ঢাকা, রবিবার, ৬ আশ্বিন ১৪২৬, ২২ সেপ্টেম্বর ২০১৯
bangla news

৭০ হাজার রোহিঙ্গাকে দুই মাস খাওয়াবে কারিতাস

স্পেশাল করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০১৭-১০-১১ ৮:৫৯:৪৮ এএম
৭০ হাজার রোহিঙ্গাকে দুই মাস খাওয়াবে কারিতাস

৭০ হাজার রোহিঙ্গাকে দুই মাস খাওয়াবে কারিতাস

চট্টগ্রাম: মিয়ানমারে সহিংসতার শিকার হয়ে আসা ৭০ হাজার রোহিঙ্গাকে দুই মাস ধরে খাওয়ানোর কর্মসূচি শুরু করেছে বিশ্বব্যাপী কার্যক্রম চালানো বেসরকারি উন্নয়ন সংস্থা কারিতাস।  সরকারের অনুমোদন পেলে এই কার্যক্রম অব্যাহত রাখার কথা জানিয়েছে সংস্থাটি।

প্রতি পরিবারে ৭ জন হিসেবে ১০ হাজার পরিবারকে মশুর ডাল, ভোজ্যতেল, চিনি এবং লবণ সরবরাহ করছে কারিতাস।  জাতিসংঘের বিশ্ব খাদ্য কর্মসূচির আওতায় দেওয়া চালের সঙ্গে ত্রাণ হিসেবে এসব খাদ্যসামগ্রী দেওয়া হচ্ছে।

শুধু খাদ্যসামগ্রী নয়, রোহিঙ্গা পরিবারগুলোকে এক সেট তরকারির ডেকসি ও চামচ, ভাতের সসপেন ও চামচ, মেলামাইনের বাসন এবং মগ দিচ্ছে কারিতাস।

জানতে চাইলে কারিতাস, চট্টগ্রাম অঞ্চলের পরিচালক জেমস গোমেজ বাংলানিউজকে বলেন, বিশ্ব খাদ্য কর্মসূচির সঙ্গে যৌথভাবে আমরা রোহিঙ্গাদের ত্রাণ সহায়তা দিচ্ছি।  তারা চাল দিচ্ছে।  আমরা চালের সঙ্গে রান্নার বাকি সামগ্রী দিচ্ছি।  এভাবে দুই মাস আমরা কার্যক্রম চালাব। দুই মাস পর কর্মসূচি চলবে কি না সেই সিদ্ধান্ত সরকারের অনুমোদন সাপেক্ষে পরে নেওয়া হবে।

‘প্রতিটি রোহিঙ্গা পরিবারকে ১৫ দিনের জন্য ৪ কেজি মশুর ডাল, ২ লিটার তেল,  ১ কেজি চিনি, ৫০০ গ্রাম লবণ এবং ননফুড আইটেমসহ ১০ ধরনের সামগ্রী দেওয়া হচ্ছে।  ১০ হাজার পরিবারে অন্ত:ত দুই মাস যাতে খাদ্যের কোন অভাব না হয় সেটা আমরা নিশ্চিত করছি। ’ বলেন জেমস গোমেজ

কক্সবাজার জেলার উখিয়া উপজেলার কুতপালং ও মইন্যারঘোনা রোহিঙ্গা ক্যাম্পের ২৭০০ পরিবারকে ১০ অক্টোবর প্রথম দফায় ত্রাণ দিয়েছে কারিতাস।  বুধবার (১১ অক্টোবর) দিয়েছে আরও ৩ হাজার পরিবারকে। 

১৫ দিন পরপর রোহিঙ্গা পরিবারগুলো ত্রাণ পাবে।  ১৫ দিনের জন্য প্রয়োজনীয় খাবার একসঙ্গে দেয়া হচ্ছে বলে জানিয়েছেন জেমস গোমেজ।

ত্রাণ বিতরণের সময় ছিলেন কারিতাস বাংলাদেশের প্রেসিডেন্ট বিশপ জের্ভাস রোজারিও, নির্বাহী পরিচালক, ফ্রান্সিস অতুল সরকার, আঞ্চলিক পরিচালক জেমস গোমেজ, সিডিআই পরিচালক থিউফিল নকরেক উপস্থিত ছিলেন।

বাংলাদেশ সময়: ১৩৫০ ঘণ্টা, অক্টোবর ১১, ২০১৭

আরডিজি/টিসি

ক্লিক করুন, আরো পড়ুন :   রোহিঙ্গা
        ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন  

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

Alexa
cache_14 2017-10-11 08:59:48