bangla news

বিচারক হাসিবের লাশ তুলে ফের ময়নাতদন্তের আদেশ

396 |
আপডেট: ২০১৪-১১-২৩ ৫:০৫:০০ এএম
কাজী আবদুল হাসিব মোহাম্মদ সাঈদ /ফাইল ফটো

কাজী আবদুল হাসিব মোহাম্মদ সাঈদ /ফাইল ফটো

মৃত্যুর দুই মাস পর বিচারক কাজী আবদুল হাসিব মোহাম্মদ সাঈদের (৪৭) লাশ কবর থেকে তুলে ফের ময়নাতদন্তের আদেশ দিয়েছেন আদালত। বিচারক হত্যা মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা সিআইডি’র চট্টগ্রাম অঞ্চলের পরিদর্শক কাজল কান্তি বড়ুয়ার আবেদনের উপর শুনানি শেষে রোববার চট্টগ্রাম মহানগর হাকিম ফরিদ আলম এ আদেশ দিয়েছেন।

চট্টগ্রাম: মৃত্যুর দুই মাস পর বিচারক কাজী আবদুল হাসিব মোহাম্মদ সাঈদের  (৪৭) লাশ কবর থেকে তুলে ফের ময়নাতদন্তের আদেশ দিয়েছেন আদালত।

বিচারক হত্যা মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা সিআইডি’র চট্টগ্রাম অঞ্চলের পরিদর্শক কাজল কান্তি বড়ুয়ার আবেদনের উপর শুনানি শেষে রোববার চট্টগ্রাম মহানগর হাকিম ফরিদ আলম এ আদেশ দিয়েছেন।

২০ নভেম্বর তদন্তকারী কর্মকর্তা ওই আদালতে বিচারকের লাশ তুলে ময়নাতদন্তের আবেদন করেছিলেন।

নগর পুলিশের সহকারি কমিশনার (প্রসিকিউশন) নির্মলেন্দু বিকাশ চক্রবর্তী বাংলানিউজকে বলেন, বিচারককে নওগাঁয় তার গ্রামের বাড়িতে দাফন করা হয়েছে। আদালত সেখানকার একজন নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেটের উপস্থিতিতে লাশ তুলে ময়নাতদন্তের জন্য তদন্তকারী কর্মকর্তাকে নির্দেশ দিয়েছেন।

তিনি জানানা, আদালতের আদেশ প্রথমে নওগাঁর জেলা ম্যাজিস্ট্রেটের কাছে পৌঁছানো হবে। জেলা ম্যাজিস্ট্রেট লাশ তোলার বিষয়ে পরবর্তী পদক্ষেপ নেবেন।

কাজী আবদুল হাসিব মোহাম্মদ সাঈদ নওগাঁর অতিরিক্ত জেলা জজ হিসেবে কর্মরত ছিলেন। তিনি এর আগে চট্টগ্রাম মহানগর হাকিম এবং পটিয়ায় সিনিয়র সাব জজ হিসেবেও দায়িত্ব পালন করেন।

গত ১৬ সেপ্টেম্বর নগরীর হালিশহরের মোল্লাপাড়ার একটি বাসা থেকে হাসিবের লাশ উদ্ধার করা হয়।

এ ঘটনায় হালিশহর থানা পুলিশ তার কথিত স্ত্রী, শ্বশুড়-শ্বাশুড়িসহ পাঁচজনকে আসামী করে একটি হত্যা মামলা দায়ের করেন। কিন্তু  গত ৩০ সেপ্টেম্বর বিচারক আত্মহত্যা করেছেন বলে ময়নাতদন্ত প্রতিবেদন প্রকাশিত হয়। এরপর মামলাটি তদন্তের জন্য সিআইডি’র কাছে পাঠানো হয়।

বাংলাদেশ সময়: ১৬০৬ ঘণ্টা, নভেম্বর ২৩, ২০১৪

        ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন  

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

Alexa
cache_14 2014-11-23 05:05:00