bangla news
সরকারি উদ্যোগ

বিশ্ববাজারে এনএমআই নাবিকদের চাকরির সম্ভাবনা

1226 |
আপডেট: ২০১৪-০৭-০১ ৫:৪০:০০ এএম

চট্টগ্রামে অবস্থিত বাংলাদেশে আন্তর্জাতিক মান সম্পন্ন একমাত্র নাবিক প্রশিক্ষণ কেন্দ্র ন্যাশনাল মেরিটাইম ইনস্টিটিউট (এনএমআই) পরিদর্শনের আগ্রহ প্রকাশ করেছে সিঙ্গাপুর ভিত্তিক জাহাজ কোম্পানিগুলো।

চট্টগ্রাম: চট্টগ্রামে অবস্থিত বাংলাদেশে আন্তর্জাতিক মান সম্পন্ন একমাত্র নাবিক প্রশিক্ষণ কেন্দ্র ন্যাশনাল মেরিটাইম ইনস্টিটিউট (এনএমআই) পরিদর্শনের আগ্রহ প্রকাশ করেছে সিঙ্গাপুর ভিত্তিক জাহাজ কোম্পানিগুলো।

এতে বিশ্ব বাজারে ন্যাশনাল মেরিটাইম ইনস্টিটিউটের (এনএমআই) নাবিকদের জাহাজে চাকরির সম্ভাবনা দেখা দিয়েছে বলে মনে করছেন সংশ্লিষ্টরা।

সম্প্রতি নৌ-পরিবহন মন্ত্রণালয়ের উপ-সচিব খাজা আব্দুল হান্নান ও এনএমআই-এর অধ্যক্ষ ক্যাপ্টেন ফয়সাল আজিম সিঙ্গাপুর সফর করেন। পাঁচ দিনের সফরে তারা সিঙ্গাপুরের বিভিন্ন শিপিং কোম্পানি এবং এ সেক্টরে কর্মরত বাংলাদেশি কমিউনিটির সঙ্গে কথা বলেন।

এসময় তারা এনএমআই-এর প্রশিক্ষণের মান, নাবিকদের দক্ষতা নিয়ে বিস্তারিত আলোচনা করেন। এনএমআই সম্পর্কে অবগত করার পর এটি পরিদর্শনের আগ্রহ প্রকাশ করেন তারা।

তবে বাংলাদেশে যোগ্য নাবিক তৈরির একটি মান সম্পন্ন প্রশিক্ষণ কেন্দ্র রয়েছে বিষয়টি সম্পর্কে অবগত ছিল না সিঙ্গাপুরের শিপিং কোম্পানিগুলো।

ফিলিপাইন, ইন্দোনেশিয়াসহ কয়েকটি দেশ থেকে নাবিক নিয়োগ নেওয়া হলেও যথেষ্ঠ যোগ্য নিয়ে এ তালিকায় স্থান পায়নি বাংলাদেশ। 

নাবিকদের চাকরির বাজার সৃষ্টির জন্য বাংলাদেশ থেকে প্রথমবারের মতো এ ধরনের সফর করা হয়েছে বলে জানিয়েছেন নৌ-পরিবহন মন্ত্রণালয়ের উপ-সচিব খাজা আব্দুল হান্নান।

তিনি বাংলানিউজকে বলেন, বর্তমানে এ সেক্টরে লোকজন আসছে। তাদের চাকরির জন্য বর্তমান সরকার বিভিন্ন পদক্ষেপও নিয়েছে। এরই ধারাবাহিকতায় আমরা সিঙ্গাপুর সফর করেছি।

সফরে এনএমআই নাবিকদের চাকরির বিষয়ে আলাপ-আলোচনা হয়েছে উল্লেখ করে খাজা আব্দুল হান্নান জানান, সিঙ্গাপুরের কয়েকটি জাহাজ কোম্পানি নাবিক প্রশিক্ষণ কেন্দ্রটি পরিদর্শনের আগ্রহ প্রকাশ করেছেন।

