ঢাকা, মঙ্গলবার, ১৪ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১, ২৮ মে ২০২৪, ১৯ জিলকদ ১৪৪৫

ক্রিকেট

ট্রাইনেশনই টাইগারদের টার্নিং পয়েন্ট

স্পেশাল করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৩২০ ঘণ্টা, জানুয়ারি ২, ২০১৮
ট্রাইনেশনই টাইগারদের টার্নিং পয়েন্ট ছবি: বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম

জানুয়ারিতে অনুষ্ঠেয় ত্রিদেশীয় সিরিজ জিতে দক্ষিণ আফ্রিকা সফরের তিক্ততা ভুলতে চাইছেন বাংলাদেশ ক্রিকেটের ওয়ানডে দলপতি মাশরাফি বিন মর্তুজা। মাশরাফি মনে করেন তারা যদি তিন জাতির এই সিরিজটি নিজেদের করে নিতে পারেন সেটা হবে টাইগারদের প্রোটিয়া সফরে হোয়াইটওয়াশের গ্লানি কাটিয়ে উঠে জয়ে ফেরার হাইওয়ে। মূলত, এই সিরিজটিকেই তিনি দেখছেন হারের বৃত্ত থেকে বেরিয়ে আসার টার্নিং পয়েন্ট হিসেবে।

মঙ্গলবার (২ জানুয়ারি) মিরপুর জাতীয় ক্রিকেট একাডেমির মাঠে অনুশীলন শেষে সংবাদমাধ্যমকে এসব কথা তুলে ধরেন মাশরাফি। নড়াইল এক্সপ্রেস বলেন, ‘অবশ্যই জেতার প্ল্যান থাকবে।

ত্রিদেশীয় সিরিজটা গুরুত্বপূর্ণ। দক্ষিণ আফ্রিকা থেকে ফেরার পর সবাই আপসেট। আমরা যদি এটা জিততে পারি, তাহলে পরিস্থিতির মোড় ঘুরে যেতে পারে। ’

সত্যিই তো তাই। বিদায়ী বছরের সেপ্টেম্বর-অক্টোবরে টাইগারদের দ. আফ্রিকা সফরের অভিজ্ঞতাটি ছিল তিক্ততায় ভরা। টেস্ট, ওয়ানডে ও টি-টোয়েন্টির কোন ফরমেটেই জয়ের দেখা তো মেলেইনি, উল্টো ছিল বিশাল বিশাল ব্যবধানে হারের দগদগে ক্ষত।

সেই ক্ষত কাটিয়ে উঠতে না উঠতেই হেড কোচের পদ থেকে সরে দাঁড়ান চন্ডিকা হাথুরুসিংহে। মুশফিকুর রহিমকে টেস্ট অধিনায়ক থেকে সরিয়ে দেয় বিসিবি। সাদা পোশাকের নেতৃত্ব ওঠে সাকিব আল হাসানের কাঁধে।

ফলে সিরিজ থেকে ফেরার পর পুরো টাইগার শিবিরকেই কেমন ছন্নছাড়া অবস্থার মধ্য দিয়ে যেতে হয়েছে। তাই শ্রীলঙ্কা ও জিম্বাবুয়েকে নিয়ে ত্রিদেশীয় সিরিজটি যদি সত্যিকার অর্থেই মাশরাফিরা নিজেদের করে নিতে পারেন নিঃসন্দেহে সেটা হবে টাইগারদের জন্য দারুণ কিছু।

পথ দেখাবে জানুয়ারি-ফেব্রুয়ারিতেই দেশের মাটিতে শ্রীলঙ্কা সিরিজ জয়ের। বাড়িয়ে দেবে বছরের বাকি সিরিজগুলো জয়ের সম্ভাবনাও।

বাংলাদেশ সময়: ১৯২০ ঘণ্টা, ২ জানুয়ারি, ২০১৮
এইচএল/এমআরএম

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।