ঢাকা, শুক্রবার, ৫ বৈশাখ ১৪৩১, ১৯ এপ্রিল ২০২৪, ০৯ শাওয়াল ১৪৪৫

চট্টগ্রাম প্রতিদিন

বিভেদ যাতে মাথাচাড়া না দেয়, সতর্ক থাকতে হবে: স্বপন

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০৪২ ঘণ্টা, মার্চ ২৬, ২০২৩
বিভেদ যাতে মাথাচাড়া না দেয়, সতর্ক থাকতে হবে: স্বপন ...

চট্টগ্রাম: আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক ও জাতীয় সংসদের হুইপ আবু সাঈদ আল মাহমুদ স্বপন বলেছেন, চট্টগ্রাম মহানগর আওয়ামী লীগ আন্দোলন সংগ্রামে সবচেয়ে একটি সংগঠিত সংগঠন। এই সংগঠনের পূর্বসূরী এম এ আজিজ, জহুর আহমদ চৌধুরী, এম এ হান্নান, এম. এ মান্নান, এবিএম মহিউদ্দিন চৌধুরী, কাজী ইনামুল হক দানু এদের পরম্পরায় এখন যারা নেতৃত্বে আছেন তাদের প্রতি আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় নেতৃত্বের আস্থা আছে।

তবে কোনো ভাবেই বিভেদ ও মতভিন্নতা যাতে মাথাচাড়া না দেয়, সেদিকেও মহানগর আওয়ামী লীগের বর্তমান নেতৃত্বকে সতর্ক থাকতে হবে।

রোববার (২৬ মার্চ) সন্ধ্যায় ইন্টারন্যাশনাল কনভেশন সেন্টারে চট্টগ্রাম মহানগর আওয়ামী লীগের উদ্যোগে স্বাধীনতা দিবসের আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব একথা বলেন।

 

তিনি আরও বলেন, স্বাধীনতার মাসে চট্টগ্রাম মহানগর আওয়ামী লীগ যে দিবসটি উদযাপন করেছেন এতে মাটি ও মানুষের সুবাস পেলাম। এই চট্টগ্রামকে বিশ্বাস করতেন বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান। তাই স্বাধীনতার  বার্তাটি চট্টগ্রামের জহুর আহমদ চৌধুরীর কাছে পাঠিয়ে ছিলেন। এই পবিত্র মাটিকে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা মূল্যায়ন করেন এবং চট্টগ্রাম থেকেই ত্যাগী ও পরীক্ষিত তৃণমূল নেতা কর্মীরা সামনে এগিয়ে আসবেন। এই বিশ্বাসবোধ থেকে তৃণমূলের কর্মী নোমান আল মাহমুদকে চট্টগ্রাম-৮ আসনের নৌকা প্রতীক দিয়েছেন। আমি আশা করবো সমস্ত বিভেদ-বিভ্রান্তি বা ভিন্নতা ভুলে নোমান আল মাহমুদকে বিজয়ী করার জন্য তৃণমূল নেতাকর্মীরাই অগ্রণী ভূমিকা পালন করবে।

চট্টগ্রাম মহানগর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আ জ ম নাছির উদ্দীন বলেন, সংকট কাটিয়ে উঠাই আওয়ামী লীগের শক্তি। এই শক্তিতে আওয়ামী লীগ বার বার বিজয়ী হয়েছে। সেবাই ধর্ম। এই সেবাব্রত পালনে আমাদেরকে মানুষের কাছে পৌঁছাতে হবে। আওয়ামী লীগ ধারাবাহিকভাবে তিন মেয়াদে ক্ষমতায় থাকায় যে অর্জনগুলো জাতিকে উপহার দিয়েছেন তা যেন আমরা জনগণের কাছে পৌঁছে দিতে পারি। আজকে বাংলাদেশে ভূমিহীন ও গৃহহীনরা জমি ও বাসস্থান পাচ্ছে। এইরকম অর্জন পৃথিবীতে কোথাও নেই। এটাই হচ্ছে স্বাধীনতার মহান প্রাপ্তি।

সভাপতির বক্তব্যে চট্টগ্রাম মহানগর আওয়ামী লীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি মাহতাব উদ্দীন চৌধুরী বলেন, পবিত্র রমজানুল মোবারকের মধ্যেই আমরা স্বাধীনতা দিবস পালন করছি। যা আমাদের জন্য পরম সৌভাগ্যের। আমাদেরকে মনে রাখতে হবে, ক্ষমতায় ছিলাম, আছি ও থাকবো। তবে আমাদেরকে পরিচ্ছন্ন হতে হবে। নেতৃত্বের আসনে ত্যাগী ও পরীক্ষিতরা আসতে হবে।  

মহানগর আওয়ামী লীগের প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক শফিকুল ইসলাম ফারুকের সঞ্চালনায় আলোচনা সভায় আরও বক্তব্য দেন মহানগর আওয়ামী লীগের সহ সভাপতি খোরশেদ আলম সুজন, এম. জহিরুল আলম দোভাষ, উপদেষ্টা শেখ মো. ইছহাক, সাংগঠনিক সম্পাদক নোমান আল মাহমুদ, শফিক আদনান, সম্পাদক মন্ডলীর সদস্য অ্যাডভোকেট শেখ ইফতেখার সাইমুল চৌধুরী, চন্দন ধর ও মশিউর রহমান চৌধুরী প্রমুখ।

বাংলাদেশ সময়: ২০৪০ ঘণ্টা, মার্চ ২৬, ২০২৩
এমআই/পিডি/টিসি

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।