bangla news

চট্টগ্রামে এক প্রধান শিক্ষিকার বিরুদ্ধে ‘শিবিরপ্রীতি’র অভিযোগ

950 |
আপডেট: ২০১৪-১০-১৯ ৯:৫৮:০০ এএম
ছবি: বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম

ছবি: বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম

চট্টগ্রাম নগরীতে নাসিরাবাদ সরকারি বালক উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষিকা বেগম মনোয়ারা খানমের বিরুদ্ধে ‘ছাত্রশিবির প্রীতি’র অভিযোগ তুলেছে নগর ছাত্রলীগ। সংগঠনটির নগর শাখার সভাপতি ইমরান আহমেদ ইমু ও সাধারণ সম্পাদক নূরুল আজিম রণি’র অভিযোগ...

চট্টগ্রাম: চট্টগ্রাম নগরীতে নাসিরাবাদ সরকারি বালক উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষিকা বেগম মনোয়ারা খানমের বিরুদ্ধে ‘ছাত্রশিবির প্রীতি’র অভিযোগ তুলেছে নগর ছাত্রলীগ।

সংগঠনটির নগর শাখার সভাপতি ইমরান আহমেদ ইমু ও সাধারণ সম্পাদক নূরুল আজিম রণি’র অভিযোগ, প্রধান শিক্ষিকা কোমলমতি শিক্ষার্থীদের সবসময় ছাত্রশিবিরের রাজনীতির প্রতি কৌশলে অনুপ্রাণিত করেন। প্রধান শিক্ষিকা ও তার অনুগত কয়েকজন শিক্ষক সবসময় শিবিরকে পৃষ্ঠপোষকতা দেন।

রোববার বিভিন্ন গণমাধ্যমে পাঠানো এক যুক্ত বিবৃতিতে তারা এসব অভিযোগ করেন।

তবে ছাত্রলীগের অভিযোগ অস্বীকার করেছেন প্রধান শিক্ষিকা বেগম মনোয়ারা খানম।

তিনি বাংলানিউজকে বলেন, আমি ১৯ সেপ্টেম্বর বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষিকা হিসেবে যোগদান করেছি। যোগদানের পর আমি কখনও স্কুলে ছাত্রশিবির কিংবা এর মতাদর্শিক কোন সংগঠনের কর্মকান্ড দেখিনি। অতীতেও কোনদিন এ ধরনের কর্মকান্ড এখানে হয়েছে বলে শুনিনি।

ছাত্রলীগ অভিযোগ করছে কেন, এমন প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, আমি তো ছাত্রলীগের কাউকে চিনি না। তারা এ ধরনের বিবৃতি কেন দিল এটা আমার বোধগম্য হচ্ছেনা।

বিবৃতিতে ছাত্রলীগ নেতারা অভিযোগ করেন, ছাত্রশিবিরের পরিচালিত ‘অঙ্কুর’ ও ‘কিশোর কণ্ঠ’ নামে দু’টি সংগঠন বিদ্যালয়ের শ্রেণিকক্ষে ঢুকে অধ্যায়নরত ছাত্রদের মাঝে বিভিন্ন সময় ইসলামি দাওয়াতি কার্যক্রম প্রচার করছে। গরিব ছাত্রদের মাঝে ইসলামি ছাত্রবৃত্তির নামে নগদ অর্থ বিতরণ করছে।

এছাড়া শিবির আড়ালে থেকে বিদ্যালয়ে ইসলামি ক্রীড়া টুর্ণামেন্ট আয়োজন করছে এবং এতে প্রধান শিক্ষিকা ও কয়েকজন শিক্ষক সরাসরি পৃষ্ঠপোষকতা দেন বলেও অভিযোগ ছাত্রলীগের।

এ প্রসঙ্গে জানতে চাইলে নগর ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক নূরুল আজিম রণি বাংলানিউজকে বলেন, আমরা বেশ কয়েকবার প্রধান শিক্ষিকার সঙ্গে দেখা করে বিভিন্ন অভিযোগ করেছি। কিন্তু তিনি আমাদের অভিযোগ আমলে না নেয়াই গণমাধ্যমের শরণাপন্ন হয়েছি।

অভিযোগ প্রসঙ্গে প্রধান শিক্ষিকা বেগম মনোয়ারা খানম বাংলানিউজকে বলেন, স্কুলের মাঠ পানি জমে নষ্ট হয়ে গেছে। আমি এটি সংস্কার করার চেষ্টা করছি। মাঠে কোন খেলা হয়না। আর ছাত্রলীগের কেউ কখনও আমার সঙ্গে দেখা করেনি।

বাংলাদেশ সময়: ১৯৫৮ ঘণ্টা, অক্টোবর ১৯, ২০১৪

        ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন  

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

Alexa
db 2014-10-19 09:58:00