ঢাকা, মঙ্গলবার, ৮ আশ্বিন ১৪২৬, ২৪ সেপ্টেম্বর ২০১৯
bangla news

সৈয়দ ওয়াহিদুল আলমের দাফন মঙ্গলবার

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০১৮-০৫-২৮ ১২:৪৮:৫৭ পিএম
আসর নামাজের পর চট্টগ্রামের জমিয়তুল ফালাহ মাঠে সৈয়দ ওয়াহিদুল আলমের তৃতীয় জানাজা অনুষ্ঠিত হয়।

আসর নামাজের পর চট্টগ্রামের জমিয়তুল ফালাহ মাঠে সৈয়দ ওয়াহিদুল আলমের তৃতীয় জানাজা অনুষ্ঠিত হয়।

চট্টগ্রাম: বিএনপি চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা ও সাবেক হুইপ সৈয়দ ওয়াহিদুল আলমের দাফন হবে মঙ্গলবার (২৯ মে)।

বেলা ১১টায় হাটহাজারী কলেজ মাঠ ও বাদ জোহর লালিয়ার হাট মাদ্রাসা মাঠে দুই দফা জানাজার পর সৈয়দ ওয়াহিদুল আলমের মরদেহ গ্রামের বাড়ি লালিয়ার হাটে পারিবারিক কবরস্থানে দাফন করা হবে।

সোমবার (২৮ মে) বিকেল সোয়া তিনটায় হেলিকপ্টারে সৈয়দ ওয়াহিদুল আলমের মরদেহ চট্টগ্রামের এমএ আজিজ স্টেডিয়ামে আনা হয়। এরপর সেখান থেকে অ্যাম্বুল্যান্সযোগে কাতালগঞ্জে নেওয়া হয়।

আসর নামাজের পর চট্টগ্রামের জমিয়তুল ফালাহ মাঠে তৃতীয় জানাজা অনুষ্ঠিত হয়। এতে ইমামতি করেন জামিয়া আহমদিয়া সুন্নিয়া আলিয়া মাদ্রাসার মুহাদ্দিস মাওলানা ওবাইদুল হক নঈমী।

জানাজায় অংশ নেন বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান আবদুল্লাহ আল নোমান, উত্তর জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি নুরুল আলম চৌধুরী, সংসদ সদস্য শামসুল হক চৌধুরী, চট্টগ্রাম জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান এমএ সালাম, সাবেক মেয়র মাহমুদুল ইসলাম চৌধুরী, নগর বিএনপির সভাপতি ডা. শাহাদাত হোসেন, উত্তর জেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ইউনুস গনি, নগর বিএনপির সিনিয়র সহ সভাপতি আবু সুফিয়ান, অ্যাডভোকেট কবির চৌধুরী, চট্টগ্রাম প্রেস ক্লাবের সভাপতি কলিম সরওয়ার, সাবেক সভাপতি আলী আব্বাস, চট্টগ্রাম সাংবাদিক ইউনিয়নের সাবেক সভাপতি রিয়াজ হায়দার চৌধুরী, প্রেস ক্লাবের সাবেক যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মহসীন কাজী, প্যানেল মেয়র চৌধুরীর হাসান মাহমুদ হাসনী, রাউজান উপজেলা চেয়ারম্যান এহছানুল হায়দার চৌধুরী বাবুল, কাউন্সিলর হাসান মুরাদ বিপ্লব, উত্তর জেলা বিএনপির সাবেক সহ সভাপতি অধ্যাপক ইউনুস চৌধুরী, দক্ষিণ জেলা বিএনপির সাবেক সহ সভাপতি শেখ মহিউদ্দিন, ইফতেখার মহসিন, নগর বিএনপির যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক কাজী বেলাল, ইয়াছিন চৌধুরী লিটন, আহমেদুল আলম রাসেল, সাংগঠনিক সম্পাদক কামরুল ইসলাম প্রমুখ।

সোমবার দুপুরে ঢাকায় নয়াপল্টনে বিএনপির কেন্দ্রীয় কার্যালয়ের সামনে সৈয়দ ওয়াহিদুল আলমের জানাজা অনুষ্ঠিত হয়।

রোববার (২৭ মে) রাতে ধানমন্ডির সেন্ট্রাল হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় সৈয়দ ওয়াহিদুল আলম ইন্তেকাল করেন (ইন্নালিল্লাহি...রাজিউন)। তার বয়স হয়েছিল ৭৩ বছর।

যুবদলের প্রতিষ্ঠাতা সহ-সভাপতি হিসেবে বিএনপির রাজনীতিতে হাতেখড়ি সৈয়দ ওয়াহিদুল আলমের। পরে বিএনপি থেকে হয়েছেন হাটহাজারী উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান। ১৯৯১ সালে প্রথম ধানের শীষে নির্বাচন করে সংসদ সদস্য নির্বাচিত হন। পরে ১৯৯৬, ২০০১  সালে সংসদ সদস্যসহ মোট চারবার নির্বাচিত হন। ২০০১-০৬ সাল পর্যন্ত জাতীয় সংসদের হুইপের দায়িত্ব পালন করেন। চট্টগ্রাম নগর বিএনপির আহ্বায়কও ছিলেন তিনি। সর্বশেষ বিএনপির কাউন্সিলে তাকে বিএনপি চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা মনোনিত করা হয়।

বাংলাদেশ সময়: ২২০৫ ঘণ্টা, মে ২৮, ২০১৮
এসকে/টিসি

        ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন  

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

Alexa
cache_14 2018-05-28 12:48:57