bangla news

‘কালের সাক্ষ্য বহন করে গ্রন্থাগার’

চট্টগ্রাম প্রতিদিন ডেস্ক | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০১৬-০৫-০৪ ১২:১৯:২৫ এএম

চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ড. ইফতেখার উদ্দিন চৌধুরী বলেছেন, কালের সাক্ষ্য বহন করে অতীত আর বর্তমানের সীমারেখা মুছে দেয় গ্রন্থাগার। তাই সভ্যতার সূচনা থেকে শুরু করে জ্ঞান চর্চার অপরিহার্য প্রতিষ্ঠান হিসেবে গ্রন্থাগারের কোন বিকল্প নেই।

চট্টগ্রাম: চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ড. ইফতেখার উদ্দিন চৌধুরী বলেছেন, কালের সাক্ষ্য বহন করে অতীত আর বর্তমানের সীমারেখা মুছে দেয় গ্রন্থাগার। তাই সভ্যতার সূচনা থেকে শুরু করে জ্ঞান চর্চার অপরিহার্য প্রতিষ্ঠান হিসেবে গ্রন্থাগারের কোন বিকল্প নেই।

মঙ্গলবার চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয় গ্রন্থাগার মিলনায়তনে গ্রন্থাগার আধুনিকায়ন, সিসিটিভি ক্যামেরা স্থাপন এবং চবি সাবেক উপাচার্য ড. আর আই চৌধুরী কর্নার উদ্বোধন অনুষ্ঠানে এসব কথা বলেন তিনি। 

প্রধান অতিথির বক্তব্যে উপাচার্য বলেন, গ্রন্থাগার জ্ঞানের আধার, জ্ঞানের ভাণ্ডার এবং বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রাণ।  গ্রন্থাগারে সঞ্চিত থাকে জ্ঞানী-গুণীদের চিন্তার অমূল্য সম্পদ। যে জাতি যত বেশি অগ্রগামী সে জাতির গ্রন্থাগার তত বেশি সমৃদ্ধ।

সাবেক উপাচার্য ড. আর আই চৌধুরীর ব্যক্তিগত সংগ্রহের ১০০৯টি পুস্তক এবং ৪৭৭ টি জার্নাল বিশ্ববিদ্যালয়ের এ গ্রন্থাগারে হস্তান্তর করে তার নামে একটি কর্নার স্থাপন করার সুযোগ সৃষ্টি করায় তার পরিবারের প্রতি কৃতজ্ঞতা জানান উপাচার্য ইফতেখার উদ্দিন চৌধুরী।

তিনি বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী, শিক্ষক-গবেষকসহ সংশ্লিষ্ট সকলকে শিক্ষার গুণগত মানোন্নয়ন এবং একটি উন্নত-সমৃদ্ধ কাঙ্ক্ষিত বাংলাদেশ বিনির্মাণে গ্রন্থাগারের সুযোগ-সুবিধা কাজে লাগানোর আহ্বান জানান।

অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন চবি উপ-উপাচার্য ও গ্রন্থাগার পরিচালনা কমিটির চেয়ারপারসন অধ্যাপক ড. শিরীণ আখতার এবং চবি বিজ্ঞান অনুষদের ডিন ও গ্রন্থাগার উন্নয়ন কমিটির আহ্বায়ক অধ্যাপক ড. মো. আবদুল করিম।

চবি গ্রন্থাগার কমিটির কো-চেয়ারম্যান ও ইংরেজি বিভাগের অধ্যাপক ড. কাজী মোস্তাইন বিল্লাহর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন চবি জীব বিজ্ঞান অনুষদের ডিন অধ্যাপক ড. মো. মাহবুবুর রহমান, রেজিস্ট্রার (ভারপ্রাপ্ত) অধ্যাপক ড. মোহাম্মদ কামরুল হুদা, গ্রন্থাগারিক (ভারপ্রাপ্ত) মোহাম্মদ আবু তাহের প্রমুখ।

বাংলাদেশ সময়: ১০১৯ ঘণ্টা, মে ০, ২০১৬

আইএসএ/টিসি

        ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন  

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

Alexa
cache_14 2016-05-04 00:19:25