ঢাকা, মঙ্গলবার, ৬ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৬, ২১ মে ২০১৯
bangla news

৪০ মিনিটের বৃষ্টিতে পাঁচলাইশ জলমগ্ন

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০১৮-০৫-২০ ৭:০৪:৫২ এএম
জলমগ্ন হয়ে ব্যস্ততম এ সড়কে যাতায়াতকারী সাধারণ মানুষ ও স্থানীয়দের দুর্ভোগ চরমে পৌঁছে। 

জলমগ্ন হয়ে ব্যস্ততম এ সড়কে যাতায়াতকারী সাধারণ মানুষ ও স্থানীয়দের দুর্ভোগ চরমে পৌঁছে। 

চট্টগ্রাম: রোদেলা আকাশ হঠাৎ মেঘাচ্ছন্ন হয়ে ওঠে। পরক্ষণেই শুরু তুমুল বৃষ্টি। রোববার (২০ মে) দুপুর দেড়টা থেকে শুরু হওয়া বৃষ্টিতে নগরের পাঁচলাইশ এলাকার সড়ক জুড়ে হাঁটু সমান পানি জমে যায়। জলমগ্ন হয়ে ব্যস্ততম এ সড়কে যাতায়াতকারী সাধারণ মানুষ ও স্থানীয়দের দুর্ভোগ চরমে পৌঁছে।    

পাঁচলাইশ আঞ্চলিক পাসপোর্ট অফিসে আসা পার্কন চৌধুরী বাংলানিউজকে জানান, রিকশা নিয়ে সকাল ১১টার দিকে পাসপোর্টের আবেদন করার জন্য পাঁচলাইশ পাসপোর্ট অফিসে এসেছি। দুপুর দেড়টার দিকে কাজ শেষ করে বের হওয়ার সময় দেখি তুমুল বৃষ্টিপাত শুরু হয়। আর পাসপোর্ট অফিস থেকে বের হইনি। প্রায় ৪০ মিনিট পর বৃষ্টি কমে যায়। এরপর অফিস থেকে বেরিয়ে দেখি পাসপোর্ট অফিসের সামনের সড়কটিতে হাঁটু সমান পানি। বৃষ্টি কমলেও ওই সড়ক জুড়েই জলাবদ্ধতার সৃষ্টি হয়েছে। দুপুর আড়াইটার পরও এ অফিস থেকে বের হতে পারিনি। সড়কে পানি কমলেই বাসা ফিরতে পারবো।’

জলমগ্ন হয়ে ব্যস্ততম এ সড়কে যাতায়াতকারী সাধারণ মানুষ ও স্থানীয়দের দুর্ভোগ চরমে পৌঁছে। শুধু পার্কন চৌধুরী নন, পাঁচলাইশ আঞ্চলিক পাসপোর্ট অফিসে পাসপোর্টের জন্য আবেদন করতে আসা শতাধিক গ্রাহক ও স্থানীয় এলাকাবাসী জলাবদ্ধতার দুর্ভোগে পড়েছেন।

শাহ মোহাম্মদ নামে স্থানীয় এক ব্যক্তি বাংলানিউজকে জানান, এ সড়কটি দীর্ঘদিন থেকে অবহেলিত। বৃষ্টি হলেই হাঁটু সমান পানি ওঠে যায়। আমরা বাসাবাড়ি থেকে বের হতে পারি না। বিশেষ করে বর্ষাকাল আসলে আমাদের দুর্ভোগ বেড়ে যায়। এলাকার ড্রেন ও নালাগুলো নিয়মিত পরিষ্কার করা হয় না। নিয়মিত পরিষ্কার করলে আমাদের এতো দুর্ভোগ পোহাতে হতো না। এ বিষয়ে সংশ্লিষ্ট জনপ্রতিনিধির দৃষ্টি আকর্ষণ করেন তিনি।  

এদিকে, রোববার (২০ মে) দুপুর দেড়টা থেকে শুরু হওয়া বৃষ্টিতে পাঁচলাইশ ছাড়াও নগরের বাদুরতলা, চকবাজার, আগ্রাবাদ এক্সেসরোড, কাতালগঞ্জের নিম্ন এলাকায় জলবদ্ধতার সৃষ্টি হয়েছে বলে জানা গেছে। 

জামালখান সড়কেও হাঁটুপানি!

আগ্রাবাদে জলাবদ্ধতা, নিরসনে এলাকাবাসীর ৫ দফা

বাংলাদেশ সময়: ১৭০৪ ঘণ্টা, মে ২০, ২০১৮

এসবি/টিসি

        ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন  

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

Alexa
cache_14