ঢাকা, রবিবার, ১১ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১, ২৬ মে ২০২৪, ১৭ জিলকদ ১৪৪৫

ক্রিকেট

ফ্লোরিডার পুনরাবৃত্তি কি করতে পারবে টাইগাররা? 

স্পোর্টস ডেস্ক | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ০২২৫ ঘণ্টা, ডিসেম্বর ২২, ২০১৮
ফ্লোরিডার পুনরাবৃত্তি কি করতে পারবে টাইগাররা?  সিরিজ জয়ে চোখ থাকবে টাইগারদের, আর তাতে বড় ভরসা দলপতি সাকিব নিজেই- ছবি: শোয়েব মিথুন/বাংলানিউজ

সিরিজে সমতা ফিরিয়ে এবার সিরিজ জয়ের লড়াইয়ে নামবে টাইগাররা। মিরপুরে অনুষ্ঠিতব্য ম্যাচটি জেতার জন্য চাইলে গত আগস্টে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের ফ্লোরিডায় এই উইন্ডিজকেই হারিয়ে সিরিজ জয়ের স্মৃতি থেকে আত্মবিশ্বাস সঞ্চয় করতে পারেন সাকিবরা। কারণ, সেবারও প্রথম ম্যাচে হেরে ফ্লোরিডায় গিয়ে পরপর দুই ম্যাচ জিতে সিরিজ জয়ের আনন্দ নিয়ে দেশে ফিরেছিল বাংলাদেশ।

ফ্লোরিডার সেই সেন্ট্রাল রিজওনাল পার্কে বাংলাদেশ আর উইন্ডিজের লড়াই দেখতে হাজির হয়েছিলেন হাজারো প্রবাসী বাংলাদেশি। তাদের উপস্থিতি দেখে মাঠটাকে শের-ই-বাংলা স্টেডিয়াম ভেবে ভুল হবে এমনটাই ছিল পরিবেশ।

এমন সমর্থনের জাবাবটাও জয় দিয়েই দিয়েছিল বাংলাদেশ। টানা দুই ম্যাচ জিতে সিরিজ জিতে নিয়েছিল ২-১ ব্যবধানে। এবার সেই ফ্লোরিডার প্রসঙ্গ উঠে আসার পেছনের কারণটাও সেই একই। সিরিজ জিততে হলে যে মিরপুরের পরের ম্যাচটাও জিততে হবে সাকিব-মুশফিকদের।

সিলেটে প্রথম ম্যাচে বড় হারের পর দ্বিতীয় ম্যাচে ৩৬ রানের দাপুটে জয়ে সিরিজে সমতা ফিরিয়েছে টাইগাররা। সিরিজ শুরুর আগে টি-টোয়েন্টির বিশ্ব চ্যাম্পিয়ন ক্যারিবিয়ানদের শক্তিমত্তা নিয়েও হয়েছে অনেক আলোচনা। তা প্রথম ম্যাচে তারা সেটা কিছুটা প্রমাণও করেছে। কিন্তু মিরপুরে ফিরেই দারুণ জবাব দিয়েছে সাকিববাহিনী। আগামীকাল শনিবার (২২ ডিসেম্বর) শেষ জবাবের পালা।

আগের ম্যাচে ব্যাট-বলে দুর্দান্ত পারফরম্যান্স দেখিয়েছেন টাইগার দলপতি সাকিব আল হাসান। ব্যাটে ঝড় তুলেছেন সাকিবসহ লিটন দাস, মাহমুদউল্লাহ ও সৌম্য সরকার। অধিনায়কের ব্যাট হাতে রানে ফেরা বাংলাদেশের জন্য সবচেয়ে স্বস্তির। তাছাড়া আগের ম্যাচেই মাত্র ১২৯ রানে গুটিয়ে যাওতার পর পরের ম্যাচেই অমন ঘুরে দাঁড়ানো সত্যি বিস্ময়কর।

দ্বিতীয় ম্যাচে ৪ চার আর ১ ছক্কা হাঁকিয়েছিলেন সাকিব, পরে বল হাতে নিয়েছেন ২১ রান খরচে ৫ উইকেট। বোলিংয়ে তাকে যোগ্য সঙ্গ দিয়েছেন মেহেদি হাসান মিরাজ। তবে রান খরচে কিছুটা পিছিয়ে থাকা মোস্তাফিজুর রহমান হতে পারেন দলের জন্য সবচেয়ে বড় দুঃশ্চিন্তা। আগের ম্যাচে ৪ ওভারে ৫০ রান খরচ করেছেন এই বাঁহাতি পেসার। যদিও তিনি গুরুত্বপূর্ণ দুটি উইকেট তুলে নিয়েছিলেন।  

ডানহাতি পেসার মোহাম্মদ সাইফউদ্দিন ৪ ওভারে ৪২ রান খরচ করেও কোনো উইকেট পাননি। আরেক পেসার আবু হায়দারও ছিলেন খরুচে। আগের ম্যাচে রুবেল হোসেনকে খেলানোর কথা শোনা গেলেও খেলানো হয়নি। পরের ম্যাচে হয়তো তাকে দেখা যেতে পারে।

উইন্ডিজের জন্য বোলাররাই দুঃশ্চিন্তার কারণ। আগের ম্যাচে তাদের পাঁচ পেসারের তিনজনই ওভারপিছু ১০-এর বেশি রান খরচ করেছেন। একজন আবার ৯.৫ করে রান খরচ করেছেন। একমাত্র ফ্যাবিয়েন অ্যালেন ভালো বোলিং করেছেন (৪-০-২৯-১)।

বাংলাদেশের ভরসা সাকিব, উইন্ডিজের আশা ‘হোপ’

সাকিব আল হাসান (বাংলাদেশ): সিরিজের দ্বিতীয় টি-টোয়েন্টিতে ম্যাচজয়ী পারফরম্যান্স দেখিয়েছেন টাইগার দলপতি সাকিব আল হাসান। প্রথমবারের মতো কোনো টি-টোয়েন্টি ম্যাচে ব্যাট হাতে ৪০-এর বেশি রান আর বল হাতে ৫ উইকেট নেওয়ার অনন্য রেকর্ড গড়েছেন তিনি। সিরিজের শেষ ম্যাচেও এমন পারফরম্যান্সের পুনবৃত্তি করতে চাইবেন এই বিশ্বসেরা অলরাউন্ডার।

শাই হোপ (উইন্ডিজ): এই একজন ব্যাটসম্যানই বাংলাদেশের বোলারদের জন্য কাল হয়ে দাঁড়িয়েছেন। প্রতিটি ম্যাচেই তার ব্যাটে ঝড় তুলতে দেখা যাচ্ছে। পুরো সফরেই তিনি উইন্ডিজের সেরা ব্যাটসম্যান। পরের ম্যাচেও ক্যারিবীয়দের প্রধান ভরসা ‘হোপ’।

বাংলাদেশ সময়: ২১১৫ ঘণ্টা, ডিসেম্বর ২১, ২০১৮
এমএইচএম

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।