[x]
[x]
ঢাকা, বুধবার, ৮ ফাল্গুন ১৪২৫, ২০ ফেব্রুয়ারি ২০১৯
bangla news

মেয়েদের নিরাপদ চলাচলে সিআইইউ’র তিন শিক্ষার্থীর আইডিয়া

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০১৮-১০-২৬ ৮:২৪:২৭ পিএম
মেয়েদের নিরাপদ চলাচলে সিআইইউ’র তিন শিক্ষার্থীর আইডিয়া

মেয়েদের নিরাপদ চলাচলে সিআইইউ’র তিন শিক্ষার্থীর আইডিয়া

চট্টগ্রাম: শহরের বাসগুলোতে চলাচল করতে গিয়ে মেয়েদের প্রতিদিনই নানা ধরনের হয়রানির মুখোমুখি হতে হচ্ছে। বিশেষ করে কর্মজীবী নারী কিংবা বিশ্ববিদ্যালয় পড়ুয়া ছাত্রীদের। বিষয়টি নিয়ে একদিকে যেমন উদ্বেগ লেগেই আছে, তেমনি দুশ্চিন্তায় বাড়ছে আমাদের মধ্যবিত্ত পরিবারেও।

চিটাগং ইন্ডিপেন্ডেন্ট ইউনিভার্সিটির (সিআইইউর) তিন মেধাবী শিক্ষার্থী মেয়েদের নিরাপদে বাড়ি ফিরতে তুলে ধরলেন চমৎকার এক আইডিয়া।

মোবাইল নেটওয়ার্কের মাধ্যমেই এখন জানা যাবে পরিবারের নারী সদস্যের গাড়ির অবস্থান। দেখা যাবে গাড়ির ভেতরের নানা চিত্রও।

সম্প্রতি আন্তবিশ্ববিদ্যালয় বিজনেস প্লেন কমপিটিশনে এই আইডিয়াটি উপস্থাপন করে শিক্ষার্থীরা জিতে নিয়েছেন রানার্সআপের পুরস্কার। নজর কেড়েছেন হলভর্তি দর্শকদের। প্রশংসা কুড়িয়েছেন বন্ধুমহলেও।

সিআইইউর সেরা তিন এই মেধাবী হলেন-আরাব বিন দিদার চৌধুরী (দলনেতা), মঈনুল ইসলাম ফারহান ও মুশফিকুর রহমান।

নগরের বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয় ইস্ট ডেল্টা ইউনিভার্সিটি তাদের ক্যাম্পাসে ‘ইডিইউ বিজনেস উইক’শিরোনামে এই প্রতিযোগিতার আয়োজন করে।

বিজয়ী দলের সদস্যরা জানান, তারা যে আইডিয়াটি প্রতিযোগিতায় তুলে ধরেন সেটির নাম দিয়েছেন ‘নিরাপদ’। মূলত এটি মেয়েদের বাস চলাচলের উপরই তৈরি করা হয়েছে।

ঘরে বসেই কোনো নারী তার নির্দিষ্ট লক্ষে যাওয়ার জন্য মোবাইলের মাধ্যমে আগাম সিট বুক দিতে পারবেন। গাড়ির ভেতরে তাকে দেখা যাবে স্পষ্টভাবে।

সে কতটুকু পথ যাচ্ছে, কোথায় যাচ্ছে তা জানা যাবে সহজে। আর পুরো প্রক্রিয়াটিতে ব্যবহার করা হবে জিপিএস পদ্ধতি। ডাউনলোড করতে হবে একটি ছোট অ্যাপস। যেটির মাধ্যমে দেখা যাবে সবকিছু।

কীভাবে এলো এমন পরিকল্পনা? জানতে চাইলে দলনেতা আরাব বিন দিদার চৌধুরী (দলনেতা) বলেন, সাম্প্রতিক সময়ে মেয়েদের নিরাপদে বাড়ি ফিরতে গিয়ে অনেকে হয়রানি হচ্ছে। বিষয়টি বিবেচনা করে আমরা একটি অ্যাপসের মাধ্যমে পুরো গাড়ির অবস্থান জানানোর চেষ্টা করেছি।

আরেক সদস্য মঈনুল ইসলাম ফারহান বলেন, কেবল বাড়ি ফেরার বিষয়টি নয়, এর মাধ্যমে মেয়েদের কম খরচে চলাচলের বিষয়টিও নিয়ে আসা হয়েছে। ধরুন শহরের দুই নম্বর গেইট থেকে আগ্রাবাদ যেতে প্রতি কিলোমিটার যে ব্যয় হয়, এখানে তার চেয়ে কম হবে।

এতোক্ষণ দুই বন্ধুর কথা মনোযোগ দিয়ে শুনছিলেন মুশফিকুর রহমান।

তিনি বলেন, প্রাথমিকভাবে আমরা ২৪ সিটের ৫টি মিনি বাস নামানোর সুপারিশ করেছি। সিসিটিভি থাকার কারণে বাড়ির লোকজন সহজেই জানতে পারবেন মেয়েটি কখন বাড়ি ফিরছেন।

এদিকে বিজনেস প্লেন কমপিটিশনে সাফল্য পাওয়ায় বিজয়ীদের অভিনন্দন জানিয়েছেন চিটাগং ইন্ডিপেন্ডেন্ট ইউনিভার্সিটির উপাচার্য অধ্যাপক ড. মাহফুজুল হক চৌধুরী।

তিনি বলেছেন, তরুণদের এই ধরনের আইডিয়ার বাস্তবায়ন হলে বদলে যাবে এদেশের সমাজের চিত্র। তাদেরকে উৎসাহিত করার পাশাপাশি অনেক বেশি পৃষ্ঠপোষকতা করার উদ্যোগ নিতে হবে আমাদের সকলের।

বাংলাদেশ সময়: ২০১০ ঘণ্টা, অক্টোবর ২৬, ২০১৮
এসবি/টিসি

        ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন  

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

Alexa
cache_14