[x]
[x]
ঢাকা, শুক্রবার, ৪ কার্তিক ১৪২৫, ১৯ অক্টোবর ২০১৮
bangla news

২ বছরের মধ্যে সড়কে শতভাগ কার্পেটিংয়ের আশ্বাস নাছিরের

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০১৮-০৬-১৩ ৯:০৪:৪৪ এএম
আগ্রাবাদ সংযোগ সড়ক ও পোর্ট কানেকটিং সড়কে চলমান উন্নয়ন প্রকল্পের কাজ পরিদর্শনে সিটি মেয়র

আগ্রাবাদ সংযোগ সড়ক ও পোর্ট কানেকটিং সড়কে চলমান উন্নয়ন প্রকল্পের কাজ পরিদর্শনে সিটি মেয়র

চট্টগ্রাম: আগামী ২ বছরের মধ্যে নগরের সকল সড়কে শতভাগ কার্পেটিং বাস্তবায়ন করার আশ্বাস দিয়েছেন চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশনের (চসিক) মেয়র আ জ ম নাছির উদ্দীন।

বুধবার (১৩ জুন) নগরের ব্যস্ততম সড়ক আগ্রাবাদ সংযোগ সড়ক ও পোর্ট কানেকটিং সড়কে চলমান ১৫০ কোটি টাকা উন্নয়ন প্রকল্পের কাজ পরিদর্শনকালে তিনি এসব কথা বলেন।

আ জ ম নাছির উদ্দীন বলেন, চট্টগ্রাম বন্দরের পণ্য পরিবহনে নিমতলা পোর্ট কানেকটিং রোড এবং আগ্রাবাদ এক্সেস রোড গুরুত্বপূর্ণ। এ সড়ক দিয়েই বন্দর থেকে পণ্য বা কন্টেইনারবাহী পরিবহণ ঢাকাসহ দেশের নানাপ্রান্তে যাতায়াত করে। দীর্ঘদিন ধরে এ সড়কের বেহাল অবস্থার কারণে বন্দরের পণ্য পরিবহনের ক্ষেত্রে সংশ্লিষ্টদের দুর্ভোগ এবং হয়রানি পোহাতে হচ্ছে। ছয় লেন বিশিষ্ট পোর্ট কানেকটিং রোড এবং আগ্রাবাদ এক্সেস রোড উন্নয়ন কাজ বাস্তবায়িত হলে বন্দরের পণ্য পরিবহনে গতিশীলতা ফিরে আসবে।

উন্নয়ন কাজ চলাকালীন সময়ে সড়কগুলোতে অবৈধ পার্কিংয়ের কারণে যানজট সৃষ্টির জন্য ক্ষোভ প্রকাশ করে সিটি মেয়র ট্রাফিক প্রশাসনকে যথাযথ দায়িত্ব পালনের আহবান জানান।

এ সময় সিটি মেয়রের সাথে চসিক কাউন্সিলর এইচ এম সোহেল, প্রধান প্রকৌশলী লে. কর্নেল মহিউদ্দিন আহমদ, অতিরিক্ত প্রধান প্রকৌশলী রফিকুল ইসলাম, তত্ত্বাবধায়ক প্রকৌশলী আবু ছালেহ, নির্বাহী প্রকৌশলী আবু সাদাত মো. তৈয়ব, বিপ্লব দাশ, সহকারী প্রকৌশলী মজিবুল হায়দার প্রমুখ  উপস্থিত ছিলেন।

চসিক সূত্রে জানা যায়, এ প্রকল্পের আওতায় দুই পর্যায়ে ১০০ কোটি টাকা ব্যয়ে নিমতলা পোর্ট কানেকটিং থেকে বড়পুল, বড়পুল থেকে নয়াবাজার পর্যন্ত এবং আগ্রাবাদ বাদামতলী থেকে বড়পুল নয়াবাজার পর্যন্ত ৫০ কোটি টাকা ব্যয়ে এ উন্নয়ন কাজ বাস্তবায়িত হচ্ছে।

একই প্রকল্পের আওতায় রাস্তার দুইপাশে আর সিসি ড্রেন ও ফুটপাত নির্মাণ, রাস্তার মাঝখানে ৮ ফুট দৈর্ঘ্য বিশিষ্ট মিডিয়ান নির্মাণ, এলইডি আলোকায়ন ব্যবস্থা থাকবে। ছয় লেনে ১২০ ফুট প্রশস্ত বিশিষ্ট পোর্ট কানেকটিং রোডের মোট দৈর্ঘ্য ২ কিলোমিটার।

অন্যদিকে, একই প্রকল্পে আগ্রাবাদ এক্সেস রোডও ২ কি্লোমিটার পর্যন্ত উন্নয়ন বাস্তবায়ন করা হবে। জাইকার অর্থায়নে এ উন্নয়ন প্রকল্পের কাজ শুরু হয় চলতি বছরের জানুয়ারি মাসে। ২০১৯ সালের ১৯ মে পর্যন্ত এ প্রকল্প সমূহের কাজের মেয়াদ রয়েছে।

বাংলাদেশ সময়: ১৯০৩ ঘণ্টা, জুন ১৩, ২০১৮

এসবি/টিসি

        ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন  

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

Alexa
db