bangla news

কবি মাহবুব উল আলম চৌধুরীর পঞ্চম মৃত্যুবার্ষিকী আজ

287 |
আপডেট: ২০১৪-১২-২২ ১১:৪৯:০০ পিএম
মাহবুব উল আলম চৌধুরী

মাহবুব উল আলম চৌধুরী

অমর একুশের ভাষা শহীদদের স্মরণে রচিত প্রথম কবিতা ‘কাঁদতে আসিনি ফাঁসির দাবি নিয়ে এসেছি’র রচয়িতা কবি মাহবুব উল আলম চৌধুরীর পঞ্চম মৃত্যুবার্ষিকী আজ (মঙ্গলবার)।

চট্টগ্রাম: অমর একুশের ভাষা শহীদদের স্মরণে রচিত প্রথম কবিতা ‘কাঁদতে আসিনি ফাঁসির দাবি নিয়ে এসেছি’র রচয়িতা কবি মাহবুব উল আলম চৌধুরীর পঞ্চম মৃত্যুবার্ষিকী আজ (মঙ্গলবার)।

তিনি ২০০৭ সালের ২৩ ডিসেম্বর ঢাকায় শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেন।  একাধারে কবি, ভাষা সংগ্রামী, বুদ্ধিজীবী হিসেবে পরিচিত ছিলেন।  ‘সীমান্ত’ সাময়িকীর সম্পাদকও ছিলেন তিনি। পঞ্চাশের দশকের চট্টগ্রামের প্রগতিশীল সাংস্কৃতিক আন্দোলনের অগ্রদূত কবি মাহবুব উল আলম ।

চট্টগ্রামের গহিরায় ১৯২৭ সালের ৭ নভেম্বর এক সম্ভ্রান্ত পরিবারে জন্মগ্রহণ করেন তিনি।  তরুণ বয়সেই কবি, সম্পাদক , সাংস্কৃতিক কর্মী হিসেবে প্রতিভার স্বাক্ষর রাখেন।  ১৯৪২ সালে ছাত্রাবস্থায় কংগ্রেসের ইংরেজ বিরোধী 'ভারত ছাড়' আন্দোলনেও সক্রিয় কর্মী ছিলেন।

ভাষা আন্দোলন, মুক্তিযুদ্ধ ও যাবতীয় গণতান্ত্রিক আন্দোলনে সক্রিয় মাহবুব উল আলম চৌধুরী কবিতা, নাটক, প্রবন্ধ, শিশু সাহিত্যসহ সাহিত্যের প্রায় সব শাখায় সক্রিয় ছিলেন।  তার প্রকাশিত গ্রন্থসংখ্যা প্রায় এক ডজন।

১৯৫০ সালে চট্টগ্রামে দাঙ্গাবিরোধী সংগ্রামের নেতা এ কবি ১৯৫৪ সালে যুক্তফ্রন্টেরও কর্মী শিবিরের আহ্বায়ক ছিলেন। ভাষা আন্দোলনের আগেই তার তিনটি গ্রন্থ প্রকাশ পায়। এগুলো হচ্ছে— আবেগধারা, ইস্পাত ও অঙ্গীকার।  ১৯৪৭ সালে রচিত তার 'বিপ্লব' নামের পুস্তিকা বাজেয়াপ্ত করে তত্কালীন সরকার।  বরেণ্য এই কবি ও প্রগতিশীল সাংস্কৃতিক ব্যক্তিত্ব বাংলা একাডেমীর ফেলোশিপসহ বিভিন্ন সম্মাননা, পদক ও পুরস্কারে ভূষিত হন।

কৈশোরে ব্রিটিশবিরোধী আন্দোলনের মধ্যদিয়ে যে অসাম্প্রদায়িক ও প্রগতিশীল রাজনৈতিক দর্শনে দীক্ষিত হন, ৮০ বছরের জীবনের শেষ দিন পর্যন্ত তা থেকে বিচ্যুত হননি কবি মাহবুব আলম চৌধুরী।

বাংলাদেশ সময়: ১০৪৬ ঘণ্টা, ডিসেম্বর ২৩, ২০১৪

        ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন  

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

Alexa
db 2014-12-22 23:49:00