[x]
[x]
ঢাকা, মঙ্গলবার, ৭ কার্তিক ১৪২৫, ২৩ অক্টোবর ২০১৮
bangla news

সিআইইউতে লেবার কোর্ট নিয়ে কর্মশালা

চট্টগ্রাম প্রতিদিন ডেস্ক | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০১৮-১০-০৯ ৮:৫০:১০ পিএম
সিআইইউতে লেবার কোর্ট নিয়ে কর্মশালায় অতিথিরা

সিআইইউতে লেবার কোর্ট নিয়ে কর্মশালায় অতিথিরা

চট্টগ্রাম: উচ্চশিক্ষার পাঠ চুকিয়ে সবাইকে ভালো চাকরির খোঁজ করতে হয়। একসময় কমবেশি সবাই ছোটখাটো একটা চাকরিও পেয়ে যায়। কিন্তু হঠাৎ করে যখন জানলেন আপনার শ্রমের মূল্য দিতে গিয়ে কেউ একজন আপনাকে দিনের পর দিন ঠকাচ্ছে, তখন নিশ্চয় নিজেকে খুব অসহায় মনে হয়?

লেবার কোর্ট বা শ্রম আদালতের নানা খুটিনাটি দিক নিয়ে চিটাগং ইনডিপেনডেন্ট ইউনিভার্সিটিতে (সিআইইউতে) অনুষ্ঠিত হলো শ্রম অধিকার বিষয়ক জমজমাট কর্মশালা।

মঙ্গলবার (০৯ অক্টোবর) বিকেলে নগরের জামালখানে সিআইইউ ক্যাম্পাসের অডিটোরিয়ামে স্কুল অব ল এ কর্মশালার আয়োজন করে।

এতে আইন বিভাগের শিক্ষার্থীরা ছাড়াও চট্টগ্রামের ফাস্ট লেবার কোর্টের চেয়ারম্যান, বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য, আইন বিভাগের শিক্ষক ও শ্রম আদালত নিয়ে জানতে আগ্রহীরা উপস্থিত ছিলেন।

কর্মশালার শিরোনাম ছিলো ‘বাংলাদেশে শ্রম আদালতের কাজ: প্রেক্ষিত আইন ও প্রয়োগ’। এতে শ্রম আদালতের ধরণ, বেতনভাতা কাঠামো, বোনাস, প্রশাসনিক কাজের ধারা, বহির্গমন, শারীরিক ও মানসিক কষ্ট, আপোষ, সাপ্তাহিক ছুটি, কর্মক্ষেত্রে নানা প্রতিবন্ধকতা, শ্রমিকদের স্বার্থ রক্ষাসহ একাধিক বিষয় নিয়ে আলোচনা করা হয়।

সিআইইউর আইন বিভাগের শিক্ষার্থীরা কর্মশালায় পুরো বিষয়টি মনোযোগ দিয়ে শুনেন। পরে তারা অতিথির কাছে লেবার কোর্ট নিয়ে তাদের মতামত ও প্রশ্ন তুলে ধরেন।

অনুষ্ঠানে প্রধান বক্তার বক্তব্যে ফাস্ট লেবার কোর্ট চট্টগ্রামের চেয়ারম্যান মো. হেমায়েত উদ্দিন বলেন, শ্রম আদালত সব সময় মানুষের অধিকার নিয়ে কথা বলে। একজন ব্যক্তিকে তার যোগ্যতা অনুসারে সম্মান দেওয়ার চেষ্টা করে।

তিনি আরও বলেন, যারা এই আদালতে আগামি দিনে আইনজীবী কিংবা একজন বিচারক হিসেবে কাজ করবেন, তাদের অবশ্যই মানুষকে হয়রানিমুক্ত করে ন্যায়বিচার পাওয়ার বিষয়টি নিশ্চিত করার মনোভাব রাখতে হবে।

মো. হেমায়েত উদ্দিন লেবার কোর্টের ভালো আইনজীবী হওয়ার কৌশল তুলে ধরতে গিয়ে বলেন, অবশ্যই শ্রমিক, মালিক ও ইউনিয়ন বা সংগঠন সম্পর্কে বিষদ ধারণা রাখতে হবে। বর্তমানে দেশে ৭টি লেবার কোর্ট রয়েছে।

এখানে কেবল শ্রমিকরাই নন, মালিক পক্ষও তাদের অধিকার পাওয়া নিয়ে আদালতের কাছে হাজির হচ্ছেন বলে উল্লেখ করেন ফাস্ট লেবার কোর্ট চট্টগ্রামের চেয়ারম্যান।

প্রধান অতিথির বক্তব্যে সিআইইউর উপাচার্য অধ্যাপক ড. মাহফুজুল হক চৌধুরী বলেন, আইন সাবজেক্টটি যেমন জটিল, তেমনি বেশ মজার। ক্লাসরুমের বাইরে এই ধরনের কর্মশালার মাধ্যমে সরাসরি অভিজ্ঞ একজন আইনের মানুষের কাছ থেকে ধারণা পেয়ে শিক্ষার্থীরা জ্ঞানে আরও সমৃদ্ধ হবেন- এমনটা প্রত্যাশা আমার।

সভাপতির বক্তব্যে সিআইইউর স্কুল অব ল এর কর্ডিনেটর প্রফেসর মো. জাকির হোসাইন বলেন, বাংলাদেশের আইনের প্রচলিত নানা ধারা ও আদালতের বিষয়গুলো সম্পর্কে সরাসরি শিক্ষার্থীদের জানাতে আমরা চালু করেছি ল লেকচার সিরিজ কার্যক্রম। এরই ধারাবাহিকতায় শ্রম আদালত নিয়ে আদ্যোপান্ত তুলে ধরার চেষ্টা করা হয়েছে।

অনুষ্ঠানে শুভেচ্ছা বক্তব্য দেন লেকচারার বাদশা মিয়া। উপস্থিত ছিলেন প্রক্টর প্রফেসর ড. মীর মোহাম্মদ নুরুল আবসার নাহিদ। অনুষ্ঠানে নাজিহার প্রাণবন্ত উপস্থাপনা হলভর্তি দর্শকদের নজর কাড়ে।

বাংলাদেশ সময়: ২০৪০ ঘণ্টা, অক্টোবর ০৯, ২০১৮
এমআর/টিসি

        ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন  

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

Alexa
cache