এ বিষয়ে ন্যাশনাল মেরিটাই ইনস্টিটিউটের অধ্যক্ষ ক্যাপ্টেন ফয়সাল আজিম বাংলানিউজকে বলেন, বাংলাদেশে যে এ ধরনের একটি নাবিক প্রশিক্ষণ কেন্দ্র আছে সে বিষয়ে সিঙ্গাপুরের জাহাজ কোম্পানিগুলোর কোনো ধারণাই ছিল না। পাঁচ দিনের সফরে আমরা সেখানকার বিভিন্ন শিপিং কোম্পানি এবং এ সেক্টরে কর্মরত বাংলাদেশি কমিউনিটির সঙ্গে কথা বলেছি। এ সময় তাদের এনএমআই সম্পর্কে অবগত করা হয়েছে।

তিনি বলেন, আমরা বলেছি এখানে (এনএমআই) যারা প্রশিক্ষণ নেয় তারা যোগ্য। বিশ্বের যে কোনো নাবিক থেকে দক্ষ। তারা আমাদের কথায় সন্তুষ্ট হয়ে এনএমআই পরিদর্শনের আগ্রহ প্রকাশ করেছেন।

তবে নাবিক নিয়োগ, বেতন কাঠামোসহ আরো কিছু বিষয়ে সেখানকার শিপিং কোম্পানিগুলো জানতে চেয়েছে বলে জানান ক্যাপ্টেন ফয়সাল আজিম।

তিনি বলেন, আমরা তাদের জানিয়েছি আন্তর্জাতিকভাবে নাবিক নিয়োগের সব শর্ত পালন করি। এছাড়া বেতনের বিষয়ে কিছুটা ছাড় দেওয়ার বিষিয়টি অবহিত করেছি। 

যথা সময়ে সিঙ্গাপুর সফর হয়েছে উল্লেখ করে ক্যাপ্টেন ফয়সাল বলেন, ‘থোম শিপ ম্যানেজম্যান্ট’ নামে একটি শিপিং কোম্পানি নাবিক নিয়োগে নীতিগত পরিবর্তন আনার চিন্তা ভাবনা করছে। ঠিক তার আগেই আমাদের এ সাক্ষা‍ৎ। ফলে বাংলাদেশের নাবিক নিয়োগের বিষয়ে তারা সিদ্ধান্ত নিতে পারবেন।

তারা সাধারণত ফিলিপাইন, ইন্দোনেশিয়া থেকেই অধিকাংশ নাবিক নিয়োগ দিয়ে থাকে বলে জানান তিনি।

এনএমআই অধ্যক্ষ জানান, মানহীন কিছু বেসরকারি প্রশিক্ষণ কেন্দ্র বিপুল পরিমাণ অর্থের বিনিময়ে নাবিক প্রশিক্ষণ দিচ্ছে। আর কম খরছে যাতে দ‍ারিদ্র্য পরিবারের সন্তানরাও প্রশিক্ষণ নিতে পারে নৌ-পরিবহন মন্ত্রণালয় সে চেষ্টা করছে। এ বিষয়ে একটি কমিটিও করা হয়েছে।

জাহাজে অফিসারদের চাকরির বাজার বাড়লেও নাবিকদের বাজার দিন দিন সংকুচিত হচ্ছে। বর্তমানে যেসব নাবিক দেশি-বিদেশি বিভিন্ন জাহাজে রয়েছে তারা দেশি প্রাইভেট কিছু প্রতিষ্ঠানের মাধ্যমে যায়।

কিন্তু সঠিক মাধ্যম না থাকায় অনেক সময় প্রশিক্ষণ নিয়েও জাহাজে যোগ দিতে পারেন না নাবিকরা। এ অবস্থায় নাবিকদের চাকরি নিশ্চিত করতে উদ্যোগ নিয়েছে বর্তমান সরকার।

এরই অংশ হিসেবে প্রথমবারের মতো নাবিকদের চাকরির বাজার সৃষ্টিতে সিঙ্গাপুরে সফরে যান দুই সদস্যের প্রতিনিধি দল।

বাংলাদেশ সময়: ১৫৩৯ ঘণ্টা, জুলাই ০১, ২০১৪

        ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন  

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

Alexa
cache_14 2014-07-01 05:40:00