একজনকে জিম্মি অবস্থা থেকে কাউন্টার টেরোরিজম ইউনিট উদ্ধার করেছে, বোমা নিষ্ক্রিয় করেছে। এরকম ঘটনা যেকোনও সময় ঘটতে পারে।

তিনি বলেন, জঙ্গিবাদ, উগ্রবাদ ও সন্ত্রাসীদের নির্মূল করতে সিএমপির কাউন্টার টেরোরিজম ইউনিট গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখবে। এর মাধ্যমে নগরে জঙ্গিবাদ ও উগ্রবাদ সৃষ্টিকারী ব্যক্তিদের শনাক্ত করে তাদের আইনের আওতায় আনা সম্ভব হবে।

এসময় উপস্থিত ছিলেন সিএমপির অতিরিক্ত কমিশনার (ট্রাফিক) কুসুম দেওয়ান, অতিরিক্ত কমিশনার (অপরাধ ও অভিযান) আমেনা বেগম, উপ-পুলিশ কমিশনার (সদর) শ্যামল কুমার নাথ, কাউন্টার টেরোরিজম ইউনিট প্রধান মোহাম্মদ শহীদুল্লাহসহ সিএমপির ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা।

বাংলাদেশ সময়: ১৫৪০ ঘণ্টা, ডিসেম্বর ০২, ২০১৮
এসকে/এসি/টিসি

ক্লিক করুন, আরো পড়ুন :   চট্টগ্রাম পুলিশ
        ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন  

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

Alexa
cache_14 2018-12-02 15:45:46