bangla news

ছুটি শেষে নগরীতে ফিরছে মানুষ

829 |
আপডেট: ২০১৪-১০-১০ ৯:২৬:০০ এএম
ছবি: বাংলানিউজ ফাইল ফটো

ছবি: বাংলানিউজ ফাইল ফটো

পবিত্র ঈদুল আজহা উপলক্ষে গত রোববার থেকে সরকারি ছুটি শুরু হয়। তার আগে দুইদিনসহ মোট পাঁচদিন ছুটি উপভোগ করেছেন দেশের মানুষ। তবে বুধ ও বৃহস্পতিবার খোলার পর দুইদিন ছুটি থাকায় বাকি দুইদিন ছুটি নিয়ে মোট সাত থেকে আটদিন ছুটি উপভোগ করেছেন অধিকাংশ মানুষ।

চট্টগ্রাম: পবিত্র ঈদুল আজহা উপলক্ষে গত রোববার থেকে সরকারি ছুটি শুরু হয়। তার আগে দুইদিনসহ মোট পাঁচদিন ছুটি উপভোগ করেছেন দেশের মানুষ।
তবে বুধ ও বৃহস্পতিবার খোলার পর দুইদিন ছুটি থাকায় বাকি দুইদিন ছুটি নিয়ে মোট সাত থেকে আটদিন ছুটি উপভোগ করেছেন অধিকাংশ মানুষ।

ফলে বুধবার ঈদের ছুটি শেষে নিজ নিজ কর্মস্থলে ফেরার কথা থাকলেও মূলত শুক্রবার থেকেই বন্দর নগরীতে ফিরতে শুরু করেছে কর্মব্যস্ত মানুষ। শুক্রবারের মধ্যে যারা চট্টগ্রামে ফিরেননি তারা শনিবারের মধ্যে ফিরবেন বলে ধারণা করা হচ্ছে।

শনিবারের মধ্যে অধিকাংশ মানুষ ফিরে আসার পর আগামী রোববার থেকেই আবারো কর্মব্যস্ত হয়ে উঠবে চিরচেনা সেই বাণিজ্যিক রাজধানী চট্টগ্রাম।

এদিকে ঈদের আগে বাড়ি যাওয়ার সময় যেভাবে বাড়তি ভাড়া আদায় করা হয়েছে ঠিক তেমনি ফেরার পথেও অতিরিক্ত ভাড়া গুনতে হচ্ছে বলে ‍অভিযোগ করেছেন যাত্রীরা।

অন্যদিকে নগরীতে ফেরার পর পরিবহন স্বল্পতার কারণে সিএনজি অথবা রিকশায় গন্তব্যে ফিরতে পকেট কাটা যাচ্ছে যাত্রীদের।

গত বুধবার অফিস-আদালত খোলা হলেও অধিকাংশ অফিসেই ছিল ফাঁকা। যারা এসেছেন তারা ঈদের শুভেচ্ছা বিনিময় আর গল্প গুজবে সময় কাটিয়েছেন। নগরীর চিত্রও ছিল ভিন্ন। কোন যানজট নেই কোথাও। নেই মানুষের ছোটাছুটি।

সরেজমিন পরিদর্শনে দেখা গেছে, চট্টগ্রাম নগরীর অধিকাংশ শপিং মল, মার্কেট, দোকান এখনো বন্ধ। শনিবার থেকে এসব শপিং মল ও মার্কেট নিয়মিত খোলা হবে বলে সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা গেছে। 

সংশ্লিষ্টরা জানান, এখনো বেশিরভাগ লোক নগরীতে আসেননি। তবে  জীবন-জীবিকার তাগিদে নিম্ন আয়ের লোকজন আসতে শুরু করেছেন। ঈদের ছুটি শেষে শুক্রবার ট্রেন, বাসে চট্টগ্রামমুখি যাত্রীদের বাড়তি চাপ লক্ষ করা গেছে।

শুক্রবার চট্টগ্রাম রেলস্টেশনে গিয়ে দেখা গেছে, নগরীতে ফেরা মানুষের পদচারণায় মুখর রেলওয়ের প্রধান এ স্টেশনটি। পরিবার-পরিজন নিয়ে নরগীতে ফিরছেন মানুষ। এছাড়া নগরীর একে খান, অক্সিজেন, বহদ্দারহাট বাস টার্মিনালে কর্মব্যস্ত মানুষের স্রোত দেখা গেছে।

বাংলাদেশ সময়:১৯২৭ঘণ্টা, অক্টোবর, ২০১৪

        ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন  

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

Alexa
db 2014-10-10 09:26:00