ঢাকা, শনিবার, ১০ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১, ২৫ মে ২০২৪, ১৬ জিলকদ ১৪৪৫

চট্টগ্রাম প্রতিদিন

কিশোর গ্যাংয়ের হুমকি, জেলা প্রশাসককে চিঠি

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২২০২ ঘণ্টা, এপ্রিল ২১, ২০২৪
কিশোর গ্যাংয়ের হুমকি, জেলা প্রশাসককে চিঠি প্রতীকী ছবি

চট্টগ্রাম: কিশোর গ্যাংয়ের অত্যাচার ও হুমকি থেকে বাঁচার জন্য চট্টগ্রাম জেলা প্রশাসকের দারস্থ হয়েছেন হিলভিউ সোসাইটির এম এ ওয়াদুদ নামে এক বাসিন্দা।  

সোমবার (২১ এপ্রিল) দুপুরের দিকে জেলা প্রশাসক আবুল বাসার মোহাম্মদ ফখরুজ্জামানের কাছে এই চিঠিতে তিনি বিষয়টি উল্লেখ করেন।

 

চিঠিতে তিনি উল্লেখ করেন, আমি আমার স্ত্রীকে নিয়ে হিলভিউ সোসাইটিতে স্থায়ীভাবে বসবাস করছি। আমার নূরনগর হাউজিং সোসাইটিতে ৪ কাঠা করে ৮ কাঠার প্লট রয়েছে।

আমি গত ৮ বছর আগে আমার ব্যাংকের লোন পরিশোধ করার জন্য সৈয়দ আহম্মদ দুলালের কাছে সম্পত্তি বিক্রির উদ্দেশ্য আন রেজিষ্ট্রার্ড বায়না করি। এরপর সৈয়দ আহম্মদ দুলাল প্লটটি রেজিষ্ট্রি না নিয়ে আমাকে ৫ বছর ঘুরিয়েছে। এর মধ্যে আমি আরও ৭০ লাখ টাকা বেশি দিয়ে আমার পারিবারিক সম্পত্তি বিক্রি করে এবং অন্য ব্যাংক থেকে লোন নিয়ে ব্যাংকের লোন পরিশোধ করি।

পরে সৈয়দ আহম্মদ দুলাল জমি রেজিস্ট্রি না নিয়ে তার বায়নাকৃত টাকা ফেরত পাওয়ার জন্য ৫৯২/২১ মামলা দায়ের করে। মামলাটি এখনও আদালতে বিচারাধীন। ইতিমধ্যে আদালতের আদেশক্রমে আমি কিছু টাকা কোর্টে জমা করি। অথচ সৈয়দ আহম্মদ দুলাল গত কয়েক মাসে কিশোর গ্যাংয়ের লোকজন নিয়ে আমার ওপর কয়েকবার আক্রমণ করে এবং আমাকে মেরে ফেলার হুমকি দেয়। গত ৮ তারিখে কয়েকজন কিশোর গ্যাংয়ের সদস্য দেশীয় অস্ত্র নিয়ে আমার বাসায় পাঠায়। শুক্রবার জুমার নামাযের পর সৈয়দ আহম্মদ দুলালের নেতৃত্বে একদল কিশোর গ্যাং আমার পথ অবরো: করে আমাকে স্থানীয় মসজিদে ঢুকিয়ে প্রাণে মেরে ফেলার হুমকি দেয় এবং অকথ্য ভাষায় গালিগালাজ করে। পরে আমি ৯৯৯ ফোন করলে পাঁচলাইশ খানার এস আই কিবরিয়ার নেতৃত্বে আমি উদ্ধার হই এবং কিশোর গ্যাংয়ের সদস্যরা ও দুলাল পালিয়ে যায়।

ভুক্তভোগী এম এ ওয়াদুদ বাংলানিউজকে বলেন, কিশোর গ্যাংয়ের উৎপাত থেকে বাঁচতে আমি চট্টগ্রাম জেলা প্রশাসকের কাছে চিঠি দিয়েছি। বিষয়টি তিনি দেখবেন বলেছেন।

বাংলাদেশ সময়: ২১৪০ ঘণ্টা, এপ্রিল ২১, ২০২৪ 
বিই/পিডি/টিসি

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।