bangla news

আলোকউজ্জ্বল অনুষ্ঠানে সম্পন্ন মিলেনিয়াম গলফ টুর্নামেন্ট

47 |
আপডেট: ২০১৪-০১-০৪ ১:৪০:৫৬ এএম
ছবি: বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম

ছবি: বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম

মুহুর্মুহু আতশবাজির ঝলকানি। আলোর বিচ্ছুরণ। হাজারো রঙের খেলা। আর আলোর ঝরনাধারা। বিস্ময়, করতালি আর মুগ্ধতায় যেন অন্য এক পরিবেশের সৃষ্টি হয়েছিল ভাটিয়ারি গলফ অ্যান্ড কান্ট্রি ক্লাবে। এ যেন অন্য রকম আলোক উৎসব।

চট্টগ্রাম: মুহুর্মুহু আতশবাজির ঝলকানি। আলোর বিচ্ছুরণ। হাজারো রঙের খেলা। আর আলোর ঝরনাধারা। বিস্ময়, করতালি আর মুগ্ধতায় যেন অন্য এক পরিবেশের সৃষ্টি হয়েছিল ভাটিয়ারি গলফ অ্যান্ড কান্ট্রি ক্লাবে। এ যেন অন্য রকম আলোক উৎসব।

শুক্রবার সন্ধ্যায় চট্টগ্রামের ভাটিয়ারি গলফ অ্যান্ড কান্ট্রি ক্লাবের হলরুমে প্রথমবারের মতো আয়োজিত মিলেনিয়াম গলফ টুর্নামেন্টের পুরস্কার বিতরণী অনুষ্ঠানে এ আলোক উৎসবের আয়োজন করা হয়।

টুর্নামেন্টের বিভিন্ন ক্যাটাগরিতে বিজয়ীদের হাতে ক্রেস্ট তুলে দেন অনুষ্ঠানের প্রধান অতিথি ক্লাবের সিনিয়র ভাইস প্রেসিডেন্ট ও সেনাবাহিনীর ২৪ পদাতিক ডিভিশনের জিওসি মেজর জেনারেল সাব্বির আহমেদ।

অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি ছিলেন মিলেনিয়াম গ্রুপের ব্যবস্থাপনা পরিচালক শারিক ফাহিম হক। অন্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন মেজর জেনারেল মো. জাহাঙ্গির কবির তালুকদার, বিগ্রেডিয়ার জেনারেল মো. ওবায়দুল হক, মহসিন আহমেদ ও মিলেনিয়াম গ্রুপের সহকারি পরিচালক(বিক্রয়) মো. মাসুদুজ্জামান সুবহানি, সহকারি পরিচালক(বিক্রয়) আহমেদ নাজিম উদ দৌলা জুনায়েদ ও মহাব্যবস্থাপক(বিপণন) ইমরান খান।

পুরুস্কার বিতরণীর পরপরই লেজার শো ও আতশবাজি ফোটানোর উত্সব শুরু হয়। প্রায় ৩০ মিনিটের প্রদর্শনীর শুরুতেই ছিল লেজারের চমক। বর্ণিলসব আলোর বিচ্ছুরণের মাধ্যমে মিলেনিয়াম গ্রুপের বিভিন্ন গাড়ির মডেল জাগুয়ার, ল্যান্ড রুভার, নিশান, হুন্দাই এবং গুড ইয়ার টায়ার তুলে ধরা হয়। লেজারের খেলা শেষ হওয়ার পর শুরু হলো মুহুর্মুহু বিস্ফোরণ। গলফ মাঠ থেকে একেকটি আতশবাজি আকাশপানে ছুটছিল। এরপর সেগুলো বিস্ফোরিত হয়ে চারপাশে ছড়াচ্ছিল আলোকচ্ছটা। কত যে তার রং, কত যে তার খেলা। যেন লাখো কদমফুল আকাশ থেকে নেমে আসছে ধরায়, পাপড়িগুলো উড়ে উড়ে ছড়িয়ে পড়ছে চারপাশে।

