bangla news

দলীয়করণ জাতীয় ব্যাধিতে পরিণত হয়েছে: বাবলু

576 |
আপডেট: ২০১৪-১১-২২ ৯:২৫:০০ এএম
ছবি : বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম

ছবি : বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম

জাতীয় পার্টির মহাসচিব জিয়াউদ্দিন আহমেদ বাবলু বলেছেন,‘সন্ত্রাস আর গণতন্ত্র একসাথে চলতে পারে না। হত্যা, নির্যাতন, সন্ত্রাস, দুঃশাসন ও দলীয়করণ জাতীয় ব্যাধিতে পরিণত হয়েছে।’

চট্টগ্রাম: জাতীয় পার্টির মহাসচিব জিয়াউদ্দিন আহমেদ বাবলু বলেছেন,‘সন্ত্রাস আর গণতন্ত্র একসাথে চলতে পারে না। হত্যা, নির্যাতন, সন্ত্রাস, দুঃশাসন ও দলীয়করণ জাতীয় ব্যাধিতে পরিণত হয়েছে।’

শনিবার বিকেলে চট্টগ্রাম সার্কিট হাউজে জাতীয় পার্টি নগর ও উত্তর জেলা আয়োজিত মতবিনিময় সভায় এসব কথা বলেন তিনি।

জিয়া উদ্দিন বাবলু বলেন,‘আওয়ামী লীগ ও বিএনপি দেশ শাসনের নামে নৈরাজ্য চালিয়েছে। মানুষ মুক্তি চায়। শান্তি, নিরাপত্তা, স্বস্তি ও পরিবর্তন চায়। একমাত্র জাতীয় পার্টিই সেই পরিবর্তন এনে দিতে পারে। সন্ত্রাস আর নৈরাজ্যের বিপরীতে উন্নয়ন আর শান্তি দিতে পারবে।’

তিনি বলেন,‘জাতীয় পার্টি দুইশ বছরের উপনিবেশিক প্রথা ভেঙে গণতন্ত্র ও সংবিধান সমুন্নত করেছে। নয় বছরের শাসনামলে ছিল উন্নয়ন আর সুশাসন। কিন্তু ১৯৯০ সালে ক্ষমতা ত্যাগ করার পর দেশে সন্ত্রাস, জঙ্গিবাদী, হত্যা-লুটতরাজ, নির্যাতন চলে আসছে। তাই দুই দলকে মানুষ আর ক্ষমতায় দেখতে চায় না।’

আওয়ামী লীগ ও বিএনপি’’র তুলনায় জাতীয় পার্টির শাসন আমলকে তিনি স্বর্ণযুগ আখ্যায়িত করে বাবলু বলেন,‘জাতীয় পার্টির আমলে বিচার বহির্ভূত হত্যাকাণ্ড হয়নি। ছিল উন্নয়ন ও সুশাসন।’

জিয়াউদ্দিন বাবলু বলেন,‘চট্টগ্রামকে জাতীয় পার্টির দুর্গ হিসেবে গড়ে তোলা হবে। আগামী নির্বাচনে চট্টগ্রাম থেকে সর্বাধিক আসনে জয় লাভ করতে হবে। সিটি কর্পোরেশন ও ইউপি নির্বাচনেও অংশ নিয়ে জয় লাভ করতে হবে। এজন্য জাতীয় পার্টিকে তৃণমূল পর্যন্ত সুসংগঠিত ও শক্তিশালী করতে হবে।’
 
সংগঠনের নেতাকর্মীদের উদ্দেশ্যে তিনি বলেন, ‘আপনারা পার্টির প্রাণ। রংপুর থেকেও চট্টগ্রামকে শক্তিশালী করতে হবে। চট্টগ্রামকে সারা দেশের মধ্যে জাতীয় পার্টির মডেল ইউনিটে পরিণত করা হবে।’

আগামী নির্বাচনে ১৫১ আসন নিয়ে জাতীয় পার্টি সরকার গঠন করবে। সেই লক্ষ্য নিয়ে নেতাকর্মীদের কাজ করার আহ্বান জানান বাবলু।

মতবিনিময় সভায় সভাপতিত্ব করেন উত্তর জেলা জাতীয় পার্টির আহ্বায়ক শায়েস্তা খান। সঞ্চালনা করেন নগর জাপার সদস্য সচিব মো. এয়াকুব হোসেন।

বক্তব্য রাখেন সাবেক এমপি সিরাজুল ইসলাম, নগর জাপার যুগ্ম আহ্বায়ক ওসমান খান, কামরুজ্জামান পল্টু, নজরুল ইসলাম চৌধুরী, আজম খান, উত্তর জেলা জাপার সদস্য সচিব শফিউল আলম, যুগ্ম আহ্বায়ক মেজবাহ উদ্দিন আকবর।

বাংলাদেশ সময়: ২০১৭ ঘণ্টা, নভেম্বর ২২, ২০১৪

        ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন  

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

Alexa
db 2014-11-22 09:25:00