ঢাকা, শনিবার, ৭ বৈশাখ ১৪৩১, ২০ এপ্রিল ২০২৪, ১০ শাওয়াল ১৪৪৫

ক্রিকেট

রশিদ-তেওয়াটিয়ার ঝড়ো ব্যাটে ফের শীর্ষে গুজরাট

স্পোর্টস ডেস্ক | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ০১০৬ ঘণ্টা, এপ্রিল ২৮, ২০২২
রশিদ-তেওয়াটিয়ার ঝড়ো ব্যাটে ফের শীর্ষে গুজরাট

জয়ের জন্য শেষ ওভারে গুজরাট টাইটান্সের দরকার ২২ রান। কঠিন এই টার্গেটকে অবশ্য ঝড়ো ব্যাটে সহজ করে দিলেন রাহুল তেওয়াটিয়া ও রশিদ খান।

বিশেষ করে রশিদের সেই ওভারে ৩ ছক্কায় সানরাইজার্স হায়দ্রাবাদের বিপক্ষে ৫ উইকেটের রোমাঞ্চকর জয় পায় টাইটান্স। এ জয়ে পয়েন্ট টেবিলে ফের শীর্ষে উঠে এলো গুজরাট।

বুধবার মুম্বাইয়ের ওয়াংখেড়ে স্টেডিয়ামে আইপিএলের ৪০তম ম্যাচে প্রথমে ব্যাট করে হায়দ্রাবাদ নির্ধারিত ২০ ওভার শেষে ৬ উইকেট হারিয়ে ১৯৫ রান করে। জবাবে ইনিংসের শেষ বলে ৫ উইকেট হারিয়ে জয় তুলে নেয় গুজরাট।

১৯৬ রানের লক্ষ্যে ব্যাট করতে নেমে গুজরাটের হয়ে সর্বোচ্চ ৩৮ বলে ১১টি চার ও একটি ছক্কায় ৬৮ করেন ঋদ্ধিমান শাহা। তবে হায়দ্রাবাদ বোলার উমরান মালিকের তোপে একের পর এক উইকেট হারাতে থাকে গুজরাট। কিন্তু তেওয়াটিয়া ও রশিদ শেষদিকে ঝড় তুলে জয় নিশ্চিত করেন। তেওয়াটিয়া ২১ বলে ৪টি চার ও ২টি ছক্কায় ৪০ রানে অপরাজিত থাকেন। আর রশিদ ১১ বলে ৪টি ছক্কায় ৩১ রানের হার না মানা ইনিংস খেলেন।

গুজরাটের এই জয়ে ম্লান হয়ে যায় উমরানের ৫ উইকেট দখল। প্রতিপক্ষের সবকটি উইকেট তিনি একাই তুলে নেন। ৪ ওভারে মাত্র ২৫ রানের বিনিময়ে ৫ উইকেট পান তিনি।

টস হেরে এর আগে প্রথমে ব্যাট করতে নেমে ওপেনার অভিষেক শর্মা ও এইডেন মার্করামের হাফসেঞ্চুরিতে ভর করে ভালো সংগ্রহ পায় হায়দ্রাবাদ। অভিষেক ৪২ বলে ৬টি চার ও ৩টি ছক্কায় ৬৫ করেন। অন্যদিকে মার্করাম ৪০ বলে ২টি চার ও ৩টি ছক্কায় ৫৬ করেন। শেষদিকে শশাঙ্ক সিং মাত্র ৬ বলে ২৫ রানে অপরাজিত থাকেন। তিনি একটি চার ও ৩টি ছক্কা হাঁকান।

গুজরাট বোলার মোহাম্মদ শামি সর্বোচ্চ ৩টি উইকেট পান।

ম্যাচ হারলেও হায়দ্রাবাদের উমরান মালিক ম্যাচ সেরা হন।

৮ ম্যাচে ৭ জয় ও এক হারে ১৪ পয়েন্ট নিয়ে শীর্ষে গুজরাট। সমান ম্যাচে ১০ পয়েন্ট নিয়ে তিনে হায়দ্রাবাদ।

বাংলাদেশ সময়: ০১০৪ ঘণ্টা, এপিল ২৮, ২০২২
এমএমএস     

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।