এরপর শুরু হয় ‘মিউজিক শো’। নিজের ব্যান্ড দল এলআরবিকে নিয়ে মঞ্চে ওঠেন জনপ্রিয় সংগীত তারকা আইয়ুব বাচ্চু। অনুষ্ঠানে আইয়ুব বাচ্চু দর্শক-শ্রোতাদের একে একে গেয়ে শোনান জনপ্রিয় সব বাংলা ও ইংরেজি গান।

ইংরেজি ‘ফাইভ হানড্রেড মাইলস’ গানটির মধ্য দিয়ে শুরু এ অনুষ্ঠানে আইয়ুব বাচ্চু একে একে গেয়ে শোনান ‘সালতান অব সুইং’, ‘ড্রাইস স্ট্রিট’, ‘উইথ অর উইথআউট ইউ’, ‘ক্রেজি ডায়মন্ড’, ‘লেট মি ইনসাইড’। বাংলা গানগুলোর মধ্যে ছিল এলআরবির অমর সৃষ্টি ‘সেই তুমি’, ‘এখন অনেক রাত’সহ জনপ্রিয় বেশ কিছু গান। এ ছাড়াও উপস্থিত দর্শক-শ্রোতাদের অনুরোধে আইয়ুব বাচ্চু কয়েকটি গান গেয়ে শোনান।

আইয়ুব বাচ্চু এই অনুষ্ঠানে গানের মাধ্যমে শুভ কামনা জানান বাংলাদেশ সেনাবাহিনীকে। দেশ মাতৃকার সেবায় নিয়োজিত থাকা বাংলাদেশ সেনাবাহিনীকে তিনি উত্সর্গ করেন `আমরা করব জয়` গানটি। গানটির সুর মূর্ছনায় উদ্বেলিত হয়ে আইয়ুব বাচ্চুর গিটারে ঠোট মেলান দর্শক-শ্রোতারা।

শুক্রবার সকাল ৮টায় টুর্নামেন্টের উদ্বোধন করেন জিওসি মেজর জেনারেল সাব্বির আহমেদ। টুর্নামেন্টে ১৮টি ক্যাটাগরিতে তিনজন নারী ও ২৩ জন জুনিয়র গলফারসহ সর্বমোট ১৭২ জন গলফার অংশ নেন।

টুর্নামেন্টে চ্যাম্পিয়ন হন জে কে ক্যাঙ। রানার আপ হন মেজর (অব.) আসাদুল হক মিয়াহ, দ্বিতীয় রানার আপ সিরাজুল হক খান, তৃতীয় রানার আপ হোসাইন মো. শোয়াইব, ৪র্থ রানার আপ মেজর (অব.) এমদাদুল ইসলাম, ৫ম রানার আপ ক্যাপ্টেন রফিকুল ইসলাম (মেরিন)।

‌এছাড়া ৯ হোল উইনার লেফটেন্যান্ট কর্নেল (অব.) এ বি এম জাইনুর রশিদ ও ৯ হোল রানার আপ মেজর খন্দকার আবু হুরায়রা।

এছাড়াও লেডিস উইনার ওবায়দা সাইদ, সিনিয়র উইনার শামসুল হুদা, জুনিয়র উইনার মাস্টার ইসমাইল, জুনিয়র রানার আপ হন মাস্টার সাজিদ।

এছাড়া বিভিন্ন ক্যাটাগরিতে অন্যান্য বিজয়ীরা হলেন- বেস্ট পার ৫ স্কোর ইশরাতুল হক খান, বেস্ট পার ৩ স্কোর ক্যাপ্টেন (অব.) কাদের মাহমুদ চৌধুরী, নিয়ারেস্ট টু পিন ক্যাপ্টেন কামরুল ইসলাম মজুমদার, লংগেস্ট ড্রাইভ  সাকিফ সালাম, বেস্ট ব্যাক নাইন মেজর (অব.) কে এস এম ইজাজ আফজাল, বেস্ট ফ্রন্ট নাইন আমজাদুল পারভেজ চৌধুরী।

বাংলাদেশ সময়: ১২৩৯ ঘণ্টা, জানুয়ারী ০৪, ২০১৩
সম্পাদনা: তপন চক্রবর্তী, ব্যুরো এডিটর

        ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন  

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

Alexa
cache_14 2014-01-04 01:40:56