bangla news

গণতান্ত্রিক ও আইনি অধিকার হরণ করছে সরকার

404 |
আপডেট: ২০১৪-০৮-২৬ ৯:২৯:০০ এএম
ছবি : বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম

ছবি : বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম

আওয়ামী লীগ সরকার একে একে গণতন্ত্রের সকল অঙ্গ কেটে ফেলছে বলে মন্তব্য করে নগর বিএনপির সভাপতি আমীর খসরু মাহমুদ চৌধুরী বলেছেন, সরকার গণতান্ত্রিক ও আইনি অধিকার কেড়ে নিচ্ছে।

চট্টগ্রাম: আওয়ামী লীগ সরকার একে একে গণতন্ত্রের সকল অঙ্গ কেটে ফেলছে বলে মন্তব্য করে নগর বিএনপির সভাপতি আমীর খসরু মাহমুদ চৌধুরী বলেছেন, সরকার গণতান্ত্রিক ও আইনি অধিকার কেড়ে নিচ্ছে।

তিনি বলেন, সম্প্রতি জাতীয় সম্প্রচার নীতিমালা প্রনয়নের মাধ্যমে গণতন্ত্রের শক্তিশালী অঙ্গ কেটে ফেলেছে। ৫ জানুয়ারি ভোটারবিহীন নির্বাচনের মাধ্যমে জনগণের ভোটাধিকার, মানুষের বাকস্বাধিনতা ও দেশে আইনের শাসন কেড়ে নিয়েছে। বর্তমানে সংসদে বিচারপতিদের অভিশংসন ক্ষমতা দিয়ে দেশে বাকশালের পূর্ণাঙ্গ রূপ দিয়েছে।

মঙ্গলবার বিকেলে নগর বিএনপির দলীয় কার্যালয় নাসিমন ভবনের সামনে অনুষ্ঠিত এক সমাবেশে প্রধান অতিথির বক্তব্যে এসব কথা বলেন তিনি।

সংসদে বিচারপতিদের অভিশংসন ক্ষমতার প্রতিবাদে মিছিল সমাবেশ করে ২০ দলীয় জোট চট্টগ্রাম মহানগর। কেন্দ্রীয় কর্মসূচীর অংশ হিসাবে এসব কর্মসূচি  পালন করা হয়।

হাসিনার সরকার দেশের সর্বক্ষেত্রে আওয়ামীকরণ করতে চায় অভিযোগ করে আমীর খসরু বলেন, রাষ্ট্রের সমস্ত প্রতিষ্ঠানকে দলীয়করণ করে রাষ্ট্রীয় সন্ত্রাসের মাধ্যমে জোর করে ক্ষমতায় থাকতে চায় তারা।

তিনি বলেন, আওয়ামী লীগ যদি মনে করে এই সব আইন করে ক্ষমতা দীর্ঘস্থায়ী করা যাবে তাহলে তারা ভুল করবে। তাদের পতন অবশ্যই হবে। এর আগে আওয়ামী লীগ বাকশাল কায়েমের চেষ্টা করে দীর্ঘ ২০বছর ক্ষমতার বাইরে থাকতে হয়েছে। এবার ক্ষমতা থেকে বিদায় নিলে চিরতরে নির্বাসনে যাবে।

বুধবার নগরীর ৭টি স্পটে গণসংযোগ কর্মসূচিতে জনগণের বিপুল অংশগ্রহণের মাধ্যমে চট্টগ্রাম থেকে সরকার পতনের প্রথম পদক্ষেপ শুরুর ঘোষণা দেন তিনি।

সমাবেশে প্রধান বক্তার বক্তব্যে বিএনপির সাংগঠনিক সম্পাদক গোলাম আকবর খোন্দকার বলেন, আওয়ামী লীগ সরকার ক্ষমতাকে দীর্ঘস্থায়ী করতে বিরোধী দলের নেতাকর্মীদের উপর নির্যাতন নিপীড়ন চালাচ্ছে।

নিত্যনতুন আইনের অংশ হিসেবে তারা জাতীয় সম্প্রচার নীতিমালা প্রণয়ন করেছে। সরকার আইন শৃঙ্খলা বাহিনীকে ব্যবহার করে, বিচারপতিদের অভিশংসন প্রক্রিয়া সংসদে দেওয়ার মাধ্যমে ক্ষমতাকে পাকাপোক্ত করার চেষ্টা করলেও জনগণ তা  সফল হতে দিবে না।

মহানগর বিএনপির সহ-সভাপতি সামশুল আলমের সভাপতিত্বে ও সাধারণ সম্পাদক ডা. শাহাদাত হোসেনের পরিচালনায় সমাবেশে অন্যান্যের মধ্যে সাবেক হুইপ সৈয়দ ওয়াহিদুল আলম, সাবেক সাংসদ বেগম রোজি কবির, উত্তর জেলা বিএনপির আহ্বায়ক আসলাম চৌধুরী, কেন্দ্রীয় সদস্য মাহবুবুর রহমান শামিম, মহানগর বিএনপির সহ-সভাপতি আবু সুফিয়ান প্রমুখ বক্তব্য রাখেন।

এর আগে নগরীর কাজির দেউড়ি মোড় থেকে আমীর খসরু মাহমুদ চৌধুরীর নেতৃত্বে এক মিছিল বের করা হয়। এটি নগরীর বিভিন্ন সড়ক প্রদক্ষিণ করে নাসিমন ভবনের সামনে গিয়ে শেষ হয়।

বাংলাদেশ সময়:১৯২৯ ঘণ্টা, আগস্ট ২৬, ২০১৪

        ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন  

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

Alexa
cache_14 2014-08-26 09:29:00