ঢাকা, রবিবার, ১৮ আষাঢ় ১৪২৯, ০৩ জুলাই ২০২২, ০২ জিলহজ ১৪৪৩

ক্রিকেট

সাইমন্ডসকে বাঁচানোর চেষ্টা করেও ব্যর্থ হয়েছেন এক পথচারী

স্পোর্টস ডেস্ক | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৮০২ ঘণ্টা, মে ১৫, ২০২২
সাইমন্ডসকে বাঁচানোর চেষ্টা করেও ব্যর্থ হয়েছেন এক পথচারী

সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত হন অস্ট্রেলিয়ার সাবেক অলরাউন্ডার অ্যান্ড্রু সাইমন্ডস। স্থানীয় সময় শনিবার (১৪ মে) রাতে কুইন্সল্যান্ডের টাউন্সভিলে সাইমন্ডসের দুর্ঘটনাটি ঘটে।

ওই সময় তাকে বাঁচানোর জন্য চেষ্টা চালিয়েছেন ওয়েলসন টাউনসন নামের এক স্থানীয় ব্যক্তি। কিন্তু শেষ পর্যন্ত পারলেন না তিনি।

গভীর চোটের কারণে ঘটনাস্থলেই প্রাণ হারিয়েছেন সাইমন্ডস। পুলিশের পক্ষ থেকে জানানো হয়, স্থানীয় সময় রাত ১১টা নাগাদ গাড়িটি অ্যালিস রিভার ব্রিজ থেকে বাঁ দিকে যাওয়ার সময় উল্টে যায়। এতে ঘটনাস্থলেই তার মৃত্যু হয়। টাউন্সভিল থেকে ৫০ কিলোমিটার দূরে হারভি রেঞ্জে ঘটনাটি ঘটে।  

দুর্ঘটনার পর গাড়ির বিকট আওয়াজ শুনে ছুঁটে আসেন টাউনসন। সেসময় সাইমন্ডসকে বাঁচানোর চেষ্টা করেন তিনি। ওই ব্যক্তির ভাষায়, 'তিনি (সাইমন্ডস) ওখানে আটকে ছিলেন। আমি তাকে সেখান থেকে বের করার চেষ্টায় ছিলাম। আমি সিপিআর করার চেষ্টায় ছিলাম। তার পালস পরীক্ষা করে দেখছিলাম। আমি তেমন কোনো সাড়া পাচ্ছিলাম না। ’

শেষ পর্যন্ত আর সাইমন্ডসকে বাঁচানো যায়নি। তার মৃত্যুতে শোকের ছায়া নেমে এসেছে ক্রিকেট দুনিয়ায়। তার সাবেক সতীর্থ থেকে শুরু করে একসময়ের প্রতিপক্ষরাও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে সাইমন্ডসের এই অকাল মৃত্যুতে শোক প্রকাশ করেছেন।

ইংল্যান্ডের বার্মিংহামে জন্ম নেওয়া সাইমন্ডসের অস্ট্রেলিয়ার হয়ে অভিষেক হয় ১৯৯৮ সালে পাকিস্তানের বিপক্ষে। ২০০৯ সালে আন্তর্জাতিক ক্রিকেটকে বিদায় বলেছিলেন তিনি। ১১ বছরের ক্যারিয়ারে দেশটির হয়ে ২৬ টেস্ট ও ১৯৮ ওয়ানডে ম্যাচ খেলেছিলেন। বিস্ফোরক ব্যাটিং, বুদ্ধিদীপ্ত বোলিং আর অসাধারণ ফিল্ডিং দক্ষতার জন্য বিশ্বজোড়া খ্যাতি ছিল তার। ২০০৩ এবং ২০০৭ বিশ্বকাপজয়ী অস্ট্রেলিয়া দলের অংশ ছিলেন তিনি।

সাইমন্ডস আন্তর্জাতিক ক্রিকেট থেকে অবসর নেন ২০১২ সালে। এর পর ধারাভাষ্যকার হিসেবে মাইক হাতে তুলে নেন তিনি। ক্রিকেট জীবনে বিতর্ক পিছু ছাড়েনি সাইমন্ডসের।

বাংলাদেশ সময়: ১৮০২ ঘণ্টা, মে ১৫, ২০২২
আরইউ

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa