bangla news

মাহাথিরের হাত ধরে বাংলাদেশে বেসরকারি খাতে উন্নয়নের গল্প

তপন চক্রবর্তী, ব্যুরো এডিটর | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০১৮-০৫-১০ ৬:৫৯:০৮ এএম
মাহাথির মোহাম্মদের গাড়িতে পিএইচপির চেয়ারম্যান সুফি মোহাম্মদ মিজানুর রহমান। ছবি: বাংলানিউজ

মাহাথির মোহাম্মদের গাড়িতে পিএইচপির চেয়ারম্যান সুফি মোহাম্মদ মিজানুর রহমান। ছবি: বাংলানিউজ

চট্টগ্রাম: আধুনিক মালয়েশিয়ার জনক, ২২ বছরের সফল প্রধানমন্ত্রী ও সম্প্রতি অনুষ্ঠিত নির্বাচনে নিরঙ্কুশ বিজয় পাওয়া ড. মাহাথির মোহাম্মদের হাত ধরে বাংলাদেশে বেসরকারি খাতে উন্নয়নের ছোঁয়া লাগছে।  

দেশের শীর্ষ শিল্পপ্রতিষ্ঠান পিএইচপি ফ্যামিলির সঙ্গে মাথাথিরের সুসম্পর্কের সূত্র ধরে চট্টগ্রামে প্রতিষ্ঠিত হচ্ছে প্রোটন ব্রান্ডের গাড়ির কারখানা।

শিগগির মাহাথির এসে কারখানাটির উদ্বোধন করবেন বলে আশা করছেন পিএইচপি পরিবার। এর আগে পিএইচপি ফ্যামিলি পরিচালিত রাজধানীর ইউআইটিএসের সমাবর্তনে এসেছিলেন মাহাথির।

বাংলানিউজের সঙ্গে আলাপচারিতায় বর্তমানে মালয়েশিয়ায় অবস্থানরত পিএইচপি গ্রুপের ব্যবস্থাপনা পরিচালক (এমডি) ইকবাল হোসেন চৌধুরী এসব তথ্য জানান।

মাহাথিরের সান্নিধ্যে পিএইচপি ফ্যামিলির ব্যবস্থাপনা পরিচালক ইকবাল হোসেন চৌধুরী

তিনি বলেন, পিএইচপি ফ্যামিলির ‘প্রোটন ব্রান্ড’র প্রাইভেট কারের কারখানা উদ্বোধন করবেন এ কিংবদন্তি। মালয়েশিয়ার প্রোটন অটোমোবাইলের চেয়ারম্যান মাহাথিরের সঙ্গে পিএইচপি ফ্যামিলির ব্যবসায়িক সম্পর্কের শক্ত ভিত্তির ওপর দুই দেশের সুসম্পর্ক জোরদার হয়েছে। এর ফলে সৃষ্টি হয়েছে বাংলাদেশে বেসরকারি পর্যায়ে গাড়ি শিল্পের প্রসার ও ব্যাপক কর্মসংস্থানের সুযোগ।  

বুধবার (০৯ মে) মালয়েশিয়ার ১৪তম সাধারণ নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়। নির্বাচনে দেশটির সাবেক প্রধানমন্ত্রী মাহাথির মোহাম্মদ ক্ষমতাসীন জোট বারিসান ন্যাশনালকে (বিএন) বিপুল ব্যবধানে পরাজিত করেন। একসময় এ জোটের হয়ে তিনি ২২ বছর কঠোর হাতে দেশটি শাসন করেছিলেন। 

ইকবাল হোসেন চৌধুরী বলেন, প্রোটন ৪টি বিলাসবহুল গাড়ি তৈরি করেছিল। এর মধ্যে ২টি ব্যবহার করেন মালয়েশিয়ার প্রধানমন্ত্রী ও উপ-প্রধানমন্ত্রী। তুরস্কের প্রধানমন্ত্রীকে একটি গাড়ি উপহার দেওয়া হয়েছে। আরেকটি ব্যবহার করেন মাহাথির নিজে। গাড়িগুলো তৈরি করা হয় অর্ডার দেয়ার পরে (কাস্টমমেইড)। সময়ও লাগে প্রচুর। ট্যাক্স ও ডিউটি বাদ দিয়ে প্রতিটি গাড়ির দাম পড়ে বাংলাদেশি সোয়া কোটি টাকা। বাংলাদেশেও এ ধরনের গাড়ি আনতে চাই আমরা।
তিনি বলেন, মাহাথির আমার আব্বাকে (সুফি মিজানুর রহমান) তার ব্যক্তিগত গাড়ি দেখাতে নিয়ে গিয়েছিলেন। সুপরিসর ও আরামদায়ক এ গাড়ি তৈরি করেছে মাহাথিরের কোম্পানি প্রোটনই।

মাহাথির মোহাম্মদের সান্নিধ্যে পিএইচপি ফ্যামিলির সদস্যরা
মাহাথিরের সঙ্গে স্মরণীয় মুহূর্ত কাটানোর ও তার নেতৃত্বের গুণাবলি সম্পর্কে ইকবাল হোসেন চৌধুরী বলেন, ‘৯২ বছর বয়সী মাহাথিরকে দেখলে বোঝাই যায় না যে তার বয়স হয়েছে। সদাবিনয়ী, হাস্যোজ্জ্বল ও স্বতঃস্ফুর্ত এক অসাধারণ মানুষের প্রতিচ্ছবি।

বাংলাদেশে গাড়ি তৈরির কারখানা গড়া প্রসঙ্গে ইকবাল হোসেন চৌধুরী বলেন, আমরা চিন্তা করি দেশের মানুষ যাতে কম টাকায় ব্রান্ড নিউ গাড়ি চালাতে পারে। বাংলাদেশের ট্রেন্ড যদি দেখেন অধিকাংশ গাড়িই কিন্তু জাপান থেকে আনা হচ্ছে সেকেন্ডহ্যান্ড রিকন্ডিশন। সেগুলো আমরা এখানে পাচ্ছি। পিএইচপি ফ্যামিলি যেটা চায় তা হলো সাশ্রয়ী মূল্যে একেবারে নতুন গাড়ি গ্রাহকের হাতে তুলে দেওয়া।

তিনি আশা প্রকাশ করেন আগামী ১০ থেকে ১২ বছরে পিএইচপির বিভিন্ন কারখানায় অন্তত ৫০ হাজার লোকের কর্মসংস্থান হবে।  

বাংলাদেশ সময়: ১৬৫০ ঘণ্টা, মে ১০, ২০১৮
টিসি

        ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন  

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

Alexa
cache_14 2018-05-10 06:59